এস.এম এস.আই বাবলু

এস.এম এস.আই বাবলু

President/সভাপতি at SOMOY - সময়


২৩ জুলাই, ২০১৭ ১১:৪৪ এএম

আমি সবসময়ই মানুষের মাঝে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলকে খুঁজেছি ..

আমি সবসময়ই মানুষের মাঝে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলকে খুঁজেছি ..

স্কুলের ষষ্ঠ কিংবা সপ্তম শ্রেণির বাংলা বইতে একটি গল্প পড়েছিলাম ...
শিরোনাম ছিলো সম্ভবত এই রকম ..

হাতে_নিয়ে_আলোকবর্তিকা

সে গল্পে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল নামের একজন সেবিকার কথা বলা হয়েছে। আর্ত-মানবতার সেবায় মূর্ত-প্রতীক নার্সিং পেশায় কিংবদন্তি ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল। নাম নয় যেন বিশ্ব ইতিহাস। যিনি চোখের ঘুম ও মুখের খাবারও অসহায় রুগ্ন মানুষের জন্য উৎসর্গ করেছেন তিনিই হলেন ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল। পৃথিবীর ইতিহাসে যত মহীয়সী নারী রয়েছে তাদের মধ্যে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল অন্যতম।

সোনার চামচ মুখে নিয়ে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলের জন্ম হলেও মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল কাটিয়েছেন কঠিন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত অসহায় মানুষের সেবার পরিচর্চার মধ্যদিয়ে।

এর পর থেকে যতবার ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল এর জীবনী পড়েছি ততবারই অবাক হয়ে ভেবেছি, মানুষ এতো অসাধারণ হয় কিভাবে???

আমি সবসময়ই মানুষের মাঝে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল কে খুঁজেছি ...
বারবার ...
বহুবার...

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
২১ মে ২০১৭..
সকালটা অন্যান্য দিনের মতো স্বাভাবিক ভাবে শুরু হলেও সকাল ৯:৩০ এর পর থেকে জীবনের অন্যরকম এক বাস্তবতার মুখোমুখি হলাম আমি। দৌড়ালাম হাসপাতালে ...

আমার মা, বাবা এবং ভাই তিন জনই একই সাথে সিলিন্ডারের আগুনে পুড়ে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালের বিছানায় ...

আব্বু ৪৬% , আম্মু ১৮% এবং আশরাফ ৩% পুড়ে গিয়েছিল ...

অপারেশন থিয়েটারের বিছানায় শুইয়ে ওনাদের পোড়া চামড়া যখন ঘসে ঘসে শরীর থেকে আলাদা করা হচ্ছিল তখন আমার মনে হয়েছিল "ইশ, আজকে সকাল সাড়ে ৮ টায় যদি আমার মৃত্যু হতো, তাহলে আমাকে আর এই দৃশ্য দেখতে হতোনা "....

উন্নত চিকিৎসার উদ্দেশ্যে একই এম্বুলেন্সে সবাইকে নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ভর্তি করালাম। দিশাহারা আমার পাশে সেদিন শতাধিক অসাধারণ মানুষ আমাকে সাহস যুগিয়েছেন, পাশে ছিলেন। তাদের কথা অন্য একদিন বলবো...

তারপর শুরু হলো অন্য এক জীবন ...
 

চট্টগ্রাম_মেডিকেল_কলেজ_বার্ন_ইউনিট হয়ে গেলো আমার বাসস্থান। এক রুমে মা এবং অন্য রুমে বাবাকে নিয়ে আমার নির্ঘুম মুহুর্ত গুলো স্বরণে আসলে এখনো গা শিউরে উঠে।

চারদিকে পোড়া চামড়ার তীব্র গন্ধ, বীভৎস ঘা, রোগীদের গগন বিদারী চিৎকার এবং প্রতি মুহুর্তে মৃত্যুর মিছিলে যুক্ত হওয়া পোড়া মানুষ গুলোর সাথে আমার সময় গুলো ছিলো অন্তঃসারশূন্য মস্তিষ্কের চিন্তাধারার মতো...

কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে আমি কেন যেন আশ্বস্ত ছিলাম, কেন যেন সাহসী ছিলাম। যেখানে হাসপাতালে রোগীর আত্মীয়দের মন অত্যন্ত ছোট হয়ে থাকে সেখানে আমি কিভাবে যেন অসাধারণ ভাবে অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে সবকিছু মোকাবেলা করার সাহস পেয়ে গেলাম...

পরে বুঝলাম আমার এই সাহসীকতার পেছনে কাজ করেছেন বার্ন ইউনিটে কর্মরত অসাধারণ কিছু মানুষ ...

তাঁদের মধ্য দুজন মানুষ আমাকে শিখিয়েছেন কিভাবে বিপদের মোকাবেলা করতে হয়...

Dr. #Mishma_Islam
Dr. Jannatul Mawa

যে কদিন ছিলাম, আমি দেখেছি এই দুজন অসাধারণ মানুষ কিভাবে শুধুমাত্র কথা দিয়েই দগদগে পোড়া নিয়ে আসা রোগীগুলোর পোড়া অর্ধেক সারিয়ে তোলেন। এতো সুন্দর করে মনোযোগী হয়ে কোন রোগীর সেবা করতে পারেন কোন ডাক্তার, ওনাদের না দেখলে আমি কখনোই তা বিশ্বাস করতাম না।

কোন রোগী যতবার ডেকেছে, যতবার সাহায্য চেয়েছে ততবারই এই মানুষগুলো বিন্দুমাত্র বিরক্তি প্রকাশ না করেই হাসিমুখে সেবা দিয়ে গেছেন।

রোগীদের প্রতি ওনাদের গভীর মমত্ববোধ দেখে আমার মতো আবেগী মানুষের চোখে জল এসেছিল অসংখ্য বার।

°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
আমার অনেক দিনের ইচ্ছে ছিলো এখনকার ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলদের দেখবো। মহান রাব্বুল আলামিন আমাকে এ যুগের ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল দেখিয়েছেন ...

ডাঃ_মিশমা_ইসলাম
ডাঃ_জান্নাতুল_মাওয়া

মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে আমি এবং আমার পরিবারের সবাই আপনাদের জন্য প্রতিনিয়ত দোয়া করে যাবে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত। আপনারা বেঁচে আছেন জীবন্ত কিংবদন্তী হয়ে...
বেঁচে থাকবেন শত বছর ...

[ আজ দুমাস হয়ে গেলো, আল্লাহর রহমতে আব্বু আম্মু আগের তুলনায় অনেকটা সুস্থ আছেন। এই মহান মানুষ গুলোর জন্য লিখতে গিয়ে মোবাইলের কীপ্যাড থেকে হাত সরিয়ে নিয়েছি অসংখ্যবার। যদি আমার লেখায় কোন কমতি থেকে যায়...

কেউ যদি কখনো CMCH এর বার্ন ইউনিটে যান, তাহলে আমার পক্ষ থেকে উনাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন আপনিও... রাব্বুল আলামিন সবাইকে হেফাজত করুন ..]

 

Add
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না