০২ এপ্রিল, ২০১৭ ১১:৩৪ এএম

হিটলারের ‘ভুতুড়ে হাসপাতাল’!

হিটলারের ‘ভুতুড়ে হাসপাতাল’!

জার্মানির বার্লিন শহর থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বিলিতজ সামরিক হাসপাতাল। এটি ‘হিটলারের হাসপাতাল’ নামেই বেশি পরিচিত।

জার্মানির বার্লিন শহর থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত বিলিতজ সামরিক হাসপাতাল। এটি ‘হিটলারের হাসপাতাল’ নামেই বেশি পরিচিত। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হিটলার তার সামরিক বাহিনীর জন্য ব্যবহার করায় হাসপাতালটির এ পরিচিতি।

এমনকি ১৯১৬ সালে যুদ্ধে আহত হয়ে দুই মাস বিলিতজ সামরিক হাসপাতালে নিজেও চিকিৎসা নিয়েছিলেন অ্যাডলফ হিটলার। 

হাসপাতালটি তৈরি হয়েছিলো ১৮৯৮ সালে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় আহত রেড আর্মিদের চিকিৎসা দেওয়া হতো সেখানে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর হাসপাতালটি যক্ষ্মারোগীদের সেবা দানে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। কিন্তু ১৯৯৫ সালে শহর ছেড়ে চলে যেতে থাকেন বাসিন্দারা। 

তারপর থেকেই বন্ধ হয়ে যায় হিটলারের ব্যবহৃত হাসপাতালটি। 


হাসপাতালটির এখনকার চিত্র করুণ। হাসপাতালের দেয়ালের চুনকাম খসে পড়েছে। টাইলসগুলো ভেঙে গেছে অনেক আগেই। তবে কিছু ভাঙা চেয়ার-টেবিল এখনো ইতিহাসের অনেক কিছুর সাক্ষী হয়ে রয়ে গেছে। 

ভুতুড়ে আবহ বিরাজ করে হাসপাতালটিতে। তাই অনেকেই এটিকে বলেন ‘হিটলারের ভুতুড়ে হাসপাতাল’। 


১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষ দিনগুলোতে হিটলার বার্লিনেই ছিলেন। রেড আর্মি যখন বার্লিন প্রায় দখল করে নিচ্ছিল, সে রকম একটা সময়ে ইভা ব্রাউনকে বিয়ে করেন। বিয়ের ২৪ ঘণ্টা পার হওয়ার আগেই তিনি ফিউরার বাংকারে সস্ত্রীক আত্মহত্যা করেন।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত