ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬,    আপডেট ৪৩ মিনিট আগে
২২ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:৪৭

দ্বিগুণ হলো বেসরকারি রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের মাসিক ভাতা, পরিবহন সার্ভিস-এর শুভ উদ্বোধন

দ্বিগুণ হলো বেসরকারি রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের মাসিক ভাতা, পরিবহন সার্ভিস-এর শুভ উদ্বোধন

দ্বিগুণ হলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত রেসিডেন্সী কোর্সের বিভিন্ন বিষয়ে অধ্যয়নরত বেসরকারি রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের মাসিক ভাতা। তাঁদের মাসিক সম্মানি ভাতা মাসিক ১০ হাজার থেকে বৃদ্ধি করে ২০ হাজার টাকায় উন্নীত করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৮২ জন রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রী, ১৯টি অধিভুক্ত মেডিক্যাল কলেজ ও ইনস্টিটিউট-এর ৮৭৯ রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রী বর্ধিতহারে ভাতা পাবেন।

সম্প্রতি (১৫ নভেম্বর ২০১৭) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অপ্রত্যাশিত ব্যয় ব্যবস্থাপনা খাত হতে ২০ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বরাদ্দ প্রদান করায় ১৯টি অধিভুক্ত মেডিক্যাল কলেজ ও ইনস্টিটিউট-এর ৮৭৯ জন রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীকে বর্ধিত হারে মাসিক ভাতা প্রদান করা সম্ভব হবে। চলতি বছরের জুলাই মাস থেকেই বর্ধিত হারের ভাতা রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের জন্য কার্যকর হবে। যা চিকিৎসায় উচ্চ শিক্ষায় ডিগ্রী অর্জনের অভিপ্রায়ে অধ্যয়নরত চিকিৎসক ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া ও সেবার প্রতি আরো মনোযোগী করে তুলবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৮২ জন রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রী বর্ধিতহারের মাসিক ভাতা ব্যয়ভার বহন করবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন। এদিকে আজ বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭ইং তারিখ, সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ব্লকের ২য় তলার অডিটোরিয়ামে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিডেন্ট (আবাসিক চিকিৎসক) ছাত্রছাত্রীদের পরিবহন সার্ভিস ও বেসরকারি রেসিডেন্টদের বর্ধিতহারে ভাতা প্রদান-এর শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে কয়েক হাজার চিকিৎসক ছাত্রছাত্রী অংশ নেন।

গুরুত্বপূর্ণ ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ এস এম জাকারিয়া স্বপন। সভাপতিত্ব করেন সম্মানিত কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া, ডেন্টাল অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. গাজী শামীম হাসান, নার্সিং অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. অসীম রঞ্জন বড়–য়া, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মোঃ হাবিবুর রহমান দুলাল, পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) জনাব আবদুস সোবহানসহ বিভিন্ন বিভাগের সম্মানিত চেয়ারম্যানবৃন্দ, সিনিয়র শিক্ষকবৃন্দ, রেসিডেন্ট চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান। 

অনুষ্ঠানে রেসিডেন্ট শিক্ষার্থীদের মাসিক পারিতোষিক দ্বিগুণ করার ঘোষণা দেয়ার পাশাপাশি রেসিডেন্টদের জন্য কয়েকটি বাস সার্ভিস-এর উদ্বোধন করেন মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। ঢাকা শহরের বিভিন্ন রুট থেকে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছাবে এবং বিকেল ৫টা ও রাত ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয় হতে বিভিন্ন রুটে চলাচল করবে। 

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেন, রেসিডেন্ট শিক্ষার্থীরা দিনরাত হাসপাতালে অবস্থান করে শিক্ষা ও চিকিৎসা কার্যক্রম চালান। কিন্তু তাদের ভাতার পরিমাণ কম হওয়ায় পড়াশোনায় সঠিকভাবে মনোনিবেশ করতে পারেন না। এ বিষয়টি বিবেচনা করেই রেসিডেন্টদের মাসিক ভাতা দ্বিগুণ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মাননীয় উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়া ও গবেষণা কার্যক্রমের প্রতি আরো মনোযোগী হওয়ার পাশাপশি দরদী মন নিয়ে রোগীর সেবায় আরো যত্নবান হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি আরো বলেন, ছাত্রছাত্রীদের সুবিধার কথা ভেবেই ও লেখাপড়ার সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টির জন্য ছাত্র শিক্ষক-কেন্দ্র টিএসসি চালু করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিডেন্ট ছাত্রছাত্রীবৃন্দ তাঁদের মেধা ও মননের সঠিক ব্যবহার করার পাশাপাশি রোগীদের আন্তরিকভাবে সেবা দানের মাধ্যমে বিশ্বসেরা চিকিৎসক হবেন এটাই সকলের প্রত্যাশা।

উল্লেখ্য, আজ ২২ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৪৩ টায় প্রকাশিত সংবাদে ভুলবশত বংগবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক কামরুল হাসান স্যারের উদ্বৃতি দিয়ে যে খবর প্রকাশ করা হয়েছিলো, তা সঠিক ছিলো না। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য মেডিভয়েস আন্তরিকভাবে দু:খিত।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত