৩১ অগাস্ট, ২০১৭ ০২:৪৯ পিএম

ক্যান্সার সম্পর্কে কিছু ভুল ধারণা

ক্যান্সার সম্পর্কে কিছু ভুল ধারণা

ক্যান্সার একটি মারাত্মক অসুখ। যেকোনো বয়স ও যেকোনো লিঙ্গের লোকের এই অসুখ হতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, বর্তমান সময়ে ক্যান্সার আক্রান্তের বাড়ার কারণ অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন ও দূষিত পরিবেশ। এ ছাড়া ধূমপান, নির্দিষ্ট কিছু রাসায়নিক দ্রব্যের সংস্পর্শে বারবার আসা, অস্বাস্থ্যকর খাবার ইত্যাদি ক্যান্সারের আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে।

তাই 'ক্যান্সার' নামটা শুনলেই আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। কিন্তু এই আতঙ্কের পিছনে রোগটি সম্পর্কে আমাদের কিছু ভুল ধারণাও কাজ করে। বলাই বাহুল্য, ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতন হতে হলে আপনাকে এই ভুল ধারণাগুলো দূর করতে হবে।

তবে আর দেরি না করে চলুন জেন নেই ক্যান্সার নিয়ে কিছু ভুল ধারণা সম্পর্কে।  

পরিবারে কারো ক্যান্সার না থাকলে আপনারও ক্যান্সার হবে না
এটি একটি ভুল ধারণা। যেহেতু ক্যান্সার মূলত জিনগত পরিবর্তনের কারণে হয়ে থাকে সেহেতু বয়স বৃদ্ধি পাওয়া ও পরিবেশগত কারণে একজন ব্যক্তি এতে আক্রান্ত হতে পারে। তাই পরিবারের কারো ক্যান্সার না থাকলে একজন ব্যক্তির ক্যান্সার হবে না, এই ধারণা ভিত্তিহীন।

ক্যান্সার সংক্রামক রোগ
এই ধারণাটিও ভুল। এক ব্যক্তি থেকে আরেক ব্যক্তিতে ক্যান্সার সাধারণভাবে সংক্রমিত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তবে ক্যান্সারে আক্রান্ত কোনো ব্যক্তির অঙ্গ বা টিস্যু আরেকজন ব্যক্তির শরীরে প্রতিস্থাপন করা হলে ক্যান্সার সংক্রমিত হতে পারে। তবে এই প্রক্রিয়ায় সংক্রমণের সম্ভাবনাও খুবই কম।

ক্যান্সার সার্জারি ও টিউমার বায়োপসির কারণে ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়তে পারে
উপরোক্ত দু’টি কারণে ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা খুব কম। কারণ, সার্জারি বা বায়োপসির কারণে যাতে ক্যান্সার ছড়িয়ে না পড়তে পারে সেজন্য সার্জারি ও বায়োপসির সময় নানা ধরনের প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেন চিকিৎসকেরা।

ডিওডোর‍্যান্ট ব্যবহারের জন্য ব্রেস্ট ক্যান্সার হতে পারে
গবেষণায় এই ধারণার সত্যতা প্রমাণিত হয়নি। স্তনের টিস্যু পরিবর্তন করতে সক্ষম এমন কোনো উপাদান ডিওডোরান্টে বিদ্যমান থাকে বলে প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে ক্যান্সার হয়
এই ধারণার কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি। ক্যান্সার হয়ে থাকে জিন মিউটেশনের কারণে। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, মোবাইল থেকে যে স্বল্প মাত্রার কম্পাঙ্কের শক্তি নির্গত হয় তা জিনের কোনো ক্ষতি করতে পারে না।

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত