ডা. মোঃ মাকসুদ উল্যাহ্‌

ডা. মোঃ মাকসুদ উল্যাহ্‌

চিকিৎসক, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল


০৬ মার্চ, ২০১৭ ১১:২১ পিএম

‘তারা বোঝে না’

‘তারা বোঝে না’

ডাক্তারেরা জনগনের ট্যাক্সের টাকায় লেখাপড়া করে, এ কথা যে ব্যাক্তি আলাদা করে বলতে চায় ; সে মূলত একটা মূর্খ।

কারন শুধু ডাক্তারেরাই নয়, অন্য সবাই ও জনগনের টেক্সের টাকায় লেখাপড়া করে।  প্রকৌশলী, পুলিশ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রশাসক, মন্ত্রী, সচিব, বিচারক, আইনজীবী, স্কুল শিক্ষক, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকসহ সবাই ই জনগনের টেক্সের টাকায় লেখা পড়া করেছে। 

এমনকি যে ব্যক্তি স্নাতক পাস করে প্রবাসে চাকুরি করতেছে সে ও জনগনের টেক্সের টাকায় লেখাপড়া করেছে।  আর ডাক্তারেরা শুধু ট্যাক্সের টাকায় ই পড়েনি, ডাক্তার হওয়ার জন্য তাঁর বাপেরও অনেক টাকা খরচ হয়েছে। কোনো কোনো ডাক্তারের বাপের জমিও বিক্রি করতে হয়েছে। 

কোনো ডাক্তার কখনোই জনগনের কাছে বা সরকারের কাছে 'ট্যাক্সের টাকায় ডাক্তারি পড়া' ভিক্ষা চায় নি। বরং জনগন/ সরকার নিজের গরজেই ডাক্তার বানায়। কেউ যদি মনে করেন জনগনের টেক্সের টাকায় ডাক্তারি পড়ানোটা ডাক্তারদের প্রতি জনগনের/ সরকারের দয়া ; তাহলে সরকার ডাক্তারি পড়ানো বন্ধ করে দিক! কি? রাজি? 

জনগনের ট্যাক্সের টাকায় যারা লেখাপড়া করে, তাদের মধ্যে ডাক্তারেরাই জনগনকে সবচেয়ে বেশি ফিরিয়ে দেয়। ডাক্তারদের পেছনে জনগনের যে টাকা ব্যয় হয়, নিজের জীবনকে তেজপাতা করে ডাক্তারেরা তাঁর চেয়ে কয়েক হাজার গুন বেশি টাকা মূল্যের চিকিৎসা জনগনকে ফিরিয়ে দেয়। বিনিময়ে জাতি তাঁদের প্রতি করতেছে অসভ্যতা! করতেছে লাঞ্ছনা! কিন্তু বেকুবেরা সেটা বুঝে না। 

কিছু বিশেষ ব্যতিক্রম ছাড়া, যেসব লোক নিজেদের জীবনে ব্যর্থ ; তারাই পথে ঘাটে এমন কথা বলে, "ডাক্তারেরা জনগনের টেক্সের টাকায় পড়ে"।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত