০৭ জুন, ২০১৮ ১১:৩৪ এএম

রোগীর কল্যাণে দরকার সচেতনতা

রোগীর কল্যাণে দরকার সচেতনতা

রোগীর ডায়াগনোসিসে DIC সিদ্ধান্ত নিলেন তাকে Plasma দিবেন। রোগীর ডোনার নেই, তাই ঠিক করা হলো Fresh frozen plasma দেওয়া হবে। লিখে দিলেন, রোগীর পার্টি অতি ধ্রুত মেনেজ করে ফেললো। দেখলেন বলতে গেলে বরফ নিয়ে আসছে। এক ব্যাগ কম্বলের মাঝে ঢুকালো সিস্টার আর বাকি ব্যাগ রোগীর লোক জামার ভিতরে দিয়ে গরম করতে থাকলো। বরফ গলা শেষ, মোটামুটি গরম ব্যাগ ট্রান্সফিউশন করে দিলেন। 

পরের দিন পরীক্ষা করে দেখলেন, ক্লিনিক্যালি এবং ল্যাব রিপোর্টে উন্নতি বলতে গেলে নেই যেটা কাম্য ছিল। আসুন জেনে নেই কোথায় ঘাটতি ছিল।

Fresh plasma না বলে একে Liquid plasma বলাই শ্রেয় যা ডোনার থেকে নিয়ে centrifuge করে তৈরি করে সাথে সাথে দিয়ে দেওয়া হয়।

Fresh frozen plasma(FFP) হলো ডোনার থেকে রক্ত নিয়ে centrifuge করে সাথে সাথে -18 এ রাখা হয়(তাপমাত্রার পার্থক্য হতে পারে যা নির্ভর করে আমরা কতদিনের জন্য রাখতে চাচ্ছি)। সাধারনত ৬ঘন্টা পর Factor 5 & 8 কমতে থাকে। তাই যত সম্ভব একে ফ্রিজে সংরক্ষণ করা উচিত।

আরেক ধরণের Plasma রয়েছে যার নাম P24FP যা মূলত whole blood থেকেই তৈরি হয় কালেকশনের ৮ঘন্টা পরে কিন্তু ২৪ঘন্টার আগেই।
যে প্রক্রিয়াই Frozen plasma তৈরি হোক না কেন, তা Thawing না করে দেওয়া যায় না। 

আর Thawing করতে হয় special waterbath অথবা FDA approved thawing machine এর মাধ্যমে। যার তাপমাত্রা থাকে 30-37c। Thawing করার পর Plasma কে 1-6degree C রাখতে হয় যতক্ষণ না Transfuse করা হয়। 

নতুবা Bacteria grow করার সমূহ সম্ভাবনা থাকে। আর Thawing যদি এই তাপমাত্রায় না করা হয় তবে coagulation factor ধ্রুত নষ্ট হয়ে যায়, যা কাজে লাগে না। তারমানে যে উদ্দেশ্যে দেওয়া হলো তা সফল হবে না।

রোগীর কল্যাণের স্বার্থে আমরা সচেতন হওয়ার চেষ্টা করি সর্বদা।

মেডিভয়েসকে বিশেষ সাক্ষাৎকারে পরিচালক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শতাধিক করোনা বেড ফাঁকা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে