ডা. মো. আরমান হোসেন রনি

ডা. মো. আরমান হোসেন রনি

চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন, জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, শেরেবাংলা নগর, ঢাকা।


০৭ জানুয়ারী, ২০২৩ ১০:০৪ এএম

শীতে চোখের যত্ন

শীতে চোখের যত্ন
শরীরে পানির ঘাটতি চোখের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই চোখকে আর্দ্র রাখতে এ সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে হবে।

শীতকালে সাধারণত চুল ও ত্বকের যত্ন নেওয়া হয়। কিন্তু চুল, ত্বক ছাড়াও শীতে বিশেষভাবে চোখের যত্ন নেওয়া খুবই জরুরি। কারণ গবেষণার তথ্য মতে, অন্যান্য মৌসুমের তুলনায় শীতের মৌসুমে চোখের ক্ষতি হওয়া আশঙ্কা বেশি। এ সময় বাতাসে আর্দ্রতা কম থাকে বলে চোখ শুষ্ক হতে পারে ও দৃষ্টি শক্তি কমে যেতে পারে। তাই শুষ্ক চোখের সমস্যায় বাড়তি যত্ন নেওয়া দরকার।

সাধারণত শুষ্কতার কারণে চোখের সমস্যা হলে বিভিন্ন ধরনের অস্বস্তি ও জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া তীব্র আলো সহ্য করতে না পারা, ঝাপসা দেখা, লাল হওয়া কিংবা চোখের ভেতরে ও বাইরে পিচ্ছিল আঠালো পদার্থ তৈরি হতে পারে। তবে কয়েকটি জিনিস মাথায় রাখলে এই সমস্যা আর হবে না। যদি হয়েও যায়, তা থেকে স্বস্তি মিলতে পারে। জেনে নিন সেগুলো-

১. চোখ সবসময় পরিষ্কার রাখতে হবে। চোখে ধুলো-বালি জমতে দেওয়া যাবে না। বাইরে থেকে এসে ঠান্ডা পানিতে চোখ ধুয়ে ফেলতে হবে।

২. ঘনঘন চোখ ঘষা এড়িয়ে চলতে হবে। কারণ এটি আপনার চোখের লেন্স বা কর্নিয়ার ক্ষতি করতে পারে। শীতকালে এই সমস্যা বাড়তে পারে। তাই সতর্ক থাকতে হবে।

৩. শরীরে পানির ঘাটতি চোখের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই চোখকে আর্দ্র রাখতে এ সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করুন। আপনি চাইলে তরল স্যুপও খেতে পারেন।

৪. এ ছাড়া কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহার করলে শুষ্ক চোখে সমস্যা আরও বাড়তে পারে। তাই দিনে ৫ থেকে ৬ ঘণ্টার বেশি চোখে কন্টাক্ট লেন্স পড়া উচিত নয়।

৫. দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার বা ল্যাপটপের পর্দার দিকে তাকিয়ে থাকার ফলে চোখের ক্ষতি হবার আশঙ্কা বেশি থাকে। তাই ২০ মিনিট পরপর ২০ সেকেন্ডের জন্য ২০ ফুট দূরত্বের দিকে তাকাতে হবে।

৬. ওমেগা থ্রি সমৃদ্ধ খাবার চোখের জন্য খুবই উপকারী। কারণ এটি চোখে বেশি বেশি জলীয় পদার্থ তৈরি করে। এর ফলে চোখের শুষ্কতার প্রবণতা কমে যায়। সমুদ্রের তৈলাক্ত মাছে প্রচুর ওমেগা থ্রি পাওয়া যায়।

৭. শীতকালেও নিয়মিত সানগ্লাস ব্যবহার করতে হবে। এটির ব্যবহার শুধু গরমকালের জন্য নয়, শীতকালে এর গুরুত্ব অনেক বেশি। বিশেষজ্ঞদের মতে, ঠান্ডার দিনগুলোতে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি চোখের মারাত্মক ক্ষতিসাধন করতে পারে।

৮. ড্রাই আই-এর সমস্যা থাকলে চোখের ড্রপ ব্যবহার করতে হবে। তবে সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উত্তম।

৯. ঘরের ভেতর আর্দ্রতা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এয়ার হিউমিডিফাইয়ার ব্যবহার করতে হবে।

১০. ধূমপান শুষ্ক চোখের উপর সরাসরি প্রভাব ফেলে। দীর্ঘস্থায়ী ধূমপায়ীদের শুষ্ক চোখের প্রবণতা বেশি থাকে। এ জন্য চোখের সুরক্ষায় ধূমপান ছাড়তে হবে। 

এআইডি/এমইউ

 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে