যোবায়ের মাহমুদ

যোবায়ের মাহমুদ

শিক্ষার্থী, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ। 


০৩ মে, ২০১৮ ০৭:১৫ পিএম

নাইজেরিয়ার মৃত্যুদূতঃ কাশির সিরাপ !

নাইজেরিয়ার মৃত্যুদূতঃ কাশির সিরাপ !

 আমাদের দেশটা থেকে অনেক দুরের একটা দেশ আফ্রিকার নাইজেরিয়াতে যাদের কাশি হয়, আমরা কি জানি, তারা আসলে কি খায়? ট্যাবলেট? নাকি সিরাপ? নাকি অন্য কিছু?

ওখানকার বাচ্চারাও কি কাশি হলে মা বাবার কানের কাছে ঘ্যানঘ্যান করে? যখনই বলা হয়, আচ্ছা বাবা, তোমাকে একটা মিষ্টি সিরাপ এনে দিই?    তখনই তার মুখে হাসি ফুটে ওঠে। প্রবলবেগে মাথা উপর-নীচ করে জানায়, হ্যাঁ, হ্যাঁ, এক্ষুনি!

ছোট বেলায় কাশি হলে একটা কথা ভেবে আনন্দ লাগতো, আব্বু নিশ্চয়ই একটু পরে ফার্মেসী থেকে মিষ্টি একটা সিরাপ এনে দেবে! এমনিতে চিনি বা মিষ্টিজাতীয় কিছু খেতে চাইলে তো ভয় দেখায়, সবগুলো দাঁতে কালো কালো পোকা হবে। একদিন কোন দাঁতই থাকবে না!  কিন্তু কাশি হলে সব মাফ! এতদিন পরে সেইসব মিষ্টি সিরাপের নামতো এখন আর মনে নেই, কিন্তু সেই স্মৃতিগুলো কিভাবে ভুলি?

কিন্তু, সমস্যার কথা হচ্ছে, কিছু কিছু মিষ্টি সিরাপ খেলে মানুষের আনন্দ অনুভূতি হয়। মেডিকেল সাইন্সে এই জিনিসটাকেই বলা হয় ইউফোরিয়া। ফলশ্রুতিতে সে এই সিরাপ আরও বেশি করে খেতে চায়। এমনকি যখন তার আর দরকার নেই, তখনও!  প্রয়োজনের অনেক বেশি বেশি খেতে থাকলে, তার আনন্দানুভূতি আরো প্রবল হয়, আরো তীব্র হয়। একটা পর্যায়ে গিয়ে এটা নেশার মত হয়ে যায়, তখন চাইলেও এই চোরাবালি থেকে আর সরে আসা যায় না। এই মানুষগুলো পরবর্তীতে লিভার ড্যামেজ, কিডনী ড্যামেজ, খিচুনি এবং বিভিন্ন সাইকোলজিকাল সমস্যা যেমন, ডিল্যুশন, হ্যালুসিনেশন, এমনকি সিজোফ্রেনিয়াতেও ভোগে।

নাইজেরিয়ার রাস্তায়-রাস্তায়, স্কুলে, কলেজে, ইউনিভার্সিটিতে মুড়ি-মুড়কির মত পাওয়া যাচ্ছে কোডেইন সমৃদ্ধ কাশির সিরাপ। সম্প্রতি মাত্র একটি লরিতে অভিযান চালিয়েই পুলিশ ২৪০০০ বোতল কোডেইন সিরাপ উদ্ধার করেছে। নেশার এই কালো থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছে না শিশু, কিশোর, যুবক, বৃদ্ধ কেউই। ধর্মীয়ভাবে রক্ষণশীল নারী-পুরুষও আছেন এই কাতারে!  সম্প্রতি বিবিসির এক অনুসন্ধানী রিপোর্টে উঠে আসে এই কালো জগতের হালচাল। নাইজেরিয়ার সবচাইতে বড় ঔষধ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান Emzor এবং Bioraj এর কিছু অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজশে এইসব ওষুধ চলে আসে কালোবাজারীদের হাতে। তারপর হাতে হাতে পৌঁছে যায় গ্রাহকদের কাছে। নাইজেরিয়ার আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা কোনভাবেই কালোবাজারীদের থামাতে পারছিলেন না। বরং কোথাও কোথাও তারা সংঘবদ্ধ আক্রমণের শিকার হচ্ছিলেন।

বেশ কিছুদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এই মাদকাসক্তির রাহুগ্রাস নিয়ে কথা বলাবলি হলেও সরকার তেমন কড়া কোন পদক্ষেপ নেয়নি।বিবিসির আন্ডারকাভার রিপোর্টার Ruona Meyer এর ভাই এই সিরাপে আসক্ত হয়ে পড়ার পরেই মুলত তিনি খোজ নিতে শুরু করেছিলেন, কিভাবে এই সিরাপগুলো এত বেশী সহজলভ্য হয়ে পড়ছে। Sweet Sweet Codeine নামের ডকুমেন্টারীতে তিনি সিরাপের অবৈধ সরবরাহের পুরো প্রক্রিয়ার অনুসন্ধানী ভিডিও প্রকাশ করার পরেই নড়েচড়ে বসে সরকার। নাইজেরিয়ার ভেতরেই ২০টির মত কোম্পানি নিজেরা কাশির সিরাপ তৈরী করে, তবে কোডেইন বাইরে থেকে আমদানী করা হত। কোডেইনের আমদানী এবং কোডেইন সমৃদ্ধ কাশির সিরাপের উৎপাদন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।  দেশের ফার্স্ট লেডী আইশা বুহারি তার ইন্সটাগ্রামে বিবিসির রিপোর্টটি শেয়ার করে বলেন, আমি খুব উদ্বেগের সাথে দেশের উত্তরাংশে ছড়িয়ে পড়া এই ড্রাগ অ্যাবিউজের ব্যাপারটি খেয়াল করছি। আমার সন্তানের অভিভাবক হিসেবে আমিও উদ্বিগ্ন। এই অস্থিরতার লাগাম আমাদেরকেই টেনে ধরতে হবে। আমাদের সন্তানেরা যেন মাদকাসক্ত হয়ে না পড়ে, সেটা আমাদেরকেই নিশ্চিত করতে হবে

নাইজেরিয়ার পুনর্বাসনকেন্দ্রগুলোতে প্রতিনিয়তই অসংখ্য মাদকাসক্তকে ভর্তি করা হচ্ছে। পুনর্বাসনকেন্দ্রগুলোয় প্রয়োজনীয় সুবিধার অভাব থাকলেও রোগীর চাপ বাড়ছেই। এবং তারা যেন নিজেদেরকে অথবা অন্যদেরকে আঘাত না করতে পারে, এই কারণে অধিকাংশক্ষেত্রে তাদের পা বা হাত শিকল দিয়ে বেধে রাখতে হচ্ছে। কি দুঃসহ অবস্থা!

মাদকাসক্তি সমাজকে কখনোই গতিশীল হতে দেয় না, বরং  পেছন থেকে টেনে ধরে উন্নয়নের রথ। আমাদের প্রিয় বাংলাদেশে যেন এমন কোন অস্থিরতা জন্ম না নেয়, সে বিষয়ে আগে থেকেই আমাদেরকে সচেষ্ট হতে হবে।

 

মাদক ছেড়ে আঙ্গুল ভাঁজে, তুললে গোলাপ ফুল

জীবন হবে আলোক রাঙ্গা, ইচ্ছে দোদুল-দুল!

সুখের খেয়া ভাসবে আবার

জীবন নামের এই পারাবার

পূর্ণ হবে, পূর্ণ হবে, ভাঙবে সকল ভুল

  

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা উপেক্ষা

অতিরিক্ত বেতন নিচ্ছে একাধিক বেসরকারি মেডিকেল

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও
একদিনেই অবস্থান বদল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও