১৮ মে, ২০২০ ১০:৫৪ পিএম

করোনার উৎস কোথায়, নিরপেক্ষ তদন্ত চায় শতাধিক দেশ

করোনার উৎস কোথায়, নিরপেক্ষ তদন্ত চায় শতাধিক দেশ

মেডিভয়েস ডেস্ক: মরণব্যাধী করোনাভাইরাসের উৎস এবং এর বিস্তার সম্পর্কে জানতে নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করছে শতাধিক দেশ। সোমবার জেনেভায় শুরু হওয়া ৭৩তম ওয়ার্ল্ড হেলথ অ্যাসেম্বলিতে এ দাবি উত্থাপনের বিষয়ে আলোচনা চলছে। এটি ছড়িয়ে পড়ার আগে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল কি না তা নিয়ে সরগরম আলোচনা শুরু হচ্ছে। অবশ্য আগে থেকেই চীনের দিকে অভিযোগের তির তাক করে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এবারে শুধু করোনাভাইরাস নিয়ে আলোচনার জন্য দুই দিনের ভার্চ্যুয়াল অধিবেশন হচ্ছে, যা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইতিহাসে প্রথম। ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ আয়োজন বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, যেখানে এবার গুরুত্বপূর্ণ অনেক সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

আল জাজিরা জানিয়েছে, আফ্রিকার ৫০টি দেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের সব সদস্যসহ শতাধিক দেশ করোনা মহামারি সম্পর্কে স্বাধীন তদন্তের একটি প্রস্তাবকে সমর্থন করছে।

অস্ট্রেলিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্রেগ হান্ট সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দিনের শুরুর দিকেই প্রস্তাবটি অনুমোদন পাওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

অস্ট্রেলিয়ান টিভি নেটওয়ার্ক এবিসির খবরে বলা হয়েছে, কমপক্ষে ১১৬টি দেশ স্বাধীন তদন্তের দাবিতে খসড়া প্রস্তাবটির কো-স্পনসর হয়ে স্বাক্ষর করেছে। ব্রিটেন, কানাডা, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, নিউজিল্যান্ড ও রাশিয়া তাতে সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েছে।

করোনাভাইরাস নিয়ে এ তদন্তের বিষয়ে যদিও চীনের নাম উল্লেখ নেই, তবুও বেইজিংয়ের কর্মকর্তারা এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধের হুমকি দিয়েছেন। গত মাসে অস্ট্রেলিয়াই প্রথম এ মহামারি সারা বিশ্বে কীভাবে ছড়িয়েছে তা নিয়ে নিরপেক্ষ ও স্বাধীন তদন্তের আহ্বান জানিয়েছিল।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুষ্ঠানে তাইওয়ানকে পর্যবেক্ষক করার প্রস্তাবেও ক্ষুব্ধ চীন। দেশটির স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল তাইওয়ান করোনা নিয়ন্ত্রণে দারুণ সফলতা দেখানোয় তাদের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পর্যবেক্ষক করতে সম্মত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশিরভাগ সদস্য। তবে বেইজিং এ সিদ্ধান্তের কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে। 

করোনা মহামারির কারণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইতিহাসে এবারই প্রথম বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে। সংস্থাটি জানিয়েছে, তাদের জন্য এবারের সম্মেলন অনেক গুরুত্বপূর্ণ। মহামারি নিয়ন্ত্রণ ও পরবর্তী করণীয় বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ অনেক সিদ্ধান্ত আসতে পারে এখান থেকে।

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলো মেনে চলুন। সর্দি কাশি জ্বর হলে হাসপাতালে না গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দানকারী হটলাইন গুলোতে ফোন করুন। আইইডিসিআর হটলাইন- 10655, email: [email protected]
  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত