২৮ জানুয়ারী, ২০২১ ১১:১১ এএম

বিএসএমএমইউতে প্রথম টিকা নিলেন অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া

বিএসএমএমইউতে প্রথম টিকা নিলেন অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া
বিএসএমএমইউতে দিনের প্রথম টিকা নিলেন ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়সহ (বিএসএমএমইউ) রাজধানীর পাঁচ হাসপাতালে টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) সকাল এ টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। 

বিএসএমএমইউতে দিনের প্রথম টিকা নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া। আজ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক, নার্স ও টেকনিশিয়ানসহ মোট ২০০ জনের টিকা নেবেন।

টিকা নেওয়ার পর অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া সাংবাদকিদের বলেন, ‘টিকা নেওয়াটা আমার সামাজিক, রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তিগত দায়িত্ব। আমাকে দেখে মানুষ আস্থা পাবে, সাহস পাবে। এখানে আজ অনেক লোক জড়ো হয়েছেন। টিকা নিয়ে মানুষের মনে সংশয় ছিল। এটা কেটে যেতে শুরু করেছে। আমরা এটাই চাই।’

গতকাল বুধবার বিকেলে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে টিকা দেওয়ার মাধ্যমে দেশে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চ্যুয়ালি কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর আজ রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে করোনা টিকার কার্যক্রম শুরু হলো। এর মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আজ ৪০০ স্বাস্থ্যকর্মী কোভিডের টিকা নেবেন।

এ ছাড়া কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ১০০ ও বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ৬০ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে এ টিকা দেওয়া হবে। সব মিলিয়ে পাঁচ হাসপাতালে ৫৬০ স্বাস্থ্যকর্মীকে টিকা দেওয়া হচ্ছে।

সূত্রে জানা গেছে, আজ টিকা দেওয়ার পর ছয় ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে। এ কয় দিন টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। পরে আগামী সাত ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে। 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
মেডিভয়েসকে বিশেষ সাক্ষাৎকারে পরিচালক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শতাধিক করোনা বেড ফাঁকা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত