০৮ অগাস্ট, ২০২০ ০৫:২৫ পিএম

বঙ্গবন্ধুর সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবনের নেপথ্যে প্রধান শক্তি বঙ্গমাতা: বিএসএমএমইউ ভিসি

বঙ্গবন্ধুর সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবনের নেপথ্যে প্রধান শক্তি বঙ্গমাতা: বিএসএমএমইউ ভিসি
ছবি: মো. আরিফ খান

মেডিভয়েস রিপোর্ট: বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিববুর রহমানের সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবনের অন্যন্য সাধারণ সাফল্যের নেপেথ্যে রয়েছে তার সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের সমর্থন ও নিঃস্বার্থ সহযোগিতা।

আজ শনিবার (৮ আগস্ট) সকালে রাজধানীর বনানীতে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার কবরস্থানে পুষ্পস্তবক অপর্ণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিববুর রহমানের সুদীর্ঘ সংগ্রামী জীবনের অন্যন্য সাধারণ সাফল্যের নেপেথ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের সমর্থন ও নিঃস্বার্থপর সহযোগিতা। আমি করে করি, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা অর্জনসহ সকল অজর্ণের নেপেথ্যে প্রধান শক্তি হিসেবে কাজ করেছে বঙ্গমাতার ত্যাগ, ধৈর্য্য ও জীবন সঙ্গিনী হিসেবে বঙ্গমাতার আজীবন ত্যাগী মানসিকতা হিসেবে বঙ্গবন্ধুকে সহযোগিতা করা ও সমর্থন দিয়ে যাওয়া। ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের সাথেও বঙ্গমাতার অসাধারণ অবদান রয়েছে।’

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গমাতার ভূমিকা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণ দেয়ার আগে বিষয়টি নিয়ে বঙ্গমাতার সাথে আলোচনা করেছিলেন। বঙ্গমাতার সহোযোগিতা পাওয়ার কারণেই বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবনে বড় বড় অর্জন সম্ভব হয়েছে। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর সাথে স্বপরিবারে নিজের জীবন দিয়ে আমাদের রক্ত ঋণে নিয়ে আবদ্ধ করে গেছেন।’

এছাড়াও নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য নিষ্ঠা ও সততার সাথে পালনের আহ্বান জানিয়ে ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, প্রত্যেকে নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য নিষ্ঠা ও সততার সাথে পালন করতে হবে। করোনার কারণে সৃষ্ট বিশ্ব মহামারীর এই দুঃসমেয় নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। এটাই হবে বঙ্গমাতার প্রতি আমাদের যথার্থ শ্রদ্ধা নিবেদন। 

এ সময় অধ্যাপক কনক কান্তির সাথে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশবিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সহকারী প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ডা.  কে এম তারিকুল ইসলাম প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ১৯৩০ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় সম্ভ্রান্ত শেখ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।

মেডিভয়েস এর জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্ট গুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা উপেক্ষা

অতিরিক্ত বেতন নিচ্ছে একাধিক বেসরকারি মেডিকেল

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি