২৪ জানুয়ারী, ২০২১ ০৬:৩৮ পিএম

অ্যান্টিবডি পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে সরকার

অ্যান্টিবডি পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে সরকার

মেডিভয়েস রিপোর্ট: দেহে করোনা প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি শনাক্তে কিটের মাধ্যমে অ্যান্টিবডি পরীক্ষার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

আজ রোববার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে অ্যান্টিবডি পরীক্ষার জন্য অনেকের দাবি ছিল। আজ থেকে অ্যান্টিবডি পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এখন আপনাদের সামনে বললাম তখন থেকেই অনুমোদন দেওয়া হয়ে গেল।’

অ্যান্টিবডি টেস্টে কিটের ব্যবহার এবং মজুদের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বাজারে কী পরিমাণ অ্যান্টিবডি টেস্ট কিট আছে, এই পরিসংখ্যান আমি দিতে পারব না। যার প্রয়োজন হবে কিট নিয়ে আসবে। বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এই কিট আমদানি করতে পারবে। পরীক্ষার জন্য বিভিন্ন হাসপাতাল এটা নিতে পারবে। এটার মধ্যে কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়নি।’

এ সময় করোনা ভ্যাকসিনের বিষয়ে গুজব না ছড়ানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের পার্শপ্রতিক্রিয়া খুব কম। এই ভ্যাকসিন নিলে জ্বর মাথাব্যাথা হতে পারে। তবুও কারো গুরুতর কোনো সমস্যা হয় তবে সরকার সেক্ষেত্রে চিকিৎসা দেবে। ওষুধ ও সব ভ্যাকসিনেই কম বেশি পার্শপ্রতিক্রয়া থাকে। এটা জীবন রক্ষাকারী ওষুধ। এ নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত না করার জন্য সকলকে আহ্বান জানান জাহিদ মালেক।

প্রসঙ্গত, করোনা অ্যান্টিবডি হচ্ছে ছোট ইমিউনোগ্লোব্যুলিন (immunoglobulin বা ig) প্রোটিন, যা যেকোনো ইনফেকশন প্রতিরোধে শরীরে তৈরি হয়। করোনা ঢুকলে শরীর এই অ্যান্টিবডি তৈরি করে পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যে। কারো দেহে অ্যান্টিবডি তৈরি হওয়া মানে তাঁর দেহ করোনার সংক্রমন প্রতিরোধে সক্ষম।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি