১৬ জুন, ২০২০ ০৫:৩৫ পিএম

করোনা: বিএসএমএমইউয়ের ফিভার ক্লিনিকে ১৮ হাজার ৪২৩ রোগীকে সেবা

করোনা: বিএসএমএমইউয়ের ফিভার ক্লিনিকে ১৮ হাজার ৪২৩ রোগীকে সেবা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ফিভার ক্লিনিকে ১৮ হাজার ৪২৩ জন রোগীকে সেবা দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেতার ভবনে স্থাপিত করোনা শনাক্তকরণ ল্যাবে মোট ২০ হাজার ৪২৩ রোগীর করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুন) বিকালে বিএসএমএমইউয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রশান্ত মজুমদার মেডিভয়েসকে এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, করোনাভাইরাসের ফলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গত ২১ মার্চ ফিভার ক্লিনিক চালু করা হয়। একইসঙ্গে গত ১ এপ্রিল একই ভবনে করোনাভাইরাস শনাক্তে পিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়। ওই পিসিআর ল্যাবে সোমবারের ৪৯৪ জনসহ ১৫ জুন পর্যন্ত মোট ২০ হাজার ৬৭৩ জন রোগীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরমধ্যে ২০ হাজার ৪২৩ জন রোগীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিভার ক্লিনিকে ১৮ হাজার ৪২৩ জন রোগীকে সেবা দেওয়া হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষার ফলাফল প্রতিদিন আইইডিসিআরকে পাঠানো হয়। রোগীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে (www.bsmmu.edu.bd) অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে ফিভার ক্লিনিক ও পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষার সেবা নিচ্ছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য সেবা কর্মসূচির কথা উল্লেখ করে বলা হয়,  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে রোগীদের সুবিধার্থে হেল্প লাইন, বিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দ্বারা পরিচালিত ‘বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন’ চালু করা হয়েছে। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বহির্বিভাগ ও জরুরি বিভাগের চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রয়েছে। 

এর আগে গত ৫ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া টেলিফোনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক পরামর্শ সেবা কেন্দ্র ‘বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন’ এর  উদ্বোধন করেন।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি