০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ১২:০৯ পিএম

মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী! সেবা দিতে এসেছি, জীবন দিতে নয়

মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী! সেবা দিতে এসেছি, জীবন দিতে নয়

১.  আল্লামা জালালউদ্দীন সূয়ুতী(রহঃ) এর একটি অনুবাদগ্রন্থ পড়ছিলাম। বইটির মূল নাম- "লাক্বতুল মারজ্বানি ফী আহকামিল জ্বান্ন"....বাংলায়--"জ্বীন জাতির বিস্ময়কর ইতিহাস"। অদ্ভুত অদ্ভুত সব তথ্য। আমি গোগ্রাসে গিলছি বলা চলে। এমন সময় মুঠোফোনে 'টিং টিং' শব্দে মেসেজ আসার শব্দ শুনলাম....

নিজের ডিএমসিয়ান ব্যাচমেট মেসেজটি পাঠিয়েছে, কাজেই ইন্টারেস্টিং টপিক পড়াতে ছেদ টানতে হলো......

মেসেজ ওপেন করলাম। একটি কোয়েশ্চেন পেপার, SSC- এর বাংলা পরীক্ষার সৃজনশীল প্রশ্নপত্র-- যেখানে "জাহেদ সাহেব একজন লোভী ডাক্তার "--কথাটি বলে কার্যত সমস্ত চিকিৎসক সমাজকে স্পষ্টতই অপমান করা হয়েছে.....

 

২.  প্রশ্নটা দেখার পর আমি কিছুক্ষণ ঝিম মেরে রইলাম। এটা কি হলো?

লক্ষ লক্ষ কোমলমতি ছেলেমেয়েরা এই প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিচ্ছে, তাদের মনে অত্যন্ত সুক্ষ ও প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ভাবে একটি মহান পেশার প্রতি ঘৃণার বিষবাষ্প ছড়িয়ে দেয়া হলো.......

কাজটি কারা করলো? কাজটি করলো আরেকটি মহান পেশার কিছু সদস্য, যারা শিক্ষক নামের কলঙ্ক......

যাদের দায়িত্ব ছিলো কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের মনে ভালোবাসার বীজ বপন করা, তারা ঘৃণার বীজ বপন করলেন......

যে সদস্যরা এই ঘৃণ্য কাজের সাথে জড়িত ছিলো, #Khalil_Gibran এর একটি কোটেশন দিয়ে আমি তাদের কাছে একটি প্রশ্ন রাখিঃ

"If your heart is a volcano, how shall you expect flowers to bloom?"

 

৩. একটি পেশার সব লোক কখনোই খারাপ হতে পারে না। অথচ ঢালাওভাবে ইঙ্গিতপূর্ণ বাক্যে সম্পূর্ণ চিকিৎসক সমাজকে হেয় করা হলো......

কেনো করা হলো জানেন?

কারণ, চিকিৎসকরা সবচেয়ে নিরীহ প্রজাতি....

আপনি ধারণা করতে পারেন, যদি "জাহেদ সাহেব"কে ডাক্তার হিসেবে রিপ্রেজেন্ট না করে যদি পুলিশ, আইনজীবী, সচিব বা অন্য কোনো পেশার লোক হিসেবে রিপ্রেজেন্ট করা হতো- তবে দেশে আজকে কি দুর্যোগ ঘটতো?

আপনি নিশ্চিত থাকুন "জাহেদ সাহেব"কে যদি ঐ শিক্ষক নামধারী কালপ্রিটগুলো অন্য কোনো পেশার লোক হিসেবে দেখাতো- তবে ২৪ ঘন্টার ভেতরে ঐ স্টুপিড প্রশ্নকর্তা, মডারেটর ও বোর্ড চেয়ারম্যান এখন জেলহাজতের চৌদ্দশিকের ভেতরে থাকতো.....

 

৪.  এই প্রশ্নে যে জেনারেশনটা পরীক্ষা দিলো, সে জেনারেশনটা বড় হবে একটি অসুস্থ মানসিক গঠন নিয়ে, এরাই একসময় পান থেকে চুনন খসলে ডাক্তার পিটাবে, যার জন্য দায়ী কিছু কুরুচিপূর্ণ শিক্ষক....

তারা কেনো এমনটা করলেন? Psychology কি বলে?

সরাসরি #Psychology'র একটি লাইন তুলে ধরিঃ

"A person generally hates you for 3 reasons: (1) They want to be you, (2)They hate themselves, (3)They see you as a threat..."

আমি হলফ করে বলতে পারি, যারা এই প্রশ্নটি করার সাথে জড়িত ছিলো-তাদের চৌদ্দগুষ্টিতে এই পর্যন্ত কেউ চিকিৎসক হবার যোগ্যতা অর্জন করেনি, Just check my words.....

 

৫.  ২০১৫ সালের Transparency International Bangladesh ( #TIB) এর একটি জরীপের তথ্য দেই.....

এই জরীপ অনুযায়ী, এই দেশের মানুষ সবচেয়ে বেশী দুর্নীতির শিকার হয় পাসপোর্ট অফিসে গিয়ে (৭৭.৭%), তারপর-আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে গিয়ে (৭৪.৬%)......

যারা প্রশ্ন করেছেন সেই শিক্ষাখাত দুর্নীতিতে (৬০.৮%) গৌরবের সাথে তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছে। দুর্নীতিতে চতুর্থ খাত-বিআরটিএ, পঞ্চম -ভূমি প্রশাসন, ষষ্ঠ- বিচারিক সেবা এবং সপ্তম-স্বাস্থ্যখাত (৩৭.৫%)...

বিপ্লবী #চে_গুয়েভারার একটা কথা বলি, "If you'r furious with every injustice then you are my friend "... অন্য সব পেশাতেই Injustice আছে, প্রকটভাবেই আছে, তাদের ব্যাপারে কিছু বলা হয় না, অথচ ভিলেন বানানো হয় শুধু চিকিৎসকদের.....

টিআইবি'র জরীপ তো আপনাদের দেখালাম, এরপরও দিন শেষে শুধু ডাক্তাররাই খারাপ। #রবিঠাকুরের "দুই বিঘা জমি"র শেষ লাইনগুলো মনে আছে? আমি মনে করিয়ে দেইঃ

"আমি শুনে হাসি, আঁখিজলে ভাসি, এই ছিল মোরে ঘটে -
তুমি মহারাজ সাধু হলে আজ, আমি আজ চোর বটে।।".....

 

৬. গত দুইদিন ফেসবুক স্ক্রল করলাম। এই ধরণের প্রশ্নে চিকিৎসকেরা স্বভাবতই ক্ষুব্ধ।

এক চিকিৎসককে দেখলাম যিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবার তিনিও শিক্ষকদের ব্যাপারে পাল্টা অ্যাকশনে যাবেন। যে রকম অপমান চিকিৎসক সমাজকে করা হয়েছে, প্রফ পরীক্ষায় প্রশ্নে একই প্যাটার্নে শিক্ষকদেরও তুলোধুনো করা হবে। তার প্রফ প্রশ্নের নমুনা দেইঃ

A school teacher complaining of genital erosion, having multiple sexual exposure in different brothels.

Q.1.How will you investigate this teacher?
Q.2.How will you treat this teacher?
Q.3. How will you counsel him?

কথায় বলে -'ঢিলটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয়'- Tit for tat.....

যাই হোক, আমি জানি যে চিকিৎসক এটি লিখেছেন তা নিতান্তই রসিকতা। যে স্টুপিডিটি কিছু শিক্ষক দেখিয়েছে, চিকিৎসক সমাজ সে স্টুপিডিটি দেখাবে না, সেই মেধা এরা ধারণ করে, সেই জাজমেন্ট চিকিৎসক সমাজের আছে.....

 

৭. সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ইন্ডিয়ান মুভি "#Raees" দেখেছেন? লক্ষ্য করেছেন--ভারত কত মহান ভাবে, কত পজিটিভ ওয়েতে তাদের চিকিৎসককে মিডিয়ায় প্রেজেন্ট করে? আমরা কি করি?

ভারতের সব চিকিৎসক কি ধোয়া তুলসী পাতা? যদি তাই মনে থাকেন, তবে বলবো--You are in fool's paradise, কয়দিন আগে ভারতের নোবেলজয়ী অমর্ত্য সেন সে দেশের স্বাস্থ্যখাত নিয়ে কি বিষাদগার করেছে তা বোধ করি আপনি জানেন না। এরপরও ইন্ডিয়া চিকিৎসা পেশার মহত্বকে অক্ষুন্ন রাখে....

আর কিছু না হোক, এই প্রশ্নে ইন্ডিয়া ভবিষ্যতে আরো লাভবান হবে....

 

৮. যে ঘটনা এদেশে ঘটলো, সে ঘটনা আজ ইউরোপ-অ্যামেরিকায় ঘটলে এর দায়ভার নিজ কাঁধে নিয়ে #শিক্ষামন্ত্রী লজ্জায় পদত্যাগ করতেন, যারা প্রশ্ন প্রণয়নের সাথে জড়িত ছিলো তাদের কি হতো তা বলাই বাহুল্য.....

বাংলাদেশে অবশ্য সেটা ঘটবে না। জাতিগতভাবে আমরা এখনো সভ্য হতে পারিনি....

৯....

দিনের প্রথমভাগে গতকাল চিকিৎসকেরা তাদের হৃত সম্মান পুনরুদ্ধারে মানববন্ধন করেছেন। দিনের শেষভাগে ডিএমসিতে কর্তব্যরত অবস্থায় ডাঃ ফারহানা আফরিন কাকনকে এই দেশের কিছু নরপশু আহত করলো.....

"সাত কোটি সন্তানেরে হে মুগ্ধ জননী, রেখেছো বাঙালি করে মানুষ করোনি"

আমরা আর কবে সভ্য হবো?

এখন তো দেখছি মানববন্ধন করে সম্মান পুনরুদ্ধার তো 'দূর কি বাত হ্যায়', জীবন নিয়েই টানাটানি। আর কত চিকিৎসক নিগৃহীত হলে আমাদের #স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশের প্রতিটা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন? 

একটা কথা স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে স্পষ্ট উল্লেখ করি- 'আপনি যদি কর্মক্ষেত্রে পুলিশি প্রোটেকশনের মাধ্যমে আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারেন, তবে কর্মক্ষেত্রে কাজ করতে যাবার নির্দেশ দেবার অধিকারও আপনি রাখেন না। আপনাদের প্রয়োজন না থাকার পরও আপনারা পুলিশ প্রোটেকশন নিয়ে ঘুরেন, আমাদের জীবন সংশয়ে থাকে- আমরা কোনো প্রোটেকশন পাই না। মনে রাখবেন, আমরা সেবা দিতে এসেছি, জীবন দিতে নয়'.....

 

১০. একটা পজিটিভ জিনিস আপনারা লক্ষ্য করেছেন কিনা জানিনা- ভেদাভেদ ভুলে চিকিৎসকেরা এখন অনেক সংগঠিত। আজ থেকে বছর তিনেক আগেও আমরা এত ইউনাইটেড ছিলাম না। আমরা বোধ হয় এ দিনগুলোর অপেক্ষাতেই ছিলাম। তবে আত্মতৃপ্তির সুযোগ এখনো আসেনি....

চিকিৎসক সংগঠনগুলোর প্রতি চিকিৎসক হিসেবে একটি অনুরোধ রাখতেই পারি- উপরে বর্ণিত দু'ঘটনায় এমন ব্যবস্থা নেয়া হোক যাতে চিকিৎসক সমাজের দিকে আঙ্গুল তোলার আগে প্রত্যেককে দ্বিতীয়বার ভাবতে হয়। গঠনমূলক সমালোচনাকে স্বাগত জানাই, ইতরামি-ফাতরামিকে নয়......

 

১১.  ঢালাও ওয়েতে চিকিৎসকদের সম্মানকে ভূলুণ্ঠিত করা হলো। ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে কর্তব্যরত অবস্থায় চিকিৎসককে রক্তাক্ত করা হলো। মিডিয়া কি এরপরেও আমাদের পক্ষ নিবে না?

একটি পেশার সব লোক খারাপ হবে- সেটা আমি বিশ্বাস করি না। কাজেই ইয়েলো জার্নালিজমে সবাই আক্রান্ত হবেন- এটা অসম্ভব। জার্নালিস্টরাও এদেশের সন্তান। সে হিসেবে তাদেরই এক বোনকে রক্তাক্ত করা হলো। সাংবাদিকরা বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেন যে, তারা সঠিকভাবে এই ইস্যুতে দায়িত্ব পালন করছেন?

 

১২. যে পেশার সব কসাই, কমিশনখোর, লোভী, যে পেশা নিয়ে মানুষের এত অভিযোগ- সরকার সে পেশা বন্ধ করে দিলেই পারে। মানুষগুলো 'ভূল চিকিৎসা' থেকে রেহাই পায়, আমরাও একটু হাঁফ ছেড়ে বাঁচি .....

 

১৩. পৌরণিক সাহিত্যে 'দেবতা শিব' বিশেষ স্থান দখল করে আছে। অন্যসব দেবতাদের রক্ষার্থে শিব নিজেই নাকি বিষপান করে '#নীলকণ্ঠ' হয়েছিলো.....

প্রতিনিয়ত লাঞ্ছনা সহ্য করে চিকিৎসকরাও আজ 'নীলকণ্ঠ' হয়েছেন। এই পেশার লোক হবার কারণে নিজেকে আজ নিজ দেশে পরাধীন মনে হয়......

একটা কথা এদেশের লোকদের বুঝতে হবে। প্রতিনিয়ত শত অপমান সহ্য করে আমরা নিরন্তর সেবা দিয়ে যাই।কিন্তু আমরাও মানুষ, আমাদের সহ্যের একটা সীমা থাকবে এটাই স্বাভাবিক।পৌরাণিক কাহিনীর ভাষ্যমতে মহাদেব শিব কিন্তু মাঝে মাঝে অসুরবিনাশী রূপ ধারণ করে অসুর বধ করতো.....

যাবার আগে তাই একটা কথা স্মরণ করিয়ে দেইঃ

"Never push a loyal person to the point where they no longer care....."

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না
জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের সিসিউতে ভয়ানক কয়েক ঘন্টা

ডাক্তার-নার্সদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কথা মিডিয়ায় আসে না