ডা. আহমাদ হাবিবুর রহিম

ডা. আহমাদ হাবিবুর রহিম

লেখক, কলামিস্ট

বিসিএস (স্বাস্থ্য), রেসিডেন্ট, বিএসএমএমইউ।


১৭ মার্চ, ২০১৭ ০৭:৩২ পিএম
রম্যগল্প

মসকুইটো কিলিং ডিভাইস

মসকুইটো কিলিং ডিভাইস

মশক নিধন বিষয়ক জিনিসপত্র প্রস্তুতকারী এক কর্পোরেট কোম্পানীর স্মার্ট কেতাদুরস্ত মার্কেটিং অফিসার ওরফে সেলসম্যান একটি অফিসের এমডির কাছে গেছেন তাদের একটা স্পেশাল ডিভাইসটি বিক্রির ব্যাপারে কথা বলতে...
- স্যার, আমাদের কোম্পানী মশানিরোধক একটি অভিনব যন্ত্র আবিষ্কার করেছে। এটি দিয়ে খুব অসাধারণ ভাবে মশা মারা যায়। নাম হলো 'স্পেশাল এডভান্সড টেকনোলজী বেইজড মসকুইটো কিলার বেড'।

- মানে কি! আবিষ্কারের জন্য আর কিছু পেলেন না আপনারা? তো কি করা যায় এটা দিয়ে?

- একচুয়ালি স্যার প্রেজেন্ট মার্কেট এনালাইসিস করে দেখা গেছে মশার কামড় ঘটিত সমস্যা থেকে অনেক বড় বড় সামাজিক সমস্যা তৈরী হচ্ছে। এছাড়া রাতে মশার কামড় খেয়ে ভালোমত ঘুমাতে না পেরে কর্মজীবী লোকদের ধীরে ধীরে কর্মদক্ষতা কমে যাওয়া, মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাওয়া, অধঃস্তনদের বকাঝকা করার প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আমরা প্রোডাক্ট সেলিং এ প্রথমেই অফিসগুলোকে টার্গেট করেছি স্যার।'

মার্কেটিং অফিসার তেলতেলে একটা হাসি দিলো। এরপর আবার শুরু করলো সে,

- এমন কি স্যার, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কে মশারী টাঙাবে এই সমস্যা থেকে ধারাবাহিক পারিবারিক মনোমালিন্য হতে হতে এক পর্যায়ে ডিভোর্স পর্যন্ত হয়ে যাচ্ছে স্যার। তাই ব্যাপারটা সমাজের জন্য একটা মেজর কনসার্ন হয়ে দাড়িয়েছে স্যার। ইনফ্যাক্ট ইতিমধ্যেই আমাদের মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানী কয়েক কোটি ডলার এই বিষয়ে রিসার্চে ব্যয় করেছে। এর মধ্যে একটা প্রোজেক্ট মোটামুটি সফলও হয়েছে স্যার। সম্প্রতি আমাদের বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছেন এই 'স্পেশাল এডভান্সড ড়েকনোলজি মসকুইটো কিলার বেড'। তবে আমাদের আরো কয়েকটা প্রোজেক্ট নিয়ে রিসার্চ এখনও চলছে।

- ও! তা মশা কি নিজে নিজে এসে এই কিলার বেডে শুয়ে যাবে? তারপর মশাটা মারবো?

- জ্বি না স্যার। তবে আমরা নেক্সট ভার্সনে এমন সুবিধা যোগ করা যায় কিনা দেখছি। আপাতত মশাটা আপনাকেই ধরতে হবে। তারপর মশাটিকে এই বেডটাতে স্থাপন করতে হবে।

- তারপর?

- তারপর স্যার, মশাটি অটোমেটিকালিই ইকোফ্রেন্ডলি এডহেসিভ গ্লুর মাধ্যমে বেডের সাথে লেগে যাবে।

- তারপর মারবো?

- না স্যার, আর একটি সামান্য কাজ আছে। আপনাকে শুধু তিন সেকেন্ড অপেক্ষা করতে হবে। এর মধ্যেই বেড থেকে অটো সেন্সরযুক্ত দুটো চ্যানেল বের হবে। ওগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে মশার গায়ে লেগে যাবে এবং চ্যানেলগুলো দিয়ে কেমিকাল বের হয়ে মশাটাকে অজ্ঞান করে ফেলবে।

- তারপর কি মশাটা নিজে নিজ মরে যাবে?

- জ্বি না স্যার। যেহেতু এখানে হোমিসিডাল মানে জীব হত্যার মতো একটা নিষ্ঠুর ব্যাপার আছে তাই আমরা এখানে আলাদা একটা পারমিশন অপশন রেখেছি। মশাটাকে মারতে চাইলে আপনাকে এই লাল 'এক্সিকিউট' বাটনটিতে চাপ দিতে হবে। তখন চাপ লেগে মশাটি মরে যাবে। আর হ্যা স্যার, আমরা নিশ্চয়তা দিচ্ছি যেহেতু মশাটি অজ্ঞান থাকবে সুতরাং মৃত্যুর সময় এটি কওন ব্যাথা পাবে না। আর হ্যা স্যার, যদি মশাটিকে মারার আগেই আপনার মন নরম হয়ে যায় তাহলে বাটনটি না চাপলেই হলো তাহলে সতেরো থেকে বিশ মিনিট পর মশাটি আবার জ্ঞান ফিরে পাবে এবং সে তখন উড়ে চলে যেতে পারবে। আর হ্যা, স্যার এই পুরো কাজটি করার সময় আপনাকে নিজের সেফটির জন্য আমাদের কোম্পানির তৈরি ইকো ফ্রেন্ডলি এন্ড বায়োলজিকালি স্টেরাইল গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে। এগুলোর প্রাইস অবশ্য প্যাকেজের সাথেই ইনক্লুডেড। এর জন্য আমরা আলাদা কোন ফি নিচ্ছি না।

- বলেন কি! একটা মশা মারতে এতো কিছু করতে হবে? এটাতো মশা মারতে কামান দাগার চেয়েও ভয়াবহ ব্যাপার!

- এক্সকিউজমি স্যার। আসলে কামান দিয়ে মশা মারা যায় না। রিসেন্টলি একটা বিগ বাজেট হাই টেকনোলজি সাপোর্টেড রিসার্চে আমরা দেখেছি যে কামান দিয়ে মশা মারার চেষ্টা করলে মশা মারা যাওয়ার সম্ভবনা ১.২৪২% এর ও কম এবং সেখানেও মৃত্যুর কারণ মেকানিকাল ইফেক্ট নয় বরং রেসপিরেটরি ইনসাফিসিয়েন্সি কিন্তু সমস্যা হলো স্যার এর সাথে স্যার কামান দাগার কো ল্যাটারাল ড্যামেজ হিসেবে আশেপাশের আসবাব পত্র নষ্ট হবার সম্ভাবনা ৯৮.৬৭২৩% স্যার। তাই স্যার আমরা এই প্রোজেক্ট ক্যান্সেল করেছি।

- কি শোনালেন এটা? এইটা নিয়ে আপনারা রিসার্চ করে পয়সা খরচ করেছেন?

- ইয়েস স্যার। উই হ্যাভ টেকেন ইট প্রোফেশনালি। আমরা বর্তমানে চেষ্টা করছি কামান দাগার কনসেপ্টকে আধুনিকানের মাধ্যমে মাইক্রোস্কোপিক মিসাইলিং টেকনোলজি ব্যবহার করে মশা মারায় কোন নতুন দিগন্ত উন্মোচন করা যায় কি না? অবশ্য স্যার, এটাতে আরো অনেক সময় লাগবে। আপাতত আপনাকে আমাদের এই স্পেশিয়ালাইজড মশকুইটো কিলার বেডটাই ব্যবহার করে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে। আর স্যার, পাশাপাশি আমাদের অটোমেটেড মসকুইটো নেট সেট আপ প্রোজেক্টটাও সমাপ্তির দিকে। যারা যারা আমাদের এই প্রোডাক্টটি নেবেন তাদের জন্য নেট সেট আপ প্রোজেক্টে ২৫% ছাড় থাকবে।

- ঐটা কি জিনিস?

- মানে স্যার অটোমেটিক মশারি টাঙানোর মতো ব্যাপার স্যার। যদিও সেটা অনেক আধুনিক টেকনোলজির মশারী হবে। এটাতে 'ইনফ্রারেড রে বেজড মসকুইটো নেট সার্ভিলেন্স এন্ড লেজার কিলিং' মেকানিজম থাকবে। মানে স্যার, ইনফ্রারেড রশ্নি দিয়ে মশার গতিবিধি লক্ষ্য করা হবে। কোনটা যদি ঢুকেও যায় ভিতরে তাহলে সেটাকে লেজার রশ্নি দিয়ে সাথে সাথেই ধংস করে দেয়া হবে। এটা স্যার খুবই ফ্যামিলি ফ্রেন্ডলি প্রোজেক্ট স্যার।

- ভালো জিনিস তো। তা ঐ মশারিটার দাম কেমন হতে পারে?

- এটা মূলত ইন্টার ন্যাশনাল মার্কেটিং এর জন্য। খুব চাহিদা তো স্যার। বাংলাদেশে সম্ভবত বারো- তের লাখ টাকার মতো পড়তে পারে প্রতি ইউনিট।

- বলেন কি একটা মশারীর এতো দাম?

- স্যার, এটাতো তো আর সিম্পল মশারী না। আধুনিক টেকনোলজি সমৃদ্ধ মশারী। আর রাতের বেলা মশার কামড়বিহীন ঘুম আর মশারি টানানো বিষয়ে স্ত্রীর মনোমালিন্য ছাড়াই একেকটি রাত কতোটা দামী বুঝতেই পারছেন! তো স্যার আপনার কোম্পানীর জন্য আমরা কতটি মসকুইটো কিলার বেড রিকুইজিশন দিবো যদি বলতেন স্যার? আমরা স্যার, সব ইন্টারন্যাশনাল পেমেন্ট টার্মিনালগুলো ব্যবহার করেই লেনদেন করি। সুতরাং এটি সম্পূর্ণ নিরাপদ।

- হুম। বুঝতে পারছি। তা আপনারা আর কি কি প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করেন?

- আসলে স্যার আমাদের কোম্পানী অনেক বড়ো। মসকুইটো রিসার্চ উইং এর একটা প্রোজেক্ট। এই প্রোজেক্টের অন্য প্রোডাক্টের মধ্যে আছে স্যার, ইমিডিয়েট মসকুইটো বাইটি ইচিং ইফেক্ট রিসলভিং ইচার রোবট...

- মানে বলতে চাচ্ছেন মশা কামড়ালে একটা রোবট এসে সাথে সাথে গা চুলকে দেবে?

- ব্যাপারটা অনেকটা ওরকমই স্যার। তবে রোবটটা হবে বেশ আপডেটেড ভার্সনের। আর এটা শুধু চুলকে দেয়াই না বরং আক্রান্ত স্থানে বিশেষ মেডিকেটেড ক্রিমও লাগিয়ে দেবে স্যার।

- হুম।

- স্যার আসলে এর বাইরেও মশকুইটো হুল ক্যাপিং টেকনোলজী এবং মশকুইটো ফ্যামিলি প্লানিং এন্ড প্রোডাক্টিভিটি লিমিটেশন রিসার্চেও আমরা এ বছর প্রায় তিনশো কোটি টাকা ইনভেস্ট করেছি স্যার।

- এতো মশা মারতে কামান দাগার বদলে ইন্টার গ্যালাকটিক মিসাইল দাগার মতো ব্যাপার!

- জ্বি স্যার। আসলে স্যার আমরা চাচ্ছি মশার কামড়মুক্ত একটি স্বাস্থ্যকর একটি পৃথিবী। আপনি তো জানেনই মশা কামড়ালে ম্যালেরিয়া, ফাইলেরিয়া, ডেঙ্গু প্রভৃতি কতো রোগ কতো কিছু হয়। বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ এইসব রোগে আক্রান্ত হয়।

- মশামুক্ত পৃথিবী তো না এটা আসলে আপনাদের টাকা কামানোর ধান্দা!

- হে হে স্যার। আপনি খুব মজা করে কথা বলেন স্যার। তো স্যার, আপনার ডিভাইসের চাহিদাটা যদি বলতেন দয়া করে। টুয়েন্টিফোর আওয়ারের মধ্যেই স্যার আমরা প্রোডাক্ট ডেলিভারি দিয়ে দেবো স্যার। আর সেট আপ এন্ড ইন্সটলেশন ও আমাদের ইঞ্জিনিয়াররাই এসে করে দিয়ে যাবেন স্যার।

-আচ্ছা, আমাকে একটু বলুন তো, আমি যদি আমার এই গোবদা হাতগুলো দিয়ে একটা মশাকে থাবড়া দেই তাহলে মশাটা মরবে কিনা?

- জ্বি স্যার, না মানে স্যার আমরা ব্যাপারটাকে সাইন্টিফিকভাবে...

- আগে আমাকে বলেন মশাটা মরবে কিনা?

- জ্বি স্যার।

- তাহলে মশাটা নিজের হাতে ধরে তারপর এটাকে একটা মসকুইটো বেডে শুইয়ে অজ্ঞান করে, এক্সিকিউট বাটনে চাপ দিয়ে মারতে হবে ক্যান? ধরার পর পর চিপপ্যা মাইরা ফালাইলে সমস্যাটা কি!!!

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা
পিতাকে নিয়ে ছেলে সাদি আব্দুল্লাহ’র আবেগঘন লেখা

তুমি সবার প্রফেসর আবদুল্লাহ স্যার, আমার চির লোভহীন, চির সাধারণ বাবা

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 
কিডনি পাথরের ঝুঁকি বাড়ায় নিয়মিত অ্যান্টাসিড সেবন 

বেশিদিন ওমিপ্রাজল খেলে হাড় ক্ষয়ের ঝুঁকি বাড়ে 

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না