২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০২:৫৬ পিএম

‘বিশ্বে ১৩ লাখ রোগীর স্টেমসেল প্রতিস্থাপন’

‘বিশ্বে ১৩ লাখ রোগীর স্টেমসেল প্রতিস্থাপন’
দেশে এ পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে ১৫০টির বেশি স্টেমসেল প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

মেডিভয়েস রিপোর্ট: সারা পৃথিবীতে এ পর্যন্ত কমপক্ষে প্রায় ১৩ লাখ রোগীর স্টেমসেল প্রতিস্থাপন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) হেমাটোলজি বিভাগের চিকিৎসকরা।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিএসএমএমইউতে এক বৈজ্ঞানিক সেমিনারে এসব কথা বলেন তারা।

স্টেমসেল প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া দুই ধরনের জানিয়ে চিকিৎসকরা বলেন, ‘একটি হলো-এলোজেনিক স্টেমসেল প্রতিস্থাপন বা অন্যের স্টেমসেল রোগীর দেহে প্রতিস্থাপন। অন্যটি হলো-অটোলোগাস স্টেমসেল ট্রান্সপ্লান্টেশন বা রোগীর নিজের স্টেমসেল নিজের দেহে প্রতিস্থাপন। সারা পৃথিবীতে এ পর্যন্ত কমপক্ষে প্রায় ১৩ লাখ রোগীর স্টেমসেল প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। এর মধ্যে এলোজেনিক স্টেমসেল এর সংখ্যা এর প্রায় অর্ধেক। লিম্ফোমা, মায়েলোমা রোগীদের অনেকের কেমোথেরাপির পরে অটোলোগাস স্টেমসেল ট্রান্সপ্লান্টেশন এর প্রয়োজন হয়।’

একিউট লিউকেমিয়া, থ্যালাসেমিয়া, এপ্লাস্টিক এনিমিয়া বা বোন মেরো ফেইলোর এসব রোগে এবং লিম্ফোমা বা মায়েলোমা এর যে রোগীদের ক্ষেত্রে কেমোথেরাপি এবং অটোলোগাস স্টেমসেল ট্রান্সপ্লান্টেশন ব্যর্থ হয়, তাদের ক্ষেত্রে এলোজেনিক স্টেমসেল ট্রান্সপ্লান্টেশন করা হয়ে থাকে।

হেমাটোলজি বিভাগের চিকিৎসকরা বলেন, বাংলাদেশে এ পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে ১৫০ বেশি স্টেমসেল প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। যার সিংহভাগ অটোলোগাস স্টেমসেল। বিএসএমএমইউতে ২০১৮ সালে একটি অটোলোগাস স্টেমসেল প্রতিস্থাপন সফলভাবে করা হয়েছে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী বিশ্বে ২০১৬ সালে ৪৪ হাজারের বেশি অটোলোগাস স্টেমসেল প্রতিস্থাপন ও ৩৮ হাজারের বেশি এলোজেনিক স্টেমসেল প্রতিস্থাপন হয়েছে। উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপে প্রতি কোটি মানুষে যথাক্রমে ৩৩৪ ও ২৫৮ টি অটোলোগাস স্টেমসেল প্রতিস্থাপন এবং যথাক্রমে ২২৭ ও ১৮১টি এলোজেনিক স্টেমসেল প্রতিস্থাপন হয়েছিল।

চিকিৎসকরা জানান, রোগীর চিকিৎসার প্রয়োজনে স্টেমসেল বা বোন মেরো দিতে উৎসাহিত করা ও যারা স্টেমসেল দিয়ে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ জীবনের সুযোগ করে দিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতার উদ্দেশ্যে সারাবিশ্বে সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় শনিবার বিশ্ব স্টেমসেল (মেরো) দাতা দিবস পালন করা হয়। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও এ বছর ১৭ সেপ্টেম্বর পালিত হয়েছে বিশ্ব স্টেমসেল (মেরো) দাতা দিবস।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্রুত সব ধরনের স্টেমসেল ট্রান্সপ্লান্টেশন চালু ও যাবতীয় পর্যায়ে স্টেমসেল দাতাদের রেজিস্ট্রি তৈরির বিষয়ে সরকারি-বেসরকারি সব পর্যায়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন হেমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. সালাহউদ্দীন শাহ।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি