১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০২:২৩ পিএম

কুমিল্লা অত্যাধুনিক দুইটি হাসপাতালের অনুমোদন

কুমিল্লা অত্যাধুনিক দুইটি হাসপাতালের অনুমোদন

কুমিল্লায় অত্যাধুনিক দুইটি হাসপাতালের অনুমোদন দিয়েছে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের। একটি হচ্ছে ১’শ শয্যা বিশিষ্ট শিশু হাসপাতাল।যার এখনো স্থান নির্ধারণ হয়নি। এদিকে নবগঠিত লালমাই উপজেলায় ফিজিকেল ফ্যাসিলিটিজ ডেভেলপমেন্ট প্ল্যানের আওতায় ৩১ শয্যা বিশিষ্ট আরেকটি হাসপাতাল নির্মাণে ভূমি অধিগ্রহণের জন্য কুমিল্লা জেলা প্রশাসককে চিঠি দিয়েছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

এই হাসপাতাল চালু হলে কুমিল্লা জেলায় সরকারি স্বাস্থ্য সেবায় নতুন মাত্রা যোগ হচ্ছে। শিশুদের মৃত্যুহার কমাতে এবং শিশুদের জন্য উন্নত-গুণগত চিকিৎসা সেবার লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে জেলা স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীকে ১শ শয্য বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মাণের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়েছে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর এক চিঠিতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ প্রকল্প বাস্তবায়নের নিদের্শ দেয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য এখন উপযুক্ত স্থান নির্বাচনের কাজ চলছে।

কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মজিবুর রহমান জানান, শিশু হাসপাতাল নির্মাণের লক্ষ্যে আমরা চিঠি পেয়েছি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে স্বাস্থ্য বিভাগের প্রায় তিন একর জমি রয়েছে। ওই স্থানের সাথে যে যে কোন স্থানের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো বিধায় শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য স্থানটি বেশ উপযুক্তই হবে। তবে যদি এর চেয়ে ভালো স্থান পাই, সেটাও বিচেনা করা হবে।

সিভিল সার্জন ডা. মজিবুর রহমান বলেন, যদি সবকিছু ঠিক থাকে তাহলে আগামী তিন বছর নাগাদ হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শেষ হবে। আর এ হাসপাতালটি নির্মাণ কাজ শেষ হলে এ অঞ্চলে সরকারি স্বাস্থ্য সেবায় এক নতুন দিগন্তের উন্মোচন ঘটবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এদিকে লাইমাইয়ে প্রত্যান্ত অঞ্চলে সরকারি স্বাস্থ্যসেবা সাধারণ মানুষের দোড়গোড়ায় পৌঁছে দেয়া লক্ষ্যেই মূলত ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: জাহাংগীর আলম জানান, সংশ্লিষ্ট কমিটি জমির দাগ নম্বর খতিয়ান নম্বর পেলে তারপর জেলা প্রশাসন থেকে জমি অধিগ্রহণ করা হবে।

 

সংবাদ প্রেরক : ডা. দাউদ ওমর ফারুক

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত