২৭ জানুয়ারী, ২০২১ ০৩:৫৭ পিএম

‘করোনায় ৯ মাসে বিদায় ৮ হাজার মানুষ’

‘করোনায় ৯ মাসে বিদায় ৮ হাজার মানুষ’
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ফাইল ছবি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: করোনাভাইরাসে টিকাদানে কার্যক্রমে সারাদেশে ৪২ হাজার কর্মী যুক্ত আছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আজ বুধবার (২৭ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৩টায় রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। 

অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যকর্মীসহ সকল ফ্রন্টলাইনারকে পর্যায়ক্রমে টিকা দেওয়া হবে।

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ সফল হয়েছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, এ  অর্জন সহজ ছিল না। কারণ প্রথম দিকে এ জন্য কোনো প্রস্তুতিই ছিল না। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনায় প্রতিটি কাজ এগিয়ে গেছে। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সারাদেশে ২০ হাজার জনবল নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। করোনায় পরীক্ষায় একটি ল্যাবরেটরি থেকে ২০০ ল্যাবরেটরি স্থাপন করা হয়েছে।

দেশে করোনার চিকিৎসার ক্রমোন্নতির কথা জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এ চিকিৎসায় প্রাইভেট সেক্টরকে যুক্ত করা হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, করোনায় সম্মুখযোদ্ধাদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রণোদনার ঘোষণায় স্বাস্থ্যকর্মীসহ সকলের মধ্যে নতুন সাড়া জাগে। প্রধানমন্ত্রীর বলিষ্ট নেতৃত্বের কারণে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত আছে। অন্যান্য দেশে প্রবৃদ্ধির হার শূন্যের কোটায় নেমে এলেও বাংলাদেশে তা ৫ ভাগে রয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে করোনায় গত নয় মাসে দেশে আট হাজার মানুষ মারা গেছেন। তবে কোনো মৃত্যুই কাম্য নয়। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে সোয়া চার লাখ, ব্রাজিলে সোয়া দুই লাখ ও ভারতে দেড় লাখের অধিক মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত ও সঠিক পরিকল্পনার কারণে বাংলাদেশে মৃত্যু ও সংক্রমণের হার কম। 

এর পর বক্তব্য প্রদান শেষে টিকাদান কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম টিকা নেন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা। এ সময় চিকিৎসক, পুলিশ ও সেনাবাহিনীসহ পর্যায়ক্রমে আরও ২৯ সম্মুখযোদ্ধার দেহে করোনার টিকা প্রয়োগ করা হয়।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : করোনার টিকা
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি