৩০ অক্টোবর, ২০১৭ ০৭:৪২ পিএম

মাইগ্রেশনের দাবীতে সিটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

মাইগ্রেশনের দাবীতে সিটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

মাইগ্রেশনের দাবিতে এবং কর্তৃপক্ষের নানা অনিয়মের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে গাজীপুরে সিটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা।

তারা রোববার বেলা ১২টার দিকে মিছিল নিয়ে বের হয়ে কলেজের সামনে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপর অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে। এসময় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সড়কের উপর আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। 

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানায়, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা সংলগ্ন ইটাহাটা এলাকাস্থিত সিটি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ২০১৩-১৪, ২০১৪-১৫ ও ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিবিএস কোর্সে ভর্তি হয়। এ কলেজের নিজস্ব কোন ভবন, জমি ও ক্যাম্পাস নেই। এছাড়া হাসপাতালের অনুমোদন ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রীও নেই। এ মেডিকেল কলেজে বর্তমানে শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর জন্য পর্যাপ্ত শিক্ষকও নেই। বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) নীতিমালা মেনে না চলার কারণে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রম এবং বিএমডিসির অনুমোদন স্থগিত করা হয় এবং সকল শর্ত পূরণ করার জন্য এক বছর সময় দেয়া হয়। কিন্তু নির্ধারিত এসময়ের মধ্যেও কলেজ কর্তৃপক্ষ সরকারি শর্ত পূরণ করতে পারেনি। ফলে, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি কার্যক্রম সম্পর্কে প্রাথমিকভাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত বহাল রাখে। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যৎ শিক্ষা জীবন নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। তারা অনুমোদনহীন মেডিকেল কলেজে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালাতে অনিচ্ছুক। এরপ্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা বিএমডিসি কর্তৃক অনুমোদিত মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করার জন্য দাবী জানায়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের মাইগ্রেশনের ব্যবস্থা করা হোক। আমরা একাধিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি যদি স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনুমোদন দেন তাহলে আমরা মাইগ্রেশন নিয়ে অন্য মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হতে পারব।

এ ব্যাপারে মেডিকেল কলেজের পরিচালক হায়াতুল ইসলাম আহাদ বলেন, বিএমডিসি এ কলেজ প্রতিষ্ঠার পর প্রথম দুই বছর ছাড়া অন্য শিক্ষাবর্ষের জন্য অনুমোদন না দিলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২০১৩-২০১৪ এবং ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষের জন্য শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দিয়েছে। তবে নিজস্ব ভবন না থাকাসহ কিছু শর্ত পূরণ না হওয়ায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নির্দেশে এ কলেজসহ দেশের ৯টি মেডিক্যাল কলেজের গত বছরের ভর্তি কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় সক্ষমতা অর্জনের শর্তপূরণ করা হলে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের লক্ষ্যে ওইসব কলেজসমূহ পূনঃপরিদর্শণ করে রিপোর্ট দাখিলের জন্য গত ২৬ অক্টোবর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় একটি কমিটি গঠণ করে। সরেজমিন পরিদর্শণ করে কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে। আশা করছি ওই কমিটি এ মেডিকেল কলেজ পরিদর্শনের পর শীঘ্রই স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হবে। 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত