০৮ অগাস্ট, ২০২০ ০৮:৫৪ পিএম

ঘুষের জন্য হাসপাতালের নিবন্ধন হয় না: ডা. জাফরুল্লাহ

ঘুষের জন্য হাসপাতালের নিবন্ধন হয় না: ডা. জাফরুল্লাহ

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বেসরকারি হাসপাতালগুলোর নিবন্ধন না থাকার জন্য সরকারি নীতিমালা ও দুর্নীতিকে দায়ী করে গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাষ্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরি বলেছেন, ঘুষ দিতে না পারা এবং এ সংক্রান্ত সরকারি কিছু নীতিমালা এতই অযৌক্তিক যে গণস্বাস্থেরও নিবন্ধন নেই।

আজ শনিবার (৮ আগস্ট) দুপুরে গণমাধ্যমকে দেওয়া এক স্বাক্ষাৎকারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নানা অনিয়ম নিয়ে আলোচনা কালে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরি বলেন, হাসপাতালগুলোর নিবন্ধনে সরকারের যে নীতিমালা আছে, সেটা এতো বেশি অযৌক্তিক যে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালেরও নিবন্ধন নেই। এই নিবন্ধনের বিষয়ে সরকারের যে নীতিমালা আছে, সে নিয়ম পালন করতে গেলে শতকরা ৮০ ভাগ হাসপাতালই নিবন্ধন পাবে না। এ নিয়মে মানলে ঢাকার বাইরের অনেক মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কখনোই নিবন্ধান পাবে না বলেও মন্তব্য করেন এই প্রবীণ চিকিৎসক।

তিনি আরও বলেন, গণস্বাস্থ্যের মতো একটা হাসপাতালের যদি নিবন্ধন না থাকে, তাহলে বোঝা উচিত কোথাও একটা গন্ডগোল রয়েছে। এতে হয় গণস্বাস্থ্য হাসপাতালের দোষ রয়েছে, নয়তো সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নীতিমালায় ত্রুটি রয়েছে। 

এর আগেও এ বিষয়ে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন উল্লেখ করে ডা. চৌধুরি বলেন, কিছুদিন আগে এক লেখায় হাসপাতালগুলোর নিবন্ধন না থাকার কারণ বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরেছি। এ সংক্রান্ত সমস্যার বিস্তারিত তুলে ধরে একটি লেখা প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানো হয়েছে। এ সময় ঘুষ দিতে না পারায় তার প্রতিষ্ঠানেরও নিবন্ধন হয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত, রিজেন্ট হাসপাতালের প্রতারণা ও অনিয়মের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে গেলে দেখা যায় হাসপাতালটির নিবন্ধনের মেয়াদ শেষ হয়েছে বহুআগে। এরপর থেকে বেসরকারি হাসপাতালগুলোর নিবন্ধনের বিষয়টি সামনে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ২৩ আগস্টের মধ্যে সকল হাসপাতালকে নিবন্ধনের জন্য সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে, অন্যথায় হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। 

মেডিভয়েস এর জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্ট গুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি