০৩ মে, ২০২১ ১০:৪৭ এএম

এক সপ্তাহ পেছাচ্ছে ৪৩তম বিসিএসের প্রিলি

এক সপ্তাহ পেছাচ্ছে ৪৩তম বিসিএসের প্রিলি
ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: আগামী ১৫ অক্টোবর হচ্ছে না ৪৩তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। ওই দিন হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বিজয়া দশমীর আয়োজন থাকায় পরীক্ষা এক সপ্তাহ পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। 

পিএসসি সূত্র জানিয়েছে, আগামী ১৫ অক্টোবর হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বিজয়া দশমী অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণের সময় বিষয়টি চোখ এড়িয়ে গেছে। তাই পিএসসি ওই দিনের পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কমিশনের সভা শেষে এই তারিখ পুনর্নির্ধারণ করা হবে।

৪৩তম বিসিএস আবেদনের সময় ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। পরে আবার তা দুই মাস বাড়িয়ে দেওয়া হয়। সে অনুসারে মে মাসের শেষ দিন পর্যন্ত প্রার্থীরা এতে আবেদনের সুযোগ পাবেন।

প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষা ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ৪৩তম বিসিএস পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে সরকারি কর্ম কমিশনকে (পিএসসি) চিঠি দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের চূড়ান্ত (সেমিস্টার) পরীক্ষা নির্ধারিত সময়ে নেওয়া সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় পরীক্ষা সময়মতো না হওয়ায় ৪৩তম বিসিএসে আবেদন করা নিয়ে অনেক শিক্ষার্থীর অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। সেই সময় ৪৩তম বিসিএস পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা বাড়াতে পিএসসিকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দিয়েছিল ইউজিসি।

গত ১৩ ডিসেম্বর ইউজিসি চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের এক সভায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় স্নাতক পরীক্ষা শুরু হয়, যদিও করোনার নতুন ধাক্কায় তা ফের বন্ধ হয়ে গেছে। 

ওই সভায় বিসিএস পরীক্ষার আবেদনের সময় বৃদ্ধির ব্যাপারে উপাচার্যদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে পদক্ষেপ নেয় ইউজিসি। এরপরই ৪৩তম বিসিএস পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা দুই মাস বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে পিএসসিকে চিঠি দিয়েছিল ইউজিসি। আবেদনের সময় ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। পরে আরও দুই মাস বাড়ানো হয় এই আবেদনের সময়সীমা। 

প্রসঙ্গত, গত ৩০ নভেম্বর ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। এ বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে এক হাজার ৮১৪ জন কর্মকর্তা নেওয়া হবে। তাদের মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারে ৩০০ জন, পুলিশ ক্যাডারে ১০০, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২৫, শিক্ষা ক্যাডারে ৮৪৩, অডিটে ৩৫, তথ্যে ২২, ট্যাক্সে ১৯, কাস্টমসে ১৪, সমবায়ে ১৯ জন, স্বাস্থ্যে (সহকারী ডেন্টাল সার্জন) ৭৫ জন ও পরিবার পরিকল্পনায় ৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : ৪৩তম বিসিএস
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত