১৭ জুলাই, ২০২৩ ১০:৩৫ এএম

৫০০০ টাকা বৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান, দুপুরে সংবাদ সম্মেলন

৫০০০ টাকা বৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান, দুপুরে সংবাদ সম্মেলন
ফাইল ছবি।

মেডিভয়েস রিপোর্ট: পাঁচ হাজার টাকা ভাতা বৃদ্ধির ঘোষণাকে হাস্যকর আখ্যা দিয়ে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন পোস্টগ্র্যাজুয়েট প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকরা। এ নিয়ে আজ সোমবার (১৭ জুলাই) জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে প্রেস ব্রিফিং করবেন তারা।

পোস্ট গ্র্যাজুয়েট প্রাইভেট ট্রেইনি ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. জাবির হোসেন সকালে মেডিভয়েসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, ‘আমাদের ভাতা ৫ হাজার টাকা বাড়ানোর ঘোষণাটি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি। এই হাস্যকর বৃদ্ধি মানি না। আমরা আবারও আজ সোমবার (১৭ জুলাই) জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবো। সেখানে ভাতা বৃদ্ধি প্রত্যাখ্যান করে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।’

ডা. জাবির বলেন, ‘২০২০ সালেই এই ভাতা বৃদ্ধি করে ৩০ হাজার টাকা করা হয়, যা নিয়ে আপনারা (মেডিভয়েস) নিউজ করেছিলেন। ২০২০ সালে যা ৩০ হাজার করা হয়েছিল, ২০২৩ সালে এসে তা কীভাবে ২৫ হাজারে নেমে আসে। এটা চিকিৎসক সমাজের জন্য কতটা অপমানজনক, ভাবা যায়? এটা রীতিমত লজ্জার।’

আন্দোলনকারীদের দমিয়ে রাখতে কর্তৃপক্ষ সব ধরনের চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও এ সময় অভিযোগ করেন তিনি।

ট্রেইনি ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি বলেন, ‘গতকাল ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত পুলিশি লাঠিচার্জ এবং পুলিশ কর্তৃক মহিলা চিকিৎসকের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমাদের কর্মবিরতি এবং অবস্থান কর্মসূচি চলবে।’

ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে বেসরকারি পোস্টগ্র্যাজুয়েট প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল রোববার (১৬ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর বরাতে ৫ হাজার টাকা বৃদ্ধির তথ্য জানায় স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর।

এ সম্পর্কে গতকাল সন্ধ্যায় স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. টিটো মিঞা সন্ধ্যায় মেডিভয়েসকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ও বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্সের (বিসিপিএস) অধিভুক্ত ইনস্টিটিউটগুলোতে অধ্যয়নরত সকল প্রশিক্ষণার্থীদের ভাতাই বাড়ানো হয়েছে।’

জানতে চাইলে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে কিছুক্ষণ আগে এমন সিদ্ধান্ত এসেছে। আমরা সবাইকে এমনটি নিশ্চিত করছি।’

এ প্রসঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ মেডিভয়েসকে বলেন, ‘দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বিবেচনায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেসরকারি পোস্টগ্র্যাজুয়েট প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকদের ভাতা আপাতত পাঁচ হাজার টাকা বাড়িয়ে ২৫ হাজার টাকা করেছেন।’

গত ৮ জুন জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত গোল টেবিল বৈঠক ও সংবাদ সম্মেলন করে বেসরকারি পোস্টগ্রাজুয়েট প্রশিক্ষণার্থীরা। এতে ১২ জুনের মধ্যে দাবি-দাওয়া মেনে নেওয়ার সময় বেঁধে দেন তাঁরা। অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণার্থীরা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন, এ সময়ের মধ্যে দাবি না মানা হলে ১৩ জুন থেকে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে যাবেন তারা।

আলোচনায় পার্শ্ববর্তী দেশে পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্সে অধ্যয়নরত চিকিৎসকদের ভাতা পাওয়ার পরিমাণ তুলে ধরে বক্তারা বলেন, ‘ভারতে ৬৭ হাজার ৬৮৩ টাকা, পাকিস্তানে ৩৮ হাজার টাকা ভাতা দেওয়া হয়। আর আমাদের ভাতা ২০ হাজার টাকা, যা অমানবিক।’

অনুষ্ঠানে চিকিৎসকরা বলেন, ‘আমাদের এখন অসুস্থ রোগীদের পাশে থাকার কথা ছিল, কিন্তু নিরুপায় হয়ে মৌলিক অধিকার আদায়ে নামতে হয়েছে, যা দুঃখজনক।’

তবে ১১ জুন বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্সে (বিসিপিএস) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকদের বৈঠক হয়। সেখানে তাঁদের দাবি-দাওয়ার বিষয়ে ১৫ জুন সন্তোষজনক আলোচনার আশ্বাসে ১৩ জুন থেকে সারাদেশে কর্মবিরতিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত স্থগিত করে ট্রেইনি ডক্টরস এসোসিয়েশন।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত কোনো আশ্বাস বাস্তবায়ন না হওয়ায় গত ৮ জুলাই সকাল ১০ট থেকে রাজধানীর শহীদ মিনার এলাকায় অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট প্রাইভেট প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকরা। 

এর অংশ হিসেবে পর দিন ৯ জুলাই একই স্থানে তারা শুরু করেন গণঅনশন।

এর পর দিন দাবি-দাওয়া সম্বলিত স্মারকলিপি দিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যান তারা। আগে থেকে সময় নির্ধারিত না হওয়ায় সে দিন তাঁর সাক্ষাৎ পাননি বেসরকারি পোস্ট গ্র্যাজুয়েট প্রশিক্ষণার্থী চিকিৎসকরা।

তবে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ইমেরিটাস অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল্লাহর মধ্যস্ততায় ১০ জুলাই শাহবাগের পূর্ব ঘোষিত অবস্থান কর্মসূচি স্থগিত করেন তাঁরা। এর পর থেকে মাঠের কর্মসূচি তিন দিন স্থগিত ছিল।

ভাতা বৃদ্ধি: ফিরে দেখা

২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বিএসএমএমইউয়ের সিন্ডিকেট সভায় অধ্যয়নরত বেসরকারি রেসিডেন্টদের ভাতা বাড়িয়ে ৩০ হাজার টাকা করার বিষয়ে অনুমোদন দেয় সিন্ডিকেট মেম্বারগণ।

এর পর ওই বছরের ২১ সেপ্টেম্বর বিকেলে বিএসএমএমইউ রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান মেডিভয়েসকে বলেছিলেন, ‘বেসরকারি রেসিডেন্টদের মাসিক ভাতা ৩০ হাজার টাকা করার বিষয়টি সিন্ডিকেট মিটিংয়ে অনুমোদিত হয়েছে। তবে এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ কমিটিতে যাবে, সেখানেও পাস হওয়ার একটি বিষয় রয়েছে।’

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে আন্দোলন
দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস বিভিন্ন মেডিকেলের

বর্ধিত ভাতা পাচ্ছেন ৭ বেসরকারি মেডিকেলের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত