ঢাকা      বুধবার ১৮, সেপ্টেম্বর ২০১৯ - ৩, আশ্বিন, ১৪২৬ - হিজরী



ডা. মৃণাল সাহা

চিকিৎসক, লেখক ও মেডিসিন বিষয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণরত।


ওয়ার্ড রাউন্ড-১

মেডিকেলে হতাশাময় জীবনে শিক্ষকরাই আমাদের ভরসা

(১)

ওয়ার্ড রাউন্ডে স্যার জিজ্ঞেস করলেন,

-How will you evaluate a patient with palpitition?

প্রশ্নটা শুনে আমার নিজেরই পালপিটিশান শুরু হয়ে গেলো। প্রশ্ন কমন হলেও দ্রুত গুছিয়ে উত্তর দিতে যে পরিমান শার্পনেস থাকার দরকার সেটা সেই মুহূর্তে আমার ছিলো না। অনভ্যাসে যা হয় আর কি! স্যার ঠিকই আমার চেহারা রিড করে ফেললেন। সিনিয়র হয়েছি বলেই হয়তো বকা দিয়ে জুনিয়রদের সামনে বিব্রত করেননি।

আমাকে কিছু না বলেই আরেকজনকে জিজ্ঞেস করলেন, সে মোটামুটি একটা উত্তর দিলো। স্যার তার উত্তরে কিছু কারেকশান দিলেন। আমার দিকে না তাকিয়ে বললেন, মৃণালও পড়ে নাই, না পড়লে হবে? আমি লজ্জায় মাথা নোয়ালাম, এতটুকুই যথেষ্ঠ ছিলো। রাউন্ড শেষ করেই ডেভিডসন এর ৫৫৬ নাম্বার পাতার পালপিটিশান পড়ে নিলাম।

7 questions to be asked to a patient -

1. Is it Continuous or intermittent 
2. Regular or irregular 
3. Approximate HR? 
4. Onset ( abruptly or not), how terminate?
5. Associted Symptoms 
( Chest pain, Lightheadedness, polyurea)
6. Precipitating factors (Exercise, Alcohol) 
7. Any structural Heart Disease ( Coronary artery disease / Valvular disease)

স্যারের আরেকটা প্রশ্ন ছিলো, 
Polyurea এর সাথে HR এর রিলেশান কি?
- SVT তে Polyurea হয়।

(২)

রাউন্ডের আগে ভীষন ভয়ে থাকতে হয়। স্যার পড়া ধরবেনই। সবচেয়ে বড় কথা হলো, স্যার সেটাই জিজ্ঞেস করবেন যেটা আমি মিস করেছি। মাঝে মাঝে অবাক হয়ে স্যারের মনের কথা বুঝার স্কিল দেখি আর বিস্মিত হই।

High score ( more than 26) on Nijmegen questionnaire!

মেডিসিনে Psychogenic Hyperventilation এর পেশান্টের অভাব নেই। কিন্তু এই স্কোরের নাম শুনলেই আমার জ্বর আসে। আমার ধারনা ছিলো এই বিরক্তিকর জিনিস কোন স্যারই জিজ্ঞেস করবেন না। অথচ একদিন রাউন্ডে স্যার ঠিক এইটাই জিজ্ঞেস করলেন। আমার ইচ্ছে করছিলো মাটির নীচে লুকাই।

(৩)

একটা ছেলে ওয়ার্ডের মাঝামাঝি শোয়া। রোগীর চাপে তার জায়গা হচ্ছিলো না। শেষ রাতে ভর্তি হওয়া এই ছেলেটার হাত পা নাকি অবশ হয়ে যাচ্ছিলো। আমরা ভাবছিলাম হয়তো ফাংশানাল। কোন এক ইন্টার্ন ডাক্তার ছেলেটার ক্যাথেটার করেছে। আমরা ব্যস্ত ক্যাথেটারইজেশান এর জাস্টিফিকেশান নিয়ে। স্যার রোগী দেখেই বললেন, বইয়ের মতো এসেন্ডিং টাইপ প্যারালাইসিস নিয়ে সবসময় জিবিএস এর রোগী তোমার কাছে আসবে না। কিছু সাইন সিম্পটম দেখে তোমাকে জিবিএস মাথায় রাখতেই হবে। সব ফাংশানাল হলে কেমনে হবে?

এইটা GBS ! এরপর আর কোন কথা থাকে?

The boy was diagnosed as a case of GBS later on !

এরপর স্যার বললেন, রোগীর লোকজন বেশী মানেই উল্টা পাল্টা হিস্ট্রি। কাজেই সবচেয়ে জানা লোকটাকেই প্রশ্ন করতে হবে। রোগী কথা বলতে পারলে বাকীদের বের করে রোগীর হিস্ট্রি নিতে হবে।

পেশেন্টের ফেসিয়াল এক্সপ্রেশানকে স্যার ভীষন গুরুত্ব দেন। হয়তো কোন কেইস প্রেজেন্ট করলাম, স্যার বলবেন চেহারা দেখে কিন্তু ম্যালিগনেন্সী মনে হচ্ছে না, এইটা টিবি। কখনো বলবেন, এইটা ব্রংকিয়েকটেসিস, এইচ আর সিটি করাও অথবা এই পেশেন্টের বিলিরুবিন কতো? Exclude Haemolytic Anaemia!

(৪)

রাউন্ডের মাঝখানে যখন কিছুটা ক্লান্তি আসে স্যার তখন অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। এই সময়টাতে স্যার সবচেয়ে বেশী ফ্রেন্ডলী থাকেন। আমার এখনো কানে বাজে, স্যার বলেছিলেন,

" সব করতে হবে সব! বিসিএস ও করতে হবে, এফসিপিএসও করতে হবে! যখন টাকা ইনকাম করবা শুধু টাকাই ইনকাম করবা আর যখন পড়বা শুধু পড়া নিয়েই থাকবা। "

"কোন একটা টপিকস ধরলে পুরোপুরি শেষ করতে হবে। Killer instincts থাকতে হবে, তা না হলে হবে না। Killer instincts এর মানে হলো, A ruthless determination to succeed or win. Hunger for success is the besic for career."

স্যার সবসময় লজিক্যাল কোয়েশ্চান করেন যা পরীক্ষার জন্য জরুরী। মনে হবে কত সোজা প্রশ্ন কিন্তু বলতে গেলেই আটকে যেতে হয় ফ্লুয়েন্সির অভাবে। বলার প্র‍্যাক্টিস কম হয় বলেই পরীক্ষায় জানা জিনিসটাও আমরা গুছিয়ে বলতে পারি না।

"ডেভিডসন মেডিসিন"- বইটা স্যার এর মত এত সুন্দর করে রাউন্ডে আর কেউ ধরিয়ে দিতে পারবে বলে আমার মনে হয় না। রাউন্ডের আগে কিম্বা পরে, ডেভিডসন পড়ার একটা ফ্লো আসে শুধুই উনার কারনে। এই ব্যপারে ভীষন কড়াকড়ি, কোন ছাড় নাই, না পড়লে কড়া কথা বলতে স্যার কাউকেই ছাড়েন না। এইটাই পরীক্ষা পাশের জন্য গুরুত্বপূর্ন। স্যার হাসতে হাসতে বলবেন, আমরা কঠিনটা পারি অথচ সহজটা পারি না। একটা Asthma, COPD, Heart Failure, CKD, DM, HTN ইজ মোর ইম্পর্ট্যান্ট দেন এ রেয়ার ডিজিজ!

(৫)

ফিমেইল ব্লকের প্রথম রোগীটাই Severe malaria.

কোন একজন ইন্টার্ন এন্টি ম্যালেরিয়াল ড্রাগ এর নাম বলতে গিয়ে গুলিয়ে ফেলেছিলো। স্যার এতটাই হতাশ হয়েছিলেন যে ম্যালেরিয়ার সিম্পোজিয়ামেও স্যার এ নিয়ে আক্ষেপ করেছিলেন। এতে আমাদেরই লাভ হয়েছিলো। রোগী কমে যাওয়ায় ম্যালেরিয়ার ট্রিটম্যান্ট প্রোটকল আমরাও ভুলতে বসেছিলাম। স্যার এর তাড়া খেয়ে সবাই আবারো এলার্ট হয়ে গেলাম।

- কেন এইটা সিভিয়ার ম্যালেরিয়া।
- সিভিয়ারিটির সাইন কি কি?
- ম্যানেজমেন্ট এ আর্টেসুনেট কিভাবে দিতে হবে?

জীবনে যতবার সিভিয়ার ম্যালেরিয়ার পেশান্ট পাবো স্যারের কথা মনে পড়বেই। জানা জিনিস বারবার জানকেই স্কিল বলে। নতুন জিনিস জানাকে বলে শেখা। স্যার এর কাছ থেকে এই লেসনটাই আমি নিয়েছি। একই জিনিস বারবার দেখতে হবে, একই জিনিস বারবার পড়তে হবে।

Hepatomegaly, Splenomegaly, Lymphnode, Bronchial breath sound, Murmur, Cranial Nerves, Lower limb , Thyroid Gland , Rheumatoid Hand, Papilloedema এইসব ক্লিনিক্যাল ফাইন্ডিংস কখনোই মিস করা যাবে না। বারবার না দেখলে ফাইন্ডিংস মিস হবেই। একই রোগী বারবার দেখার বিকল্প নেই সেটা যত সহজই হোক না কেন!

(৬)

স্যার মাঝে মাঝে চেম্বার থেকে পেশেন্ট নিয়ে আসেন। আমাদেরকে একাডেমীক পেশেন্ট দেখানোর জন্যই স্যারের এই উদ্যোগ।

একটা পেশেন্টকে রিওম্যাটওয়েড আর্থাইটিস বলেই ছেড়ে দিলে হবে না, এক্সট্রা আর্টিকুলার মেনিফেস্টেশান গুলোও দেখতে হবে। Systemic features, eye, Heart, lung, musculoskeletal, haematological, Neurological, Lyphoid সব স্যার সেদিন দেখিয়ে দিলেন। লাংসে ফাইব্রোসিস কখনোই মিস করা যাবে না। রোগীর অন্য কোন কো-মরবিডিটি আছে কিনা ( DM, HTN, IHD etc) সেটা জেনে নিতে হবে। Sytemic Sclerosis এর Limited cutaneous varity নিয়ে প্রেজেন্ট করা একটা রোগীর (Overlap Syndrome) হিস্ট্রি এক্সামিনাশন, ইনভেস্টিগেশান এবং ট্রেটমেন্ট সবই সেদিন আলাপ করেছিলেন। এই ধরনের রোগীই পরীক্ষার লং কেইস থাকে।

একদিন স্যার আমাকে রিউম্যাটয়েড আর্থাইটিস এর ট্রিটম্যান্ট জিজ্ঞেস করেছিলেন। এরপর, ডিজিজ মডিফায়িং ড্রাগ গুলোর সাইড ইফেক্ট ও পেশেন্ট ফলো আপ নিয়ে কোয়েশ্চান করেছিলেন। সেই প্রশ্নের উত্তর দেয়ার পর আমার মনে হয়েছিলো, অনেকদিন এই জিনিস মনে থাকবে।

(৭)

হঠাৎ একটা এক্সরে ধরে স্যার বললেন, ডিফারেনশিয়াল ডায়াগনসিস কি? পালমোনারী ইনফার্কশান এর এক্সরে ফাইন্ডিংস কি কি, ডেভিডসনে লাল একটা ছবি দেয়া আছে, দেখেছো?

- pulmonary opacities.
- wedge shaped opacity. 
- Horizontal linear opacities.
-pleural effusion
-oligamic lung field.
- enlarged pulmonary artery
- elevated hemi diaphram.

স্যারের কল্যানেই Pulmonary Oedema এর Bat Wings এক্সরে দেখা হয়েছিলো। ওই সময় রেনাল আর্টারী স্টেনোসিস এর পেশান্ট ডায়াগনসিস করার কথাটা প্রায়ই মনে পড়ে।

আরেকদিন রাউন্ডে স্যার ধরলেন -

X-ray findings of Pulmonary TB and Brochial carcinoma.

এভাবেই কমন চেষ্ট এক্সরে গুলো নিয়ে আলাপ হয়ে যায় স্যারের দু তিনটা রাউন্ডেই।

(৮)

আমাদের কাছে সবসময়ই নেগলেকটেট কেইস হচ্ছে Sedative poisoning! TCA Anti Depressent over dose এর পেশেন্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে একদিন আমাকে জিজ্ঞেস করলেন।

ECG is must in TCA toxicity! Here arrythmia is very common (eg. Tachycardia, wide QRS and VT)

OPC poisoning নিয়েও স্যার অনেকবার রাউন্ডে কথা বলেছেন। Intermediate Syndrome এর পেশান্ট ডায়াগনসিস করার স্মৃতিও স্যারের সাথেই। Atropine Over dose এর সাইন সিম্পটম, Atropinization এর সাইন, Atropine toxicity এর ম্যানেজমেন্টও খুব সহজে বলেছিলেন।

এছাড়া রাউন্ডে প্রায়ই স্যার আলাপ করতেন,

eGFR cockcrof gault equation, CKD staging, AKI definition, Spectrum of presentation of Urinary Tract symptom, 
Alcoholic Liver disease and Madry Scoring, Pancreatitis (Acute / chronic) cause, Glasgow Scale, Hepatitis B, Hepatitis C, Child Pugh score, performance score, Heart Failure.

এই টপিকস গুলো পড়লে স্যারের কথা মনে পড়ে।

(৯)

স্যার এর সবচেয়ে বড় গুন হলো স্যার সবার নাম মুখস্থ রাখতে পারেন। ইন্টার্ন থেকে শুরু করে অনারারী, আই এম ও, রেসিডেন্ট সবার বায়োডাটাই কিভাবে যেন স্যারের মনে থাকে।

স্যারের নাম ধরে ধরে পড়া আদায় করার ট্যাকনিকটা ভীতিকর হলেও চ্যালেঞ্জিং। উনার আন্তরিকতা থেকে কেউই বঞ্চিত হন না। আর তাই বকা খেয়েও মনে দুঃখ থাকে না। কখনো হালকা বকা দেন কখনো আন্তরিক ভাবে পড়তে বলেন। স্যার নিজের অর্জিত জ্ঞান বিতরনে কখনোই কার্পন্য করেন না। তার পাশে থাকলে তার আন্তরিকতা সহজেই অনুভব করা যায়।

এভাবেই আমার মত কিছু ব্যাক বেঞ্চার অনুপ্রাণিত হয়। লিখতে গিয়ে নষ্টালজিক হয়ে যাই, অনেক কথা মনে আসে। আজকের লেখায় শুধু দুই তিনটা রাউন্ডের চুম্বক অংশ এসেছে যা অতি সামান্যই! স্যার এর একটা মজার কমেন্ট দিয়ে শেষ করি,

কোন একদিন বেড এর কাজ ঠিক মতো না হওয়ায়- স্যার হালকা বকা দিয়ে বললেন, "কাজ না করলে হবে? রেসিডেন্ট যদি প্রেসিডেন্ট হয় তাহলে কেমনে হবে? " এই vomiting এর বানান কি? ডাবল' t ' দিলে কি বেশী বমি বুঝায়?

(১০)

লেখাটা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে। এতদিন সাহসে কুলায়নি। শিক্ষকরা যদি জ্ঞানের সমূদ্র হন তবে রোগীরা হচ্ছে তীরে ওঠার নৌকা। আমার সৌভাগ্য আমি টিপু স্যারকে আমার শিক্ষক হিসেবে পেয়েছি। জানি না কতটুকু লিখতে পেরেছি, কোন ভুল থাকলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করছি। একটা লিখা দিয়ে স্যারকে প্রকাশ করা কখনোই সম্ভব নয়, আমি শুধু ছাত্র ছাত্রীদের আগ্রহী করতেই এই লিখাটা লিখলাম। আমার সৌভাগ্য আমি এমন বেশ কয়েকজন স্যার পেয়েছি। হয়তো কোন একদিন অন্য একজন স্যার এর রাউন্ড নিয়ে লিখবো।

মেডিকেলের এই হতাশাময় জীবনে শিক্ষকরাই আমাদের ভরসা। কৃতজ্ঞতা শ্রদ্ধেয় শিক্ষক DrKhairul Kabir স্যার, সহকারী অধ্যাপক, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ। আপনি দীর্ঘজীবী হউন, আরো অনেক দিন এভাবেই আমাদেরলে রাখুন এটাই করুনাময়ের কাছর প্রার্থনা।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


এডু কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন: সম্ভাব্য তারিখ ১১ অক্টোবর

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন: সম্ভাব্য তারিখ ১১ অক্টোবর

মেডিভয়েস রিপোর্ট: স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনে আগামী ৪ অক্টোবরের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার (এমবিবিএস…

আরো সংবাদ
























জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর