২১ জুলাই, ২০২০ ০৩:১৭ পিএম

বিএসএমএমইউর করোনা ইউনিটে পাঁচ শতাধিক রোগীকে স্বাস্থ্য সেবা

বিএসএমএমইউর করোনা ইউনিটে পাঁচ শতাধিক রোগীকে  স্বাস্থ্য সেবা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নতুন চালু হওয়া করোনা সেন্টারে এ পর্যন্ত পাঁচ শতাধিক রোগীকে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়েছে। এ সময়ে ভর্তি হওয়া রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২৫ জন।   

আজ সোমবার (২১ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার মজুমদার স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে। 

এতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী চালু হওয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে বিএসএমএমইউর ৩৭০ শয্যার করোনা সেন্টারে আজ মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত পাঁচশ’ চারজন রোগী চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করেছেন এবং চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এ সময় পর্যন্ত ভর্তি হয়েছেন ৩১১ জন রোগী। আর ভর্তি হওয়া রোগীদের মধ্যে ১২৫ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। 

এছাড়া বিএসএমএমইউর করোনা সেন্টারের চিকিৎসাসেবা প্রদান ও রোগী ভর্তি কার্যক্রম ২৪ ঘণ্টাই চালু রয়েছে বলেও এতে উল্লেখ করা হয়েছে। 

গত ৪ জুলাই থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনা সেন্টারে রোগী ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়। করোনা শনাক্ত করার জন্য গতকাল সোমবার পর্যন্ত সেখানে ৩৪ হাজার ১৬৪ জন রোগীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। 

এর গত ১ এপ্রিল বেতার ভবনে করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরি চালু করা হয়। গত ২১ মার্চ বেতার ভবনে চালু হওয়া ফিভার ক্লিনিকে ২০ পর্যন্ত ২৮ হাজার ২৩৫ জন রোগীকে সেবা প্রদান করা হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিএসএমএমইউর উদ্যোগে বেতার ভবনের দ্বিতীয়তলায় স্থাপিত করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরিতে রোগীর নমুনা পরীক্ষার ফলাফল প্রতিদিন আইইডিসিআরকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে। রোগীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে (www.bsmmu.edu.bd) অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে ফিভার ক্লিনিক ও করোনাভাইরাস ল্যাবরেটরির সেবাসমূহ নিচ্ছেন। একই সঙ্গে বিএসএমএমইউর বহির্বিভাগে চিকিৎসাসেবা প্রদান অব্যাহত রয়েছে। 

রোগীদের সুবিধার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরিচালিত ‘বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন’ ইতোমধ্যে চালু করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইনের’ অংশ হিসেবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে প্রতিদিন রাত ৯টায় আর টিভিতে চোখ রাখতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া গত ৫ এপ্রিল টেলিফোনে বিশেষজ্ঞ পরামর্শ সেবা কেন্দ্র ‘বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইনের’ এই সময়োপযোগী সেবা কার্যক্রমটির শুভ উদ্বোধন করেন।
 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত