ডা. জাহাঙ্গীর আলম

ডা. জাহাঙ্গীর আলম

 ইন্টার্ন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। 


১২ নভেম্বর, ২০১৭ ০২:৫৯ পিএম
একজন জীবন্ত কিংবদন্তী

যে কারণে অধ্যাপক ডা. এম এ মতিন স্যারের মত গুনীরা এদেশে জন্মাবে না

যে কারণে অধ্যাপক ডা. এম এ মতিন স্যারের মত গুনীরা এদেশে জন্মাবে না

তিনি একাধারে ইংল্যান্ড, এডিনবার্গ ও গ্লাসগো থেকে এফ আর সি এস (FRCS) ডিগ্রী সম্পন্ন করেছেন। যেখানে একটা এফ আর সি এস ডিগ্রী সম্পন্ন করা অনেকের স্বপ্ন থাকে, সেখানে তার সেই বিশ্বমানের ডিগ্রী রয়েছে তিনটি।তিনি ই এন টি (ENT) তথা নাক কান গলার চিকিৎসার উপরে বেশ কিছু বইও লিখেছেন। বাংলাদেশ সহ দক্ষিণ এশিয়াতে তার লিখা বই পড়ে ডাক্তার হওয়ার সংখ্যাটা নিতান্তই কম না। ইংল্যান্ড ও আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অনেক ভাল ভাল অফার পেয়েছিলেন। কিন্ত দেশমাতৃকার টানে দেশের মানুষকে সেবা করার ব্রতী নিয়ে ফিরে এসেছেন। বহুত দিন যাবত রাজশাহী মেডিকেল কলেজে দায়িত্ব পালন করেছেন। অতি সম্প্রতি তিনি পদোন্নতি পেয়ে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজে যোগদান করেছেন।

তিনি খুব সাধারণ একটি পরিবারের সন্তান ছিলেন। জীবন সংগ্রামে বিভিন্ন চড়াই উৎরাই পাড়ি দিয়ে তিনি আজকের এই অবস্থানে এসেছেন। তার মধ্যে দুটি ঘটনা তার মুখ থেকে শোনার পরে আমি অনেকটাই বিস্মিত হয়েছি।

★ ১ম ঘটনাঃ

তিনি FRCS শেষ করে ফিরে আসার পরে তাকে আউটডোরে রোগী দেখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। তিনি সিভিল সার্জনকে অনুরোধ করে শিক্ষার্থীদের মাঝে তার অর্জিত জ্ঞান বিতরনের লক্ষ্যে ক্লাস করানোর অনুমতি চান এবং সেই অনুমতিও পেয়ে যান। কিন্ত হঠাৎ উপর মহলের নির্দেশে তাকে বাধাগ্রস্ত করা হয়।

এই ঘটনা শোনার পরে চর্যাপদের সেই ডায়লগের কথা মনে পড়ে গিয়েছিল-

"আপনা মাংসে হরিণা বৈরী"

হরিণ তার নিজের মাংসের প্রতি বৈরীতা দেখালেও কতিপয় ডাক্তার যে তার স্বজাতির মাংসের প্রতি বৈরিতা না দেখিয়ে তা ভক্ষণের নেশায় মত্ত হয়ে থাকে, এম এ মতিন স্যারই তার জলন্ত প্রমাণ।

★ ২য় ঘটনাঃ

অতি সাম্প্রতিক সময়ে তিনি পদোন্নতি পেয়ে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজে যাওয়ার পরে কোন এক অজানা কারণে প্রায় তিন সপ্তাহ যাবত তাকে বিভিন্ন অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়েছে। যে বিষয়গুলো তাকে অত্যন্ত ভারাক্রান্ত করেছে। কথায় আছে, ''যে দেশে গুণীর কদর নেই, সে দেশে গুণীর জন্ম হয় না''।

আর সে কারণেই হয়তো মতিন স্যরের মত গুনীরা আর এদেশে জন্মাবে না। যদি জন্মায়ও তাহলে এই দেশের নোংরা প্রতিযোগিতাকে লাথি মেরে বিদেশে পাড়ি জমাবে।

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত