৩১ মার্চ, ২০১৮ ১১:৪২ পিএম

রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেবেন না: রাষ্ট্রপতি

  • রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেবেন না: রাষ্ট্রপতি
  • রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেবেন না: রাষ্ট্রপতি
  • রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেবেন না: রাষ্ট্রপতি
  • রোগীদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেবেন না: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি এম আবদুল হামিদ বিনা প্রয়োজনে মেডিকেল টেস্ট করার জন্য রোগীদের ব্যবস্থাপত্র না দিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, অনেক রোগীর চিকিৎসা ব্যয় বহন করার সামর্থ্য নেই। চিকিৎসার নামে অনেক রোগী হয়রানির শিকার হয়ে থাকেন। এক শ্রেণির চিকিৎসক বিনা প্রয়োজনে রোগীদের মেডিকেল টেস্ট করাতে দেন।

রাষ্ট্রপতি শনিবার বিকেলে নগরীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ চিকিৎসক সমিতি (এপিবি) আয়োজিত ২৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা এবং আন্তর্জাতিক সাইন্টিফিক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি চিকিৎসা পেশাকে একটি মহৎ পেশা হিসেবে উল্লেখ করে যথাযথ স্বাস্থ্যসেবা ও পেশার মান নিশ্চিত করতে মেডিকেল এথিক্স কোড মেনে চলতে চিকিৎসক ও সংশ্নিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি চিকিৎসাসেবা প্রদানের সময় রোগীর সক্ষমতা বিবেচনায় রাখতে চিকিৎসক ও সংশ্নিষ্ট অন্যদের প্রতি আহ্বান জানান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অনেক রোগী বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের অপ্রয়োজনীয় টেস্টের ব্যয়ভার বহন করতে সক্ষম নন।

রাষ্ট্রপতি গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন খবরের উল্লেখ করে বলেন, কিছু কিছু ঘটনায় দেখা যাচ্ছে, জনগণ চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসা অথবা তার চিকিৎসায় অবহেলার শিকার হচ্ছে। এতে চিকিৎসক এবং সংশ্নিষ্ট চিকিৎসা কেন্দ্রের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। তাই ভুল চিকিৎসার ব্যাপারে সতর্ক হতে হবে।

তিনি বলেন, চিকিৎসা ব্যবস্থা ও ওষুধ দিন দিন আধুনিকায়ন হচ্ছে। তিনি সর্বশেষ প্রযুক্তি ও আবিস্কার সম্পর্কে নিজেদের আরও বেশি জ্ঞানার্জনের জন্য চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশ ও অঞ্চল ভেদে রোগের ধরন ভিন্ন হওয়ার পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে রোগের ধরন পরিবর্তন হতে পারে। এসব বিষয় বিবেচনায় রেখেই মেডিকেল চিকিৎসা ও গবেষণা কার্য পরিচালনা করতে হবে।

রাষ্ট্রপতি স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, একজন রোগী হলেন হাসপাতালের অতিথি। এ জন্য রোগীদের বিশেষ যত্ন নিতে হবে, যেন কেউ আপনার আচরণে কষ্ট না পান। তিনি পেশাদারিত্ব মনোভাব নিয়ে কাজ করতে এবং সাধারণ জনগণকে স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদানে সবোর্চ্চ গুরুত্ব দিতে চিকিৎসকদের পরামর্শ দেন।

রাষ্ট্রপতি অনুষ্ঠানে চিকিৎসাসেবায় অসাধারণ অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে অধ্যাপক ডা. খাজা নিজাম উদ্দিন (মেডিসিন) এবং অধ্যাপক ডা. ফিরোজ আহমেদ কোরাইশিকে (নিউরো-মেডিসিন) স্বর্ণপদক প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

দাবি পেশাজীবী সংগঠনের, রিট পিটিশন দায়ের

‘বেসরকারি মেডিকেলের ৮২ ভাগের বোনাস ও ৬১ ভাগের বেতন হয়নি’

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি