ঢাকা      মঙ্গলবার ২২, মে ২০১৮ - ৮, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ - হিজরী



ডা. রেজাউল করিম

চিকিৎসক, কলামিস্ট


ম্যালেরিয়া ঝুঁকিতে বসবাস করছে বিশ্বের ৩২০ কোটি মানুষ

এক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সারা বিশ্বে সচেতনতা তৈরী ও কার্যকর প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তোলার জন্য প্রতি বছর স্বাস্থ্য সম্পর্কিত মোট ৮ টি দিবস পালন করে থাকে তার মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস।

আজ ২৫ এপ্রিল বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস।

গোটা আফ্রিকা, ল্যাটিন আমেরিকা, এশিয়া ও ইউরোপের একাংশ জুড়ে বিস্তৃত বিশ্বের মোট ১০৬ দেশের প্রায় ৩২০ কোটি জনতা ম্যালেরিয়া ঝুঁকিতে বসবাস করছে।

গত বছর প্রায় ২১৬ মিলিয়ন লোক ম্যালেরিয়া আক্রান্ত হয়েছে যার মধ্যে প্রায় সাড়ে চার লাখ লোকের করুন মৃত্যু হয়েছে।

বাংলাদেশের পূর্ব ও উত্তর পূর্ব সীমান্তের প্রায় তেরটি জেলায় ম্যালেরিয়ার প্রকোপ বেশি দেখা যায় যার প্রায় ৮০ % তিন পার্বত্য জেলায় অবস্থিত।

WHO ম্যালেরিয়া জনিত এই মৃত্যুহার আগামী ২০২০ সালের মধ্যে শতকরা ৬০ ভাগ এবং ২০৩০ সালের মধ্যে শতকরা ৯০ ভাগে নামিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। এ বছরের বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে- “রেডি টু বিট ম্যালেরিয়া”

 

দুই: ম্যালারিয়া প্রাগৈতিহাসিক রোগ। খৃষ্টপূর্ব ২৭০০ সালেও ম্যালেরিয়া রোগের অস্তিত্বের প্রমাণ মিলেছে। ধারনা করা হচ্ছে মহামতি আলেকজান্ডার দ্য গ্রেট ম্যালেরিয়া রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ম্যালেরিয়া আক্রান্ত হয়ে প্রচুর সৈন্য মারা যায়।

ম্যালেরিয়া জীবাণুর আবিষ্কারক স্কটিস চিকিৎসক রোনাল্ড রস সাহেব ও ম্যালেরিয়া আক্রান্ত হয়ে মরতে বসেছিলেন।

বৃটিশ হেলথ সার্ভিসের এই চিকিৎসক ম্যালেরিয়া জীবানু আবিষ্কারের পুরো গবেষণাটি করেছিলেন উপমহাদেশের তৎকালীন কলিকাতাতে বসে। ১৮৯৪ সালে তিনি সফলভাবে স্ত্রী এনোফিলিস মশার লালা থেকে প্লাসমোডিয়াম জীবানু আলাদা করতে সমর্থ হন। এজন্য ১৯০২ সালে তাকে নোবেল পুরষ্কারে ভুষিত করা হয়। তার গবেষণায় একজন মুসলিম যুবক ভলানটিয়ার হিসেবে কাজ করেছিলেন তারও নোবেল পাওয়ার কথা ছিল কিন্তু অজ্ঞাত কারনে পরে তাকে বাদ দেয়া হয়।

১৯৪০ সালের আগে ক্লোরোকুইন আবিষ্কারের পূর্ব পর্যন্ত সিনকোনা বার্ক এর উপজাত কুইনাইন দিয়ে ম্যালেরিয়ার চিকিৎসা করা হতো। পরে ১৯৮০ সালে এসে ক্লোরোকুইন ও অকার্যকর হয়ে যায়। এখন আর্টিমিজিনিন উপজাত দিয়ে ম্যালেরিয়া চিকিৎসা করা হচ্ছে তা প্রাচীন চীনের হারবাল থেকে তৈরী।

এক সময় ম্যালেরিয়া জীবাণু প্লাসমোডিয়াম ভাইভেক্সকে মানুষের শরীরে প্রবেশ করানো হতো উচ্চ তাপ তৈরী করে টারসিয়ারী সিফিলিস প্রতিরোধ করার জন্য কিন্তু এটার মৃত্যু হার প্রায় ১৫% ছিল ফলে ১৯২৭ সালের দিকে এই প্রক্রিয়া বাতিল করা হয়।

১৯৭০ সালের আগে পর্যন্ত কীটনাশক DDT ব্যবহার করা হতো মশক নিধনের জন্য যা বেশ কার্যকরী ছিল। প্রবল স্বাস্থ্য সমস্যা তৈরী করে বিধায় এটার ব্যবহার বন্ধ করে দেয়া হয়। এর পর থেকে মশা নিয়ন্ত্রনের জন্য মশার প্রজনন স্থান ধ্বংসের উপর জোর দেয়া হচ্ছে যা মশা নিয়ন্ত্রনের জন্য যথেষ্ট নয়। এখন মশার কামড় থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে চলাই ম্যালেরিয়া থেকে বাঁচার একমাত্র উপায়।

 

তিন: ম্যালারিয়া জীবাণুর যে পাঁচটি প্রজাতি মানবদেহে রোগ তৈরী করে তার মধ্যে ভয়ংকরতম ঘাতক ফেলসিপেরামের মৃত্যূ ক্ষুধা এখনও থেমে নেই। জীবানুঘটিত সকল সংক্রামক ব্যাধি নিয়ন্ত্রন ও নির্মুল করা সম্ভব হলেও ম্যালারিয়া এবং টিবি এখনও পর্যন্ত কার্যকরী অর্থে নিয়ন্ত্রিত হয়নি।

নব্বই ও আশির দশকে এদেশে ম্যালেরিয়ার প্রবল রূপ ছিল যা প্রচুর মৃত্যুর কারণ হয়েছিল। ক্রমান্বয়ে শরীরে ম্যালেরিয়া বিরোধী প্রতিরোধ ব্যবস্থা তৈরী হওয়ায় এখন ম্যালেরিয়ার প্রাদুর্ভাব অনেক কমেছে।

এখনও পর্যন্ত ম্যালেরিয়ার কোন টিকা আবিষ্কার সম্ভব হয়নি, ভবিষ্যতেও তা সম্ভব হবে বলে মনে হয় না। ম্যালেরিয়া বিরোধী কার্যকর ঔষধ গুলোও বেশীদিন জীবাণু বিরোধী ক্ষমতা ধরে রাখতে পারে না, রেসিসটেন্স তৈরী হয়ে যায়।

তাই এ মুহুর্তে ম্যালেরিয়ার প্রজনন স্থান ধ্বংস করে তা কমিয়ে আনা, মশার কামড় এড়িয়ে চলা ও কার্যকর ম্যালেরিয়া বিরোধী ঔষধই মানুষকে এ রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিএসএমএমইউয়ে নাক ডাকা রোগীদের জন্য ঘুমের ল্যাবরেটরি

বিএসএমএমইউয়ে নাক ডাকা রোগীদের জন্য ঘুমের ল্যাবরেটরি

মেডিভয়েস রিপোর্ট: নাক ডাকলে বিছানার পাশের মানুষটির ঘুমাতে অসুবিধা হয়। এছাড়া নাক ডাকা…

রন্টজেনের এক্স-রে আবিষ্কারের ঘটনা ও নোবেল বিজয়

রন্টজেনের এক্স-রে আবিষ্কারের ঘটনা ও নোবেল বিজয়

১৮৯৫ সালের শীতকাল। নভেম্বর এর প্রথম সপ্তাহ শেষ হয়ে দ্বিতীয় সপ্তাহ শুরু…

বৃহত্তম কিডনি সেবা চালু করেছে গণস্বাস্থ্য ডায়ালাইসিস সেন্টার

বৃহত্তম কিডনি সেবা চালু করেছে গণস্বাস্থ্য ডায়ালাইসিস সেন্টার

মেডিভয়েস ডেস্ক: দেশের বৃহত্তম কিডনী সেবা কেন্দ্র "গণস্বাস্থ্য ডায়ালাইসিস সেন্টার"  ১ম বর্ষপূর্তি…

আমাদের প্রথম কলেজ দিবস

আমাদের প্রথম কলেজ দিবস

আজ থেকে ছাব্বিশ বছর আগের কথা। আমি তখন চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ছাত্র…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর