০৪ মার্চ, ২০১৮ ০৯:৫৮ এএম

কিডনি রোগে আক্রান্ত হচ্ছে বেশির ভাগ নারী

কিডনি রোগে আক্রান্ত হচ্ছে বেশির ভাগ নারী

কিডনি রোগে তুলনামূলকভাবে পুরুষদের চেয়ে নারীরাই বেশী আক্রান্ত হয়। এছাড়া বাংলাদেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় কিডনি রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে নারীরা অনেক পিছিয়ে রয়েছে। গতকাল রাজধানীর ডেইলি স্টার সেন্টারে বিশ্ব কিডনি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, কিডনি রোগ বিশ্বব্যাপী একটি ভয়াবহ স্বাস্থ্য সমস্যা। প্রতি বছর কিডনি বিকল হয়ে বিশ্বের প্রায় ছয় লাখ নারী অকালে মৃত্যুবরণ করে । আর দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগে ১২ শতাংশ পুরুষ আক্রান্ত হলেও নারী আক্রান্ত হচ্ছে ১৪ শতাংশ। তুলনামূলকভাবে পুরুষদের চেয়ে নারীরাই বেশী স্বাস্থ্য সেবা পাওয়ার কথা অথচ চিকিৎসা গ্রহণের ক্ষেত্রে নারীরা অবহেলিত।

বৈঠকে প্যানেল আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, কিডনি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. হারুন অর রশিদ, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইউরোলজির প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. এমএ সালাম, বাংলাদেশ রেনাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. রফিকুল আলম, প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম, চলচ্চিত্র অভিনেতা ও মডেল ফেরদৌস আহমেদসহ আরো অনেকে।

‘বিশ্ব কিডনি দিবস ২০১৮’ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশের শীর্ষস্থানীয় কিডনিবিষয়ক বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কিডনি অ্যাওয়ারনেস মনিটরিং অ্যান্ড প্রিভেনশন সোসাইটি (ক্যাম্পস) এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।

কিডনি দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘কিডনি অ্যান্ড উইমেন হেলথ: ইনক্লুড, ভ্যালু, এমপাওয়ার’

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ক্যাম্পসের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি এবং ল্যাবএইড স্পেশালাইজড হাসপাতালের কিডনি বিভাগের চিফ কনসালট্যান্ট অধ্যাপক ডা. এমএ সামাদ। তিনি কিডনি রোগ প্রতিরোধ, প্রতিকার এবং কিডনি রোগ চিকিৎসায় নারীদের ক্ষেত্রে বৈষম্য দূরীকরণের উপায় নিয়ে আলোচনা করেন।

অধ্যাপক ডা. এমএ সামাদ বলেন, এ দেশে নারীরা সামাজিক প্রেক্ষাপটে প্রায় সব ক্ষেত্রে পিছিয়ে কিংবা অবহেলার শিকার। অনুৎপাদনশীলতা, গুরুত্বহীনতা, জড়তা, লোকলজ্জা, সহজাত লুকিয়ে রাখার প্রবণতার কারণে চিকিৎসাসেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে নারীরা এখনো সীমাহীন বৈষম্যের শিকার। বিশ্বজুড়ে ধনী-গরিব নির্বিশেষে চিকিৎসা সেবাপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে নারীর প্রতি অবহেলা স্পষ্টভাবে প্রতীয়মান।

বিএমএর সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বলেন, দেশের রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক শীর্ষ পদগুলোয় এখন নারীর উপস্থিতি অনেক বেশি। আমাদের মেধা, বুদ্ধি ও তারুণ্য আছে, যা কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যেতে পারব। তবে নারীর অগ্রাধিকার নিশ্চিত করতে সব মহল থেকে সাহায্য করতে হবে। 

কিডনি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. হারুন অর রশিদ বলেন, দেশে ব্যাপকসংখ্যক কিডনি রোগীর তুলনায় ডায়ালাইসিস সেন্টার খুবই কম, মাত্র ৯৬টি। এসব সেন্টারে ১৮ হাজার রোগী সপ্তাহে দুবার করে ডায়ালাইসিস নিতে পারে। বেসরকারি সেন্টারগুলোয় ৩ হাজার ৫০০ থেকে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত ডায়ালাইসিস ফি রাখা হয়, যা নিম্নবিত্ত এমনকি মধ্যবিত্তের জন্য বহন করা অসম্ভব। নারীদের কিডনি চিকিৎসায় বৈষম্য দূরীকরণে সরকারকে বিশেষ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

চলচ্চিত্র অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ বলেন, সমাজে নারীর বিষয়ে সুস্থ চিন্তাধারার অভাব রয়েছে। যদি সৃষ্টিশীল চেতনা এবং প্রবণতা থাকে তাহলে বড় সমস্যাও ছোট উদ্যোগের মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব। কিডনি বিষয়ে এবং নারীর স্বাস্থ্যসচেতনতা তৈরি করতে বিষয়ভিত্তিক নাটক, এমনকি সিনেমা নির্মান করে হলেও বার্তাগুলো পৌঁছাতে হবে।

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি