ঢাকা      বুধবার ২৪, জুলাই ২০১৯ - ৯, শ্রাবণ, ১৪২৬ - হিজরী



ডা. মো. তরিকুল হাসান

রেসিডেন্ট, নিউরোলজি বিভাগ,

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।


ডাক্তারের এত বড় সাহস!

পুরনো আমলে জমিদারদের অত্যাচারে মানুষের বেচে থাকাই দায় ছিল। এমনকি তাদের বাড়ীর সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় পায়ের জুতা খুলে হাতে নিয়ে হাটতে হতো। এর অন্যথা হলে আর রক্ষা ছিল না। জমিদার পেয়াদা দিয়ে পিটিয়ে এর প্রতিশোধ নিতেন।

এখনো হয়তো আমাদের দেশে কিছু জমিদারের আত্মা রয়ে গেছে। অন্তত কিছু এলিট শ্রেণির মানুষের আচরণ দেখে তাই মনে হয়।

পাবনার ডিসি রেখা রাণী বালো তার বাংলোতে গত বুধবার দুপুরে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। রাণীর সেবা করার জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মঞ্জুরা রহমানকে ফোনে চিকিৎসক পাঠাতে বলা হয়। ডা. মঞ্জুরা রহমান হাসপাতাল ফাঁকা রেখে কোন চিকিৎসককে ডিসির বাংলোতে পাঠানো যাবে না বলে জানান। তিনি ডিসি সাহেবকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে চলে আসতে অনুরোধ করেন। আর যায় কোথায়?

সামান্য ডাক্তারের এত বড় সাহস! সঙ্গে সঙ্গে তাকে ওএসডি করা হয়!

এখন প্রশ্ন হলো-

১। হাসপাতাল ফাকা রেখে চিকিৎসকরা কি ডিসি সাহেবকে বাড়ীতে গিয়ে সেবা করতে বাধ্য?

২। আচ্ছা, ডিসি সাহেবসহ জেলার আরো যারা সাহেব আছেন তাদের বাড়ীতে গিয়ে সেবা দেয়ার সময় হাসপাতালের সাধারণ মানুষদের সেবা দেয়ার কি হবে?

৩। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় চিকিৎসকের পক্ষ না নিয়ে উল্টো তাকে ওএসডি করে কি নজীর পেশ করতে চাচ্ছে?

৪। প্রশাসন ক্যাডারকে অন্য ক্যাডারদের চেয়ে প্রাধান্য দেয়ার ফলে ভবিষ্যতে কি ফলাফল হতে পারে?

 

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


সম্পাদকীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

ডেঙ্গুর সতর্ক সংকেত ও আমাদের করণীয়

ডেঙ্গুর সতর্ক সংকেত ও আমাদের করণীয়

ডেঙ্গু (Dengue) যে ভাইরাস (virus) দিয়ে হয় তার নাম Dengue virus. এই…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর