ঢাকা শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬,    আপডেট ৪০ মিনিট আগে
ডা. মোবাশ্বের আহমেদ নোমান

ডা. মোবাশ্বের আহমেদ নোমান

অ্যাসিস্টেন্ট রেজিস্ট্রার, সার্জারি, 

রংপুর আর্মি মেডিকেল কলেজ। 


১২ এপ্রিল, ২০১৭ ১২:২৪

বাচ্চাদের হাঁচি কাশি আর বাঁশির রোগ!

বাচ্চাদের হাঁচি কাশি আর বাঁশির রোগ!

বাচ্চাদের রোগ হলেই আমরা খুব ভয়ে থাকি কারন বাচ্চারা অল্প সমস্যাতেই কাবু হয়ে যায় নেতিয়ে পড়ে। তবে অনেক সমস্যা হচ্ছে কিন্তু বাচ্চা খেলতেছে, হাসতেছে এমন রোগও কিন্তু আছে।
যদি আপনার বাচ্চার বয়স ২ বছরের কম হয় আর দেখতে পান যে তার সর্দি কাঁশি আর হালকা জ্বরের সাথে শ্বাসকষ্ট হচ্ছে অর্থাৎ হাঁচি, কাঁশির সাথে বুকে বাঁশির শব্দ শোনা যাচ্ছে তবে বুঝবেন আপনার বাচ্চার রোগের নামটি হচ্ছে ব্রংকিওলাইটিস। এখানে জ্বর সাধারনত ১০১ ডিগ্রী ফা. এর নীচে থাকে। কোনো কোনো শিশু শ্বাসকষ্টের পাশাপাশি খেতেও পারে না কিন্তু দেখবেন বাচ্চা তেমন নেতিয়ে পড়ে নি বেশ সুস্থ্য সবল আছে।

এই রোগটি প্রাথমিক পর্যায়ে আপনি বাড়িতেই চিকৎসা দিতে পারেন।

নাক বন্ধ থাকলে নরমাল স্যালাইন বা নরসল ড্রপ দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। বারবার বাচ্চাকে বুকের দুধ বা সাপ্লিমেন্টারী লিকুইড খাওয়ান। জ্বরের জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্যারাসিটামল সিরাপ খাওয়ান।

সমস্যা বেশী হলে সালবিউটামল বা নরমাল স্যালাইন দ্বারা নেবুলাইজড করানো লাগতে পারে। 
এই রোগের প্রধান কালপ্রিট হচ্ছে RSV ভাইরাস। তাই সাধারনত এন্টিবায়োটিক ইফেক্টিভ না।

এই ভাইরাস কিভাবে ছড়ায় জানেন? 

 অসুস্থ্য বাচ্চার সংস্পর্শে। তাই এই সিজন চেঞ্জের সময়ে অসুস্থ্য বাচ্চার থেকে নিজের বাচ্চাকে আলাদা রাখুন।

আর প্লেফুল বাচ্চার হাঁচি কাশি আর বাঁশি শুনলে চিন্তিত না হয়ে ধৈর্য্য ধরুন। বাচ্চাকে নিয়ে সুখে থাকুন। 

(এই সিরিজ লেখা শুরু করেছি মানুষের সচেতনতার জন্য মেডিকেলীয় রেফারেন্সের জন্য নয়। সিরিজের আটাশতম লেখা। টপিক : বাচ্চাদের ব্রংকিওলাইটিস)

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত