পিনাকী ভট্টাচার্য্য

পিনাকী ভট্টাচার্য্য

ব্লগার, লেখক, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট

সাবেক শিক্ষার্থী, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ। 


২৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০৮:৩৩ পিএম

বাংলাদেশের কিছু ডাক্তারকে দুর্নীতির সাথে যুক্ত করে বেনেফিট নিচ্ছে ইণ্ডিয়ান হেলথ ইণ্ডাস্ট্রি

বাংলাদেশের কিছু ডাক্তারকে দুর্নীতির সাথে যুক্ত করে বেনেফিট নিচ্ছে ইণ্ডিয়ান হেলথ ইণ্ডাস্ট্রি

বাংলাদেশের ডাক্তারদের মধ্যে একটা অংশ (সবাই নয়) সীমাহীন দুর্নীতির সাথে যুক্ত হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে আছে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ইনভেস্টিগেশন এর কমিশন, বিখ্যাত ও অখ্যাত ওষুধ কোম্পানি থেকে নির্দিষ্ট প্রোডাক্ট লেখার জন্য নিয়মিত মাসোহারা, হাসপাতালে বা আই সি ইউয়ে রেফার করার জন্য রোগীর চিকিৎসা ব্যয়ের একটা অংশ কমিশন। এইভাবে মেডিক্যাল সেক্টরে হাজার হাজার কোটি টাকার একটা দুর্নীতির র‍্যাকেট চলে বাংলাদেশে। যেকোন দুর্নীতি টিকিয়ে রাখার জন্য তার পাশাপাশি একটা মাফিয়াতন্ত্র গড়ে ওঠে। চিকিৎসা ব্যবস্থাতেও একটা মাফিয়াতন্ত্র কায়েম হয়েছে। এই দুর্নীতি যে ডাক্তারেরা নিজেরাই শুরু করেছে তা নয় তাদের একটা অংশকে স্বাস্থ্য ব্যবসায়ীরা প্রলুব্ধ করেছে। আর তারাই ধীরে ধীরে লোভের কাছে পরাজিত হয়েছে। স্বাস্থ্য ব্যবসায়ীরা এইটা শিখেছে আবার ইণ্ডিয়ার স্বাস্থ্য ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে।

এই দুর্নীতির বিষয়টা যেহেতু ওপেন সিক্রেট, সবাই যেহেতু জানে তাই সাধারণ মানুষ আর ডাক্তার সমাজকে শ্রদ্ধা করতে পারেনা। তাদের সমস্ত কাজকেই সন্দেহের চোখে দেখতে শুরু করে, এর ফলে যে সমস্ত ডাক্তারেরা দুর্নীতিগ্রস্থ নয় তারাও এই বিষচক্রের ফল ভোগ করে। এই দুর্নীতিগ্রস্থ চিকিৎসকের সংখ্যা এখনো পর্যন্ত বেশী নয় তবে তুলনামুলকভাবে তরুণ ডাক্তারেরা এই দুর্নীতির সাথে বেশী যুক্ত হয়ে পড়েছে। ইণ্ডিয়ানেরা বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ব্যবসা ধরার জন্য পরিকল্পিতভাবে বাংলাদেশের ডাক্তারদের একটা অংশকে দুর্নীতির সাথে যুক্ত করে ডাক্তার রোগীর মধ্যে আস্থাহীনতার সংকট তৈরি করেছে। এর পুর্ণ বেনেফিট নিচ্ছে ইণ্ডিয়ান হেলথ ইণ্ডাস্ট্রি।

আমাদের চিকিৎসা ব্যবস্থায় আস্থাহীনতার যে সংকট তৈরি হয়েছে তার উৎস এইখানে। এই জায়গাটা ঠিক না করলে বাংলাদেশে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার সংকট যাবেনা।

ডায়াগোনোস্টিক সেন্টার, ফার্মা কোম্পানি আর বড় কর্পোরেট হাসপাতালগুলোতে অডিট চালালেই এই দুর্নীতির সাথে কারা যুক্ত সেটা বেরিয়ে আসবে। এবং এই কাজটা একসময় করতেই হবে নইলে আমাদের মুক্তি নাই। এই কাজটা করার সময় যে সমস্ত ডাক্তারেরা দুর্নীতিগ্রস্থ নন তারা দুর্নীতিগ্রস্থ সহকর্মীদের বাচাতে না এসে চুপ থাকবেন আশা করি। পাশাপাশি যে সমস্ত ইণ্ডিয়ান ডাক্তার ও হাসপাতাল বাংলাদেশের সাথে রোগী পাচারের কাজে জড়িত তাদেরকেও আইডেন্টিফাই করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদের কাউকেই ছেড়ে দেয়া উচিৎ হবেনা।

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত