১৫ জুলাই, ২০২০ ০৫:৫৫ পিএম

করোনাকালে সকল প্রতারণার বিরুদ্ধে র‌্যাব তৎপর: ডিজি

করোনাকালে সকল প্রতারণার বিরুদ্ধে র‌্যাব তৎপর: ডিজি

মেডিভয়েস ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারী চলাকালে স্বাস্থ্যখাতসহ সকল ধরণের প্রতারণার বিরুদ্ধে আইনানগ ব্যবন্থা গ্রহণের জন্য র‌্যাব তৎপর রয়েছে বলে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাবে) মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন। এসময় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদের গ্রেফতারের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন তিনি। 

আজ বুধবার ( ১৫ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর উত্তরায় র‌্যাবের সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

র‌্যাবের ডিজি বলেন, করোনাকালে র‌্যাব যেখানে প্রতারণার তথ্য পাচ্ছে, সেখানেই গোয়েন্দা তথ্য অথবা বিভিন্ন সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে তারা অভিযান পরিচালনা করছেন। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তারা তৎপর রয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তাদের এ অভিযান চলমান থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও বলেন,‘আমাদের গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত আছে। যেখান থেকে আমরা তথ্য পাচ্ছি যাচাই-বাছাই করে ৬ তারিখের পরে ১২ তারিখও আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি। কিন্তু এটা তো একটি চলমান প্রক্রিয়া। যেখানেই আমরা সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্য পাচ্ছি সেখানেই ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

সাহেদের গ্রেফতারের বিষয়ে তিনি বলেন, তিনি বলেন, ‘পালিয়ে থাকার সময় আমরা তাকে ফলো করেছি, সব পয়েন্ট যদি আমরা জানতে পারতাম তাহলে তখনই তাকে ধরতে পারতাম। আমরা যখনই জানতে পেরেছি এবং তাকে পিনপয়েন্ট করতে পেরেছি তখনই তাকে আমরা গ্রেফতার করেছি।’

র‌্যাবের ডিজি আরও বলেন, তাকে গ্রেফতার করে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর ঢাকায় আনা হয়েছে। ঢাকায়ও তাকে নিয়ে র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করছে। এ সময় তার উত্তরার বাসায় অভিযান চালিয়ে ১ লাখ ৪৬ হাজার টাকা মূল্যের জাল নোট উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। 

এ সময় ছয় মাস পরই আবার বেরিয়ে আসবে এ ধরনের কথা সাহেদ বলেছেন কিনা  জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা আমার ঠিক জানা নেই। অনেক কথা বলেছেন, যেটা আমরা তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে বলতে চাচ্ছি না। তদন্তের স্বার্থে কথাগুলো না বলাই শ্রেয় মনে করছি।’

প্রসঙ্গত, রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালে গত ৬ জুলাই র‌্যাবের ভ্রম্যমাণ আদালত অভিযান চালায়। এতে হাসপতালটির বিরুদ্ধে ভুয়া করোনা পরীক্ষাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। এরপর থেকেই পলাতক ছিলেন হাসপাতালটির মালিক মো. সাহেদ। আজ অর্থ আত্মসাতসহ প্রতারণার অভিযোগে রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। 

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলো মেনে চলুন। সর্দি কাশি জ্বর হলে হাসপাতালে না গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা দানকারী হটলাইন গুলোতে ফোন করুন। আইইডিসিআর হটলাইন- 10655, email: [email protected]
  ঘটনা প্রবাহ : রিজেন্ট হাসপাতাল
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি