আসিফ শুভ্র

আসিফ শুভ্র

Apollo Hospitals Dhaka For Community

Registrar- Critical Care Department.


০৯ মার্চ, ২০১৭ ১১:২৬ পিএম

বিশ্ব কিডনী দিবস: কিছু আক্ষেপের কথা

বিশ্ব কিডনী দিবস: কিছু আক্ষেপের কথা

'ভারত থেকে কিডনী ট্রান্সপ্লান্ট করে এলাম, ঐ খানে আমার রোগী কতো ভালো ছিলো! অথচ বাংলাদেশে আসার পরই রোগীর যতো সমস্যা।’

আমি নিরবে দীর্ঘশ্বাস ফেলি। কিভাবে বুঝাবো ওদের ....... কতো বড় ষড়যন্ত্র করে , দেশীয় চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে একটার পর একটা ভিত্তিহীন নিউজ করে হলুদ সাংবাদিকরা বাংলাদেশ থেকে কিডনী রোগীদের পার্শ্ববর্তী দেশে যেতে প্ররোচিত করলো, বাংলাদেশে ট্রান্সপ্ল্যান্ট বন্ধ হয়ে গেলো ! হাতে গোনা দুই একটা ইনস্টিটিউট ব্যতীত কিডনী ট্রান্সপ্ল্যান্ট বাংলাদেশে আর হয়না।

একজনের শরীরে আরেকজনের অংগ প্রতিস্হাপন করতে অনেক জটিল পরীক্ষা নিরীক্ষার স্তর পার হতে হয়। ভারতে গিয়ে অধিকাংশ রোগীই হচ্ছেন চরম প্রতারণার শিকার। টিস্যু টাইপিং ম্যাচিং কিছুই করছে না ওরা ঠিক মতো। উপরন্তু গ্রাফ্ট যাতে রিজেক্ট না হয় এজন্য প্রয়োগ করছে মাত্রাতিরিক্ত steroid, immunosuppressive drugs. এসব ড্রাগস এর ইফেক্টে রোগী ভারতে থাকাকালীন মাসখানেক কোনো সমস্যাতে পড়ছেন না, কিন্তু আস্তে আস্তে Body immune system কে তছনছ করে দিচ্ছে মাত্রাতিরিক্ত এসব ওষুধের প্রভাব।

আমি অনেক রোগী পেয়েছি, আজও পাচ্ছি যাদের ভারতে করা তথাকথিত সফল কিডনী ট্রান্সপ্লান্ট রিজেক্ট হয়ে গেছে। immune system নষ্ট হয়ে শরীরে বাসা বেঁধেছে CMV( cytomegalo virus ), TB. রোগীরাও দিব্যি বাংলাদেশের চিকিৎসকদের ভুল বুঝছেন।

বুঝতে চাচ্ছেন না - তার শরীরে যেই কিডনীটা প্রতিস্হাপিত হয়েছে সেটার টিস্যু ম্যাচিং যথাযথ ছিলো না। মাত্রাতিরিক্ত steroid আর immunosuppressive drugs দিয়ে তার শরীরকে বাধ্য করা হয়েছিলো acute graft reject না করতে। সাফল্যের দাবী করে খুব দ্রুত ভিটেমাটি বিক্রী করা অসহায় রোগীটাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

যখন CMC বা TB dissiminated হয়ে যায় আমাদের চিকিৎসকদের কিই বা আর করার থাকে। দীর্ঘশ্বাস ব্যতীত ?

আমাদের দেশীয় চিকিৎসকদের সমস্যা কি জানেন ? আমরা রোগীর সাথে মিষ্টি কথা বলে প্রতারণা করতে পারিনা। মিষ্টি কথা বলে প্রতারণার এই সাংঘাতিক অস্ত্রের প্রয়োগটা আমরা দেশীয় চিকিৎসকরা আজও আয়ত্ব করতে পারিনি।

আজ বিশ্ব কিডনী দিবসে একটাই দাবী - দেশে কিডনী ট্রান্সপ্ল্যান্ট পুণরায় চালু করা হোক tertiary hospital গুলোতে। আমরা দেশীয় চিকিৎসকরা ট্রান্সপ্ল্যান্ট রিজেক্টের কৈফিয়ত দিতে প্রস্তুত।

ভিত্তিহীন নিউজ করে করে দেশের স্বাস্হ্যখাতের বারোটা আর না বাজানোর জন্য মিডিয়াকে অনুরোধ করবো আবারও।

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত