অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক

অধ্যাপক ডা. মুজিবুল হক

স্কিন অ্যান্ড সেক্সুয়াল মেডিসিন স্পেশালিস্ট

এফসিপিএস, এফআরসিপি (যুক্তরাজ্য), ডিডিভি (অস্ট্রিয়া)

 


৩০ জুলাই, ২০২০ ১১:০০ এএম

স্বাস্থ্যে দুর্নীতি নির্মূল হলে আমলাদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবে মানুষ 

স্বাস্থ্যে দুর্নীতি নির্মূল হলে আমলাদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবে মানুষ 
ছবি: সংগৃহীত

বর্তমান স্বাস্থ্য খাতের দুর্নীতি নিয়ে জ্যেষ্ঠ আমলারা তদন্তে নামছেন। নিঃসন্দেহে তাঁদের অনেকেই দক্ষ ও সৎ। 

কেরানী আবজাল কোটিপতি! তার যে মেন্টর তাকে, ডাটে ফাটে ইমিগ্রেশন পার করিয়ে দিলো যে, সেই হলো মূল অপরাধী। সিনেমায় দেখা আসল বস যেনো দূর থেকে বাইনোকুলার দিয়ে দেখছে। দোষী সাব্ব্যস্ত কাউকে নির্বিঘ্নে ইমিগ্রেশন পার করানোর ক্ষমতা কার আছ?

অন্তত ডাক্তারের নাই। তা হলে আরও হাইআপ টি কিনি?

প্রথম কাজ হবে এটা উদঘাটন করা। দেখি হয় কিনা।

পাবনায় সিভিল সার্জনকে কাঁদানোর কেলেঙ্কারি মাছরাঙা টিভিতে দেখে ঘৃণায় অন্তরে নিজেও কাঁদি। আর বুঝি আসল দুর্বৃত্তরা কত শক্তিশালী।

যদিও এবারের একত্রিত চৌকস অতি শক্তিশালী। আমলারা প্রকৃত সততার সঙ্গে স্বাস্থ্যের দুর্নীতির শেকড় অনেকটা উপড়ে ফেলে, তবে শত শত মানুষ প্রকৃত শ্রদ্ধা দেখাবে অন্তর থেকে নিরব প্রার্থনা করে।

আর যেন মিঠুর মতো/তার লোকেরা আর সাস্থ্য মন্ত্রণলয়ের বারান্দায় বুক ফুলিয়ে হাটার সাহস না পায়। কেন পেতো?

তবেই জাতীর পিতার অদম্য কন্যা, আমাদের মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর প্রত্যাশাও পূরণ হবে।

এর পরপর বালিশ কেলেঙ্কারির দিকে একই রকম শক্তিশালী দলের আদ্যোপান্ত দুর্নীতি উৎঘাটন করতে না নামলে সরকারেরই বদনাম হবে। সত্য-মিথ্যার নানা গল্প ঘুরবে বাতাসে।

প্রাসঙ্গিক না হলেও একটি তথ্য উল্লেখ করি, ঢাকা মেডিকেলে এতো বছরে ৬০ হাজারেরও বেশি অস্ত্রোপচার হয়েছে। আদিকাল থেকে এই চরম দুর্নীতির দেশে একটি লোকও এজন্য কোনো ডাক্তারকে এক টাকা ঘুষ দিয়েছেন—কেউ বলতে পারবেন না?

বালিস কেলেঙ্কারির মতো আরো বহু ক্ষেত্র রয়েছে সেখানে শত হাজার কোটি টাকার অনিয়ম হয়েছে।

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের গচ্ছিত অর্থ অভাবনীয়ভাবে বাড়ছে। অথচ ভারতসহ বহুদেশের কমছে। 

সব গুরুত্বপূর্ণ খরচ আর অপচয় নিয়ে নিশ্চুপ সকলে, নিশ্চুপ আমার স্ত্রীর অনেক পছন্দের মিথিলা/ফারজানা। সত্যি কিছু করুন। মানুষের এখন চোখ খোলা।

বিবেকানন্দ বলেছিলেন ‘চালাকি দ্বারা মহত্ত অর্জন করা যায় না।’
 

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলো মেনে চলুন। সর্দি কাশি জ্বর হলে হাসপাতালে না গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দানকারী হটলাইন গুলোতে ফোন করুন। আইইডিসিআর হটলাইন- 10655, email: [email protected]
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত