১৮ মে, ২০২০ ১১:৪৯ এএম

জামালপুরে চিকিৎসকসহ করোনা আক্রান্ত আরো ১১জন

জামালপুরে চিকিৎসকসহ করোনা আক্রান্ত আরো ১১জন

মেডিভয়েস রিপোর্ট: জামালপুরে চিকিৎসকসহ নতুন করে আরো ১১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২৭জন।

সোমবার (১৮ মে) সকালে জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, জামালপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১১জনের মধ্যে মেলান্দহ উপজেলায় পাঁচ জন, সদর উপজেলায় তিনজন, সরিষাবাড়ী উপজেলায় দুই জন ও বকশীগঞ্জ উপজেলায়  একজন রয়েছে।
মেলান্দহ উপজেলার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পাঁচজনের মধ্যে  আদিপৈত গ্রামের ৫৭ বছর বয়সী একজন পল্লী চিকিৎসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার একজন ওষুধ কোম্পানির মেডিকেল প্রমোশন কর্মকর্তা, সে মেলান্দহ উপজেলার নাগের পাড়া গ্রামে বসবাস করেন। অপরদিকে  নয়ানগর ইউনিয়নের দাগী কমিউনিটি ক্লিনিকের ৩৫ বছর বয়সী এক সিএইচসিপি। মেলান্দহ হাসপাতালের ২৮ বছর বয়সী চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারী। বন্ধরৌহা কমিউনিটি ক্লিনিকের নারী সিএইচসিপির সাত বছর বয়সী শিশু কন্যা রয়েছে।

জামালপুর সদর উপজেলার করানাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের এক সহকারী অধ্যাপক। শহরের কাচারীপাড়া ফকিরবাড়ি এলাকার বাসিন্দা মেডিকেল রোডের এক মোবাইল দোকানের ২৯ বছর বয়সী টেকনিশিয়ান। জামালপুরের সীমান্তবর্তী শেরপুরে বলাইয়ের চর গ্রামের বাসিন্দা ৪৩ বছর বয়সী এক পুলিশ সদস্য যিনি জামালপুর সদরে নমুনা জমা দিয়েছিলেন তার শরীরে করোনাভাইরাসের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। তিনি ঢাকায় কর্মরত রয়েছেন।

সরিষাবাড়ি উপজেলার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুই জনের মধ্যে সরিষাবাড়ি হাসপাতাল এলাকার প্রগ্রেসিভ ডেন্টাল কেয়ারের স্বত্বাধিকারী ৫৫ বছর বয়সী একজন। তার বাড়ি বলারদিয়ার গ্রামে। অপরজন ওই প্রতিষ্ঠানের ২৪ বছর বয়সী কর্মচারী। তার বাড়ি ধানাটা এলাকায়।

অপরদিকে বকশীগঞ্জ উপজেলার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত একজন ৬০বছর বয়সী  সারমারা ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের। জেলায় এ নিয়ে  আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২৭জন। তার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৬৩ জন, মারা গেছে তিনজন।

  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
দাফন করা যাবে পারিবারিক কবরস্থানে

মৃত দেহে তিন ঘণ্টা সক্রিয় থাকে করোনাভাইরাস

দাফন করা যাবে পারিবারিক কবরস্থানে

মৃত দেহে তিন ঘণ্টা সক্রিয় থাকে করোনাভাইরাস

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি