২২ অক্টোবর, ২০২০ ০৮:৪৪ পিএম

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত

জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় আক্রান্ত
জার্মান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েনস স্পান। ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গে ইউরোপের কয়েক দেশে সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েনস স্পান।

৪০ বছর বয়স্ক ইয়েনস স্পান গতকাল বুধবার চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলসহ মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে সন্ধ্যায় তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর থেকেই বাড়িতে অবস্থান করছেন তিনি। পাশাপাশি গতকালের বৈঠকে থাকা সব মন্ত্রী এখন দ্রুত করোনা পরীক্ষা করছেন।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ হাজার ৩০০ ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, যা দেশটির জন্য রেকর্ড। জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল দেশের জনগণকে প্রয়োজন ছাড়া ভ্রমণ না করতে ও সবাইকে মাস্ক পরার অনুরোধ করেছেন।

এদিকে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো ও যুক্তরাজ্যে গত মঙ্গলবার পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ লাখের বেশি মানুষ। মারা গেছেন ২ লাখ ৩৪ হাজার জন।

নতুনভাবে সংক্রমণের হার আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ার খবর দিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো বলেছে, কোনো কোনো দেশে এই সংক্রমণের হার গত মার্চ, এপ্রিলের চেয়ে অনেক বেশি। 

তবে করোনায় পর্যুদস্ত ইউরোপের বিভিন্ন দেশ অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে পুরোপুরি লকডাউনে না গিয়ে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে বিভিন্ন দেশ কঠোর পদক্ষেপ নিচ্ছে।

আগামীকাল শুক্রবার থেকে ইতালির রাজধানী রোম, লাজিও, লোম্বার্ডি ও ক্যাম্পপানিইন অঞ্চলে এক মাসের জন্য রাতে কারফিউ জারি করা হচ্ছে। গতকাল বুধবার ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ১২৭ জন। আর সংক্রমিত হয়েছেন ১৫ হাজার ২০০ জন।

সংক্রমণের হার বাড়ার কারণে ইতালির হাসপাতালগুলো সাধারণ রোগী নেওয়া বন্ধ করে দিচ্ছে। ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ্পে কন্তে রোমের সিনেটে এক ভাষণে জনগণকে অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

স্পেনের আরাগন, লা রিয়োখা, কাস্তালিয়ান ও লেয়ন প্রদেশে সংক্রমণের হার উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। এই প্রদেশগুলোর বড় বড় শহর সারাগোসা, হোয়েস্কা, ট্রেয়লের জনগণকে কোনো জরুরি প্রয়োজন ছাড়া শহর ছাড়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। স্পেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালভাদর ইলা করোনায় সংক্রমণের হার বেশি, এমন প্রদেশগুলোতে কারফিউ দেওয়ার বিষয়ে বিবেচনা করছে।

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গত শনিবার থেকে ফ্রান্সে কার্যকর হওয়া জরুরি আইন ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। 

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে কারফিউ থাকতে পারে। ইতিমধ্যে প্যারিস শহরে রাত নয়টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ হাজার ৫৫০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

বেলজিয়ামে করোনার সংক্রমণ কমাতে রাত আটটার মধ্যে সব রেস্টুরেন্ট, বার বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। দেশটিতে প্রতিদিন প্রায় আট হাজারের বেশি মানুষ সংক্রমিত হচ্ছেন।

যুক্তরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ব্রিটিশ সরকারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত দেশটিতে ৭ লাখ ৮৯ হাজার ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন আর ৪৪ হাজার মানুষ মারা গেছেন।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও
একদিনেই অবস্থান বদল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও