০৫ মে, ২০২০ ০২:০৫ পিএম

মৃত্যু ও আক্রান্তের রেকর্ডের দিনে মদে মাতলো ভারত

মৃত্যু ও আক্রান্তের রেকর্ডের দিনে মদে মাতলো ভারত

মেডিভয়েস ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ভারতে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ১৯৫ জনের। আক্রান্ত ৩ হাজার ৯০০ জন। এনিয়ে দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ হাজার ৪৩৩ জনে দাঁড়ালো। মোট মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৫৬৮ জনের।

এদিকে, দেশটি বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউন শিথিল করায় মদের দোকানগুলোতে সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করে উপচে পড়া ভিড় ও মদ নিয়ে দিনভর বিশৃঙ্খলা দেখো গেছে। অন্ধ্র প্রদেশে মদের দোকানের ভিড় সামলাতে লাঠি চালিয়েছে পুলিশ।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২ হাজার ৭২৭ জন। এতে সুস্থ হওয়ার হার ২৭ দশমিক ৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। করোনার বিস্তার ঠেকাতে দেশটিতে গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন শুরু হয়। এরপর পরবর্তী ধাপে বাড়ানো হয়। তবে ইতিমধ্যে দেশটি বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউন শিথিল করেছে। এরপরই দেশটিতে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত ও মৃতের খবর এলো।

এনডিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সোমবার দেশটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৫৭৩ জন, মৃত্যু হয় ৮৩ জনের। এর আগের দিন রবিবার আক্রান্ত হয়েছিল ২৪ শ' ৮৭ জন।

ডয়েচে ভেলে বাংলার এক প্রতিবেদনা বলা হয়েছে, সোমবার দিল্লিতে ১৫০টির মতো মদের দোকান খুলেছিলো। কিন্তু সেখানে এত ভিড় হয়েছিলো যে এক-দেড় ঘণ্টার মধ্যে তা বন্ধ করে দিতে হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কড়া নির্দেশ আছে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাশ্মীরি গেট এলাকায় একটি মদের দোকানের সামনে পুলিশ লাঠি চালিয়েছে। মদের দোকানের মালিকদের বলা হয়েছে, ভিড় নিয়ন্ত্রণ ও সামাজিক দূরত্বের ব্যবস্থা করে যেন মদ বিক্রি করা হয়।

জানা গেছে, শুধুমাত্র দিল্লিতেই ৮৫০টি মদের দোকান আছে। তার মধ্যে কিছু দোকান সরাসরি সরকার চালায়। পুলিশের নির্দেশিকা মেনে সরকারি মদ বিক্রির দোকান সকাল নয়টা থেকেই খুলে যাবে। সাড়ে ছয়টা পর্যন্ত তা খোলা থাকবে। এ খবর শুনে দিল্লির মদের দোকানের সামনে ছিলো ঠাসাঠাসি ভিড় এবং বিশাল লাইন লেগে যায়। কোনও কোনও জায়গায় দোকানের তিনটি কাউন্টার থেকে মদ বিক্রি করা হচ্ছিলো। প্রতিটি কাউন্টার থেকে লাইন এঁকেবেঁকে চলে গিয়েছিল কয়েক কিলোমিটার। একজনের গায়ের ওপরে অন্যজন দাঁড়িয়ে। ৪০ দিন ধরে লকডাউনে থাকার পর মদের জন্য করোনাকে আর পাত্তা দেননি মদ্যপায়ীরা। অবস্থা দেখে কিছুক্ষণের মধ্যেই দিল্লিতে মদের দোকান বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

উল্লেখ্য, দেশটিতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। প্রদেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৫৪১ জন। মারা গেছে ৫৮৩ জন।

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলো মেনে চলুন। সর্দি কাশি জ্বর হলে হাসপাতালে না গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দানকারী হটলাইন গুলোতে ফোন করুন। আইইডিসিআর হটলাইন- 10655, email: [email protected]
  ঘটনা প্রবাহ : করোনাভাইরাস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও
একদিনেই অবস্থান বদল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও