ঢাকা      মঙ্গলবার ২৪, এপ্রিল ২০১৮ - ১১, বৈশাখ, ১৪২৫ - হিজরী

নেপালে বিমান দুর্ঘটনা

বাংলাদেশে ফেরত আসা সব রোগী ভালো আছেন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নেপালের কাঠমান্ডুতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় বাংলাদেশে ফেরত আসা সব রোগী ভালো আছেন। বললেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। 

গত রবিবার (১৮ মার্চ) দুপুরে সচিবালয়ের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। নেপালের কাঠমান্ডুতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা পরবর্তী সবশেষ পরিস্থিতি জানাতেই এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দুর্ঘটনায় আহত কয়েকজনকে দেশে আনা হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজের (ঢামেক) বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে একটি মেডিকেল টিম তাদের চিকিৎসা করছেন। বাংলাদেশে ফেরত আসা রোগী সবাই ভালো আছেন। তারা ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় ৫১ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে ২৬ জন বাংলাদেশি, ২৪ জন নেপালি, একজন চীনা নাগরিক। এ দুর্ঘটনার পর পরই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে মেডিকেল টিম গঠন করে আমরা নেপালে পাঠিয়েছি। তারা সেখানে কাজ করছে।

তিনি বলেন, আপনারা কেউ হাসপাতালে রোগীদের আশেপাশে ভিড় করবেন না। তারা মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন। তাদের অগ্রগতি সম্পর্কে আমরা টাইম টু টাইম ব্রিফ করবো।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ, বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন উপস্থিত ছিলেন।

স্বাস্থ্যসেবা সচিব আবুল কালাম আজাদ বলেন, এখন বাংলাদেশে ৫ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। তারা হলেন- শাহরিন আহমেদ মুমু (৩০), মেহেদী হাসান সুমন (২৯), সৈয়দা কামরুন নাহার স্বর্ণা (২২), আলমুন নাহার অ্যানি (২২ ) এবং রুবায়েত (৩২)। তারা সবাই ভালো আছেন।

তিনি বলেন, আহতদের মধ্যে দুইজন বাংলাদেশি নাগরিক এখন সিঙ্গাপুর আছেন। তারা হলেন ডা. রেজওয়ান ও ইমরানা কবীর।

আর ইয়াকুব আলী নামের একজনকে দিল্লির অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে। রোগীদের আত্মীয় স্বজনদের ইচ্ছায়ই তাদের বিদেশে নেয়া হচ্ছে।

সামন্ত লাল সেন বলেন, নেপাল থেকে বাংলাদেশে ফেরত আসা সব রোগী ভালো আছেন। তাদের অবস্থা এখন স্থিতিশীল আছে। এখন আহতদের যে অবস্থা মেডিকেলের ভাষায় তাকে স্টেবল বলে। আমরা কাউকে শঙ্কামুক্ত বলতে পারছি না।

তিনি বলেন, বিমান দুর্ঘটনায় আহত যে পাঁচজনকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে তাদের মধ্যে শাহরিনের অপারেশন করতে হবে। তার মানসিক অবস্থা আরেকটু স্থিতিশীল হলে অপারেশন করবো। এছাড়া মেহেদী হাসান ও তার স্ত্রী কামরুন নাহার স্বর্ণা, আলমুন নাহার অ্যানিসহ সবাই ভালো আছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

প্রথম সফল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করলো বিএসএমএমইউ

প্রথম সফল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করলো বিএসএমএমইউ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করে সুস্থ হয়ে ইফতে আরা বাড়ি…

অন্যরকম সরকারি হাসপাতাল

অন্যরকম সরকারি হাসপাতাল

সরকারি হাসপাতাল সম্পর্কে নেতিবাচক একটা ধারণা তৈরী হয়ে গেছে, যেভাবেই হোক। এর…

লাশ কেন হঠাৎ নড়ে উঠে?

লাশ কেন হঠাৎ নড়ে উঠে?

এক: তিন বছরের টুনটুন ছিলো বাবা মায়ের চোখের মনি। সারাদিন বাড়ির এ মাথা…

চলমান সকল নিয়োগে থাকছে কোটা

চলমান সকল নিয়োগে থাকছে কোটা

কোটা বাতিল হলেও সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে চলমান সব নিয়োগে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি বহাল…

ঢাবির হল থেকে ছাত্রীদের বের করে দেয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ

ঢাবির হল থেকে ছাত্রীদের বের করে দেয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুফিয়া কামাল হল থেকে মধ্যরাতে ছাত্রীদের বের করে দেয়ার প্রতিবাদে…

মানহীন মেডিকেল কলেজ বন্ধ করা যাচ্ছে না

মানহীন মেডিকেল কলেজ বন্ধ করা যাচ্ছে না

আমরা মানহীন মেডিকেল কলেজ বন্ধ করে দেয়ার পক্ষে। আর টাকার বিনিময়ে আইনজীবীরা আদালত থেকে…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর