ডা. তরফদার জুয়েল

ডা. তরফদার জুয়েল

অনারারি মেডিকেল অফিসার, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। 


১৭ মে, ২০১৭ ০৪:৪৯ পিএম

২৯ সপ্তাহের প্রেগন্যান্সিতে বাচ্চার জন্ম!

২৯ সপ্তাহের প্রেগন্যান্সিতে বাচ্চার জন্ম!

ছবির বাচ্চাটির জন্ম হয়েছে ২৯ সপ্তাহ প্রেগন্যান্সিতে, ওজন ১১০০ গ্রাম।

বাচ্চার মায়ের পেট ব্যথা শুরু হবার পর কোন ভাবেই কমে নি। গতকাল স্বাভাবিকভাবে বাচ্চাটির জন্ম হয়। কিন্তু ২৯ সপ্তাহের ( ৭ মাস) প্রেগন্যান্সিতে জন্ম ও ওজন ১১০০ গ্রাম হওয়াতে সবাই বাচ্চার বেচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। আমি বাচ্চার বাবাকে ও সকল আত্মীয়কে বারবার বোঝালাম যে, বাচ্চাটিকে কোন একটা বড় হাসপাতালে নিন, বাচ্চাটিকে ইনকিউবেটরে রাখলে বা নিউন্যাটাল আইসিইউতে রাখলে বাচ্চাকে বাচানো সম্ভব, এমনকি স্বাভাবিক বাচ্চার মতই হবে, একটু চেষ্টা করেন।

তারা সবাই আমার বিপরীত কথা বললেন, "এই বাচ্চা বাচব না, চউখ ফোডে নাই, ক্যাম্নে বাচব? আর ওইখানে অনেক ট্যাকা খরচ, নিতে পারুম না, যা করার করেন। বাচলে বাচব, না বাচলে কি আর করার?" বাচ্চাকে এতই অযত্নে রাখা হয়েছিল যে দেখে খুব কষ্ট পেয়েছিলাম। বাচ্চাকে বেসরকারি হাসপাতালে না নিতে পারলেও সরকারিতেও তো নিতে পারে ( যদিও বাচ্চার বাবার অবস্থা ভাল)।

যাহোক সবাই যখন নিরাশ, তখন আমি বললাম- বাচানোর মালিক উপরওয়ালা, আমার চেষ্টা করতে অসুবিধা কোথায়?

বাচ্চার ক্যানুলা করতে বললাম, নাকমুখ ও গলা সাকার মেশিন দিয়ে পরিস্কার করে দিলাম, অক্সিজেন দিলাম। ক্যানুলা করার পর বাচ্চাকে গরম কাপড়ে পেচিয়ে রেখে প্রয়োজনীয় ওষুধগুলো দিলাম।

আজ দেখি বাচ্চা সুন্দর লাল টকটকে চেহারা, মুখ ভঙ্গি করছে (যদিও মুখে খাওয়ানো বন্ধ), স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিচ্ছে, বাচ্চার সকল রিফ্লেক্স মোটামুটি ভাল, অন্য কোন সমস্যা নাই। ( এখন বাচ্চা ভাল থাকলেও কমপক্ষে আগামী ৪-৫ সপ্তাহ নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখতে হবে, যদি তারা বাচ্চার প্রতি যত্নবান হোন তবেই এই বাচ্চাকে সুস্থ সবল বাচ্চার অবস্থায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব)।

গতকাল যারা নিরাশ ছিলেন, আজ তাদের মুখে হাসি, একবার বাচ্চার দিকে তাকায় আরেকবার আমার দিকে তাকায়। আমাকে বলে- ডাক্তার সাব, বাচ্চাতো দেখি ভাল হয়া গেল, এই বাচ্চার জান শক্ত।

বললাম- আপনারা আশা ছেড়ে দিলেও আমরা যারা ডাক্তার, তাদের ক্ষেত্রে রোগির মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত নিরাশ হবার বা হতাশ হবার কোন সুযোগ নাই। আমরা ডাক্তাররাই যদি হতাশ হই, সাধারণ মানুষ কার কাছে আশার বাণী শুনবে। আর জীবন মৃত্যুর মালিক উপরওয়ালা, তার উপর ভরসা করা কি উচিত নয়! চেষ্টা করতে দোষ কোথায়?

উপরওয়ালা বাচ্চাটিকে সুস্থ রাখুন।

 

সিন্ডিকেট মিটিংয়ে প্রস্তাব গৃহীত

ভাতা পাবেন ডিপ্লোমা-এমফিল কোর্সের চিকিৎসকরা

প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

অক্টোবর-নভেম্বরে ২য় ধাপে করোনা সংক্রমণের শঙ্কা

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না