ঢাকা      মঙ্গলবার ২২, মে ২০১৮ - ৮, জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ - হিজরী



শুভ্র আসিফ

শিক্ষার্থী, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ


মেডিকেলের সিলেবাস

স্টুডেন্টদের জন্য বরাদ্দকৃত নরকে ওভারফ্লো দেখে সৃষ্টিকর্তা বেশ শংকিত হয়ে পড়লেন ৷ তাই তিনি ভাবলেন একটা লিখিত পরীক্ষা নিয়ে উত্তীর্ণদের স্বর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন ৷ যেই ভাবা সেই কাজ ৷ পরীক্ষার জন্য বিশাল সিলেবাসের এক কারিকুলাম তিনি প্রণয়ন করলেন ৷ সাধারণ স্টুডেন্টদের যেটা পড়তে সময় লাগে তিন মাস, সেখানে তিনি সময় দিলেন মাত্র তিন দিন ৷

এদিকে এই হঠাৎ পরীক্ষার খবরে স্টুডেন্ট নরকে বেশ হইচই পড়ে গেল ৷ যেহেতু নরক থেকে স্বর্গে ট্রান্সফার করার ব্যাপার স্যাপার , তাই সবাই খুব উঠে পড়ে লাগলো পরীক্ষার প্রিপারেশনের ব্যাপারে ৷ এর মধ্যে কিছু পুরান পাপী আবার খুঁজতে লাগলো দাদা নানার কোন কোটা আছে কি না , আবার কেউ বা খুঁজতে লাগলো প্রশ্ন ফাঁসের কোন লিংক পাওয়া যায় কি না ৷
কিন্তুু পুরো পরীক্ষার কন্ট্রোলার যেহেতু সৃষ্টিকর্তা নিজেই , তাই পরীক্ষায় কোন ফাঁক ফোকরের সুযোগ থাকলো না ৷

যথারীতি পরীক্ষার দিন উপস্থিত হলো ৷ দশটায় পরীক্ষা শুরু হবে ৷ এদিকে পরীক্ষার এক ঘণ্টা আগেও সবাই তুমুল গতিতে পড়ছে , কিন্তুু সিলেবাস তো আর শেষ হয় না ৷ রিভিশন তো দূরেই থাকলো ৷ কেউ গাছের ছালে বা চামড়ায় নকল তুলছে আর কেউ বা মাথায় হাত দিয়ে বসে আছে পড়া শেষ না করতে পারায় ৷ সবার মধ্যেই চরম উত্তেজনা বিরাজমান ৷

তবে এর মধ্যেও একটা গ্রুপকে দেখা গেলো একেবারে নিশ্চিন্ত ৷ তারা বেশ উৎফুল্ল ৷ কেউ হাসছে , একে অপরের সাথে কথা বলছে ৷ কেউ আরেকজনকে পড়া বুঝিয়ে দিচ্ছে ৷ কেউ আবার বিড়িতে সুখটান দিচ্ছে ৷

সেটা দেখে এক হতাশ স্টুডেন্ট সেই গ্রুপের একজনকে ধরে জিজ্ঞেস করলো ,

- কি ভাই ? আপনাদের কি মনে ভয় ডর নাই ? টেনশন নাই ? এতো বড় সিলেবাস ক্যামনে শেষ করলেন ?

উৎফুল্ল সেই ছাত্র উত্তরে বললো ,

- ভাইজান , পৃথিবীতে অবস্থানকালে আমরা মেডিকেল কলেজে পড়তাম ৷ এরকম সিলেবাসে পরীক্ষা দেয়ার অভ্যাস আমাদের অনেক আগে থেকেই আছে ৷

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


পাঠক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীর হাতে সরকারি হাসপাতাল জিম্মি

তৃতীয়-চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীর হাতে সরকারি হাসপাতাল জিম্মি

এক রোগীকে আমরা ছুটি দিলাম। সে যাবে না, বেড নাকি সে কিনেছে…

কারো পোস্টিং লন্ডন, কারো প্যারিসে! 

কারো পোস্টিং লন্ডন, কারো প্যারিসে! 

সরকারি চাকরির এক বছর পূর্ণ হল আজ! আমার অনুভূতিগুলো মিশ্র। ভাল লাগা…

প্রথম কর্মস্থলে যোগদানের গল্প 

প্রথম কর্মস্থলে যোগদানের গল্প 

সময়টা ১৯৮৮ সালের ২ জুলাই।  পোস্টিং অর্ডার হাতে পেয়ে কর্মস্থলে যাওয়ার পথ…

ভূড়িওয়ালা ডাক্তারদের কি পছন্দ হয় না?

ভূড়িওয়ালা ডাক্তারদের কি পছন্দ হয় না?

ইদানিং আউটডোরে দেখছি মায়েরা কোলের বাচ্চাটাকে নিয়ে এসে বসতে না বসতেই, কিছু…

কী করলে মেডিকেল আঙিনা স্বাগত জানাবে তোমাকে?

কী করলে মেডিকেল আঙিনা স্বাগত জানাবে তোমাকে?

ডাক্তার হয়ে মানুষের সেবা করায় ব্রত ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যাটা দিনদিন বেড়েই চলছে। কেননা…

চিকিৎসকরা প্রতিটি মুহূর্ত চ্যালেঞ্জ নিয়ে চিকিৎসা করেন

চিকিৎসকরা প্রতিটি মুহূর্ত চ্যালেঞ্জ নিয়ে চিকিৎসা করেন

স্যার, আমার মা কি ভালো হবে? কোন রিস্ক নাই তো?  রোগী জ্বর…



জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর