০৭ জুন, ২০২৪ ০৩:২৮ পিএম

সলিমুল্লাহ মেডিকেলে বেসরকারি চিকিৎসকদের স্নাতকোত্তর প্রশিক্ষণের সুযোগ

সলিমুল্লাহ মেডিকেলে বেসরকারি চিকিৎসকদের স্নাতকোত্তর প্রশিক্ষণের সুযোগ
ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: আগামী ১ জুলাই থেকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শুরু হচ্ছে অবৈতনিক স্নাতকোত্তর প্রশিক্ষণ। এককালীন ভিত্তিতে ছয় মাসব্যাপী এই প্রশিক্ষণে এমবিবিএস ও বিডিএস পাসকৃত বেসরকারি চিকিৎসকরা আবেদন করতে পারবেন।

এজন্য প্রয়োজন হবে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের স্থায়ী রেজিস্ট্রেশন। আগ্রহী প্রার্থীদের মনোনয়নের জন্য আগামী ১২ জুনের মধ্যে আবেদন করতে বলা হয়েছে।

গত ২ জুন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাজহারুল ইসলাম খান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ‘স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল আগামী ১ জুলাই থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসের জন্য চিকিৎসা শাস্ত্রের বিভিন্ন বিষয়ে এমবিবিএস/বিডিএস পাসকৃত বেসরকারি ডাক্তারদের অবৈতনিক স্নাতকোত্তর প্রশিক্ষণে মনোনয়নের জন্য বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের স্থায়ী রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত চিকিৎসকদের নিকট হতে নির্ধারিত ফরমে আবেদনপত্র আহ্বান করা যাচ্ছে।’

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আবেদন ফরম আগামী ১২ জুনের মধ্যে জমা দিতে হবে। এ ছাড়া আগামী ২৫ জুন বেলা ১১টায় হাসপাতালের পরিচালকের অফিসকক্ষে সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হবে।

প্রশিক্ষণ সার্বক্ষণিক হবে উল্লেখ করে বলা হয়, এ সময়ে প্রশিক্ষণার্থীরা কোনো রোগীর ইনজুরি কিংবা ডেথ সার্টিফিকেট ইস্যু করতে পারবেন না। প্রশিক্ষণে অনুপস্থিত থাকলে প্রতি অনুপস্থিত দিনের জন্য তিন টাকা হারে জরিমানা আদায় করা হবে।

তবে প্রশিক্ষণার্থী ডাক্তাররা সরকারি চিকিৎসকের মতোই দায়িত্ব পালন করবেন। প্রশিক্ষণকালে তারা অন্য কোথাও চাকরি করতে পারবেন না। কেউ বাইরে চাকরি করলে তাদের সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে না। তা ছাড়া তাদের সরকারি বাসস্থান প্রদানের ব্যবস্থাও করা হবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, আগ্রহীরা একাধিক বিষয়ে আবেদন করতে পারবেন না। আবেদনপত্রের সাথে এসএসসি, ইন্টার্নি, এমবিবিএস বা বিডিএস ও বিএমডিসির রেজিস্ট্রেশনের সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি জমা দিতে হবে। অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্মরত থাকলে সেই প্রতিষ্ঠান প্রধানের অনুমতিপত্রের সত্যায়িত ফটোকপিও জমা দিতে হবে। আর বর্তমান প্রশিক্ষণার্থীদের পুনরায় প্রশিক্ষণে আগ্রহী হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের অধ্যাপকের সুপারিশ প্রয়োজন হবে। এ ছাড়া ৫০০ টাকার পে-অর্ডার (অফেরতযোগ্য) পরিচালকের অনুকূলে জমা রাখতে হবে।

►বিজ্ঞপ্তি দেখুন

এনএআর/

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  ঘটনা প্রবাহ : স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত