২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ০৭:২৬ পিএম

‘মন্ত্রণালয়ে ঝুলে আছে রেসিডেন্টদের ভাতা’

‘মন্ত্রণালয়ে ঝুলে আছে রেসিডেন্টদের ভাতা’
ছবি: সংগৃহীত

মুন্নাফ রশিদ: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ও এর অধিভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে অধ্যয়নরত বেসরকারি রেসিডেন্টদের ভাতা বৃদ্ধির অনুমোদনের ছয় মাস পার হতে চললেও এখনও তা হাতে পাননি এ কোর্সে অধ্যয়নরত চিকিৎসকরা। ডিপ্লোমা-এমফিল (নন-রেসিডেন্সি) কোর্সে অধ্যায়নরত চিকিৎসকদের ক্ষেত্রেও দেখা দিয়েছে একই জটিলতা।

ফলে অনেকটা হাতাশার মধ্যেই দিন কাটছে এসব কোর্সে অধ্যায়নরত চিকিৎসকদের। তারা বলছেন, ভাতা বৃদ্ধির বিষয়টি আমারদের মাঝে উদ্দিপনা সৃষ্টি করলেও এখন তা ম্লান হতে চলেছে। তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, এটি বাস্তবায়নের জন্য সকল কার্যক্রম শেষ। এখন শুধু মন্ত্রণলয় থেকে সবুজ সংকেতের অপেক্ষা।

গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বিএসএমএমইউয়ের সিন্ডিকেট সভায় অধ্যয়নরত বেসরকারি রেসিডেন্টদের ভাতা বাড়িয়ে ৩০ হাজার টাকা এবং ডিপ্লোমা-এমফিল (নন-রেসিডেন্সি) কোর্সে অধ্যয়নরত চিকিৎসকদের ভাতা ২০ হাজার টাকা কারার বিষয়ে অনুমোদন দেয় সিন্ডিকেট মেম্বারগণ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বেসরকারি রেসিডেন্ট চিকিৎসক মেডিভয়েসকে বলেন, ভাতা বৃদ্ধির বিষয়টি আমাদের গতি বাড়িয়ে দিয়েছিল। স্বাভাবিকভাবেই আমরা খুব আনন্দিত হয়েছিলাম। কেননা আমাদের মাঝে অনেকের উপরেই এখন পরিবারের দ্বায়িত্ব পড়েছে। তবে সবকিছুই যেন ম্লান হতে চলেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে আরও  একজন চিকিৎসক বলেন, প্রায় একবছর ধরে শুনছি যে, ভাতা বাড়বে। কিন্তু সিন্ডিকেট সভায় সিদ্ধান্ত হওয়ার ছয় মাস পার হতে চললো, এখনও কোনও বাস্তবায়ন দেখছি না। এখন সংশয় জাগে এটি আদৌ বাস্তবায়ন হবে কি না।

এটি বাস্তবায়ন না হলে হতাশার পাশাপাশি উচ্চশিক্ষার বিষয়ে চিকিৎসকদের যে আগ্রহ সেটিতেও ভাটা পড়তে পারে বলেও জানান ওই চিকিৎসক।

বিএসএমএমইউয়ের সিন্ডিকেট সভায় অধ্যয়নরত বেসরকারি রেসিডেন্ট ও ডিপ্লোমা-এমফিল (নন-রেসিডেন্সি) চিকিৎসকদের ভাতা বৃদ্ধির অনুমোদনের পর ২১ সেপ্টেম্বর বিকেলে বিএসএমএমইউ রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান মেডিভয়েসকে বলেছিলেন, বেসরকারি রেসিডেন্টদের মাসিক ভাতা ৩০ হাজার টাকা করার বিষয়টি সিন্ডিকেট মিটিংয়ে অনুমোদিত হয়েছে। তবে এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ কমিটিতে যাবে, সেখানেও পাস হওয়ার একটি বিষয় রয়েছে।

বেসরকারি রেসিডেন্ট এবং ডিপ্লোমা-এমফিল (নন-রেসিডেন্সি) কোর্সে অধ্যয়নরত চিকিৎসকদের বর্ধিত ভাতা কবে থেকে চালু হবে জানতে চাইলে বিএসএমএমইউ রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান মেডিভয়েসকে বলেন, এটি বাস্তবায়নের জন্য যে সকল অফিসিয়াল কার্যক্রম করা দরকার আমরা সেগুলো করেছি। এ সংক্রান্ত সকল কাগজপত্র প্রস্তুত করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে ইতোমধ্যে পাঠিয়েছি।

তিনি বলেন, বাস্তবায়নের সম্পূর্ণ বিষয়টি এখন মন্ত্রণালয়ের উপর নির্ভর করছে। মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি আসলেই এটি বাস্তবায়নে আর দেরি হবে। এখন শুধু মন্ত্রণালয় থেকে চিঠির অপেক্ষায়।

তবে কবে নাগাদ বর্ধিত ভাতা চালু হতে পারে সে বিষয়েও কোনও সুনির্দিষ্ট তারিখ উল্লেখ করেননি বিএসএমএমইউ রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান।

বিষয়টি অধিকতর জানার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নানকে মোবেইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসের আগ পর্যন্ত পাঁচ বছরের রেসিডেন্সি কোর্সে অধ্যয়নরত এসব সরকারি চিকিৎসক প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকা পারিতোষিক পেতেন। ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর গৃহীত সিদ্ধান্তের আলোকে তাঁদের ভাতা ২০ হাজার টাকা করা হয়। পরে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তা বৃদ্ধি করে ৩০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : বিএসএমএমইউ
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি