যোবায়ের মাহমুদ

যোবায়ের মাহমুদ

শিক্ষার্থী, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ। 


০৬ এপ্রিল, ২০১৭ ০৭:৪২ এএম

যারা বিষণ্নতায় ভুগছেন

যারা বিষণ্নতায় ভুগছেন

বিষণ্নতা কি?

বিষণ্নতা মূলত: এক ধরনের অসুস্থতা যেখানে হতাশা আর স্বাভাবিক কাজকর্মে অনীহা আপনাকে কুরে কুরে খেয়ে ফেলবে। সেই সাথে স্বাভাবিক কাজের জন্য আপনার কর্মশক্তি হ্রাস, ক্ষুধামন্দা, ঘুমের অনিয়ম, উদ্বিগ্নতা, অস্থিরতা, মনোযোগ হ্রাস, অপরাধবোধ, নিরাশা অথবা আত্মহত্যার চিন্তাও আসতে পারে। বিষণ্নতা যে কারো জীবনেই আসতে পারে। বিষণ্নতা কখনোই কারো জীবনের শেষ কথা হতে পারে না। মনে রাখবেন, সময়মত চিকিৎসায় আপনার বিষণ্নতার সমাধান খুব সহজেই হতে পারে। ভেঙে পড়বেন না, বুক চিতিয়ে দাড়িয়ে যান। বিজয় অপেক্ষা করছে আপনার জন্য।

 

যখন ভাবছেন আপনি বিষণ্নতায় ভুগছেন, কি করবেন?

★ এমন কারো সাথে সাথে অনুভূতি শেয়ার করুন, যিনি আপনার অনুভূতিগুলোকে সম্মান দিতে জানেন। অধিকাংশ মানুষই মনের কথাগুলো কোন প্রিয়জনকে বলার পর অপেক্ষাকৃত হালকাবোধ করেন। চাইলে আপনিও একই কাজ করতে পারেন। কথা বলুন, হালকা হন।

★ অভিজ্ঞ কারো সহায়তা নিন। প্রয়োজনে ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।

★ সবসময় একটা ব্যাপার মনে রাখুন, সঠিক সময়ে সঠিক সহায়তা আপনার পুরো জীবনটাকেই বদলে দিতে পারে।

★ আপনি করতে ভালোবাসেন এমন সব কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন। হতে পারে আপনার ছবি আকতে ভালো লাগে, অথবা গান গাইতে, কবিতা পড়তে অথবা হতে পারে ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফি আপনার আরাধ্য বিষয়! লেগে থাকুন। মনে রাখবেন, জীবনে সফল হওয়ার চাইতে সুখী হওয়াটা বেশ জরুরী ছিলো।

★ পরিবার-পরিজনের সাথে বন্ধন কখনোই ছিন্ন করবেন না। পরিবারই আপনার জীবনের শেষ আশ্রয়, শেষ বাধন।

★ নিয়মিত ব্যায়াম করুন। সামান্য দূরত্ব হলেও হাটুন। খাওয়া দাওয়া এবং পরিমিত বিশ্রামের সাথে কোন আপেষ করবেন না।

★ সবচে সহজ সমাধান হচ্ছে মেনে নিন,জীবনে যে কারো বিষণ্নতা আসতেই পারে। চাওয়াগুলোকে পাওয়ার অনুপাতে বদলে নিন। সবসময় সবকিছু আপনার ইচ্ছেমত নাও হতে পারে।

★ অ্যালকোহল থেকে যতদূর সম্ভব দূরত্ব বজায় রাখবেন।

★ কখনো যদি আত্মহত্যার ইচ্ছে জাগে, এমন কারো সাথে কথা বলুন যিনি আপনাকে আসলেই সাহায্য করতে পারবেন। মনে রাখবেন, বিষণ্নতা এড়িয়ে যাওয়া যায় না এমন কোন অসুখ নয়, আপনাকে শুধু খুজে বের করতে হবে, কিভাবে আপনি বিষণ্নতার মোকাবিলা করতে চাচ্ছেন?

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে