ঢাকা      সোমবার ২৬, অগাস্ট ২০১৯ - ১০, ভাদ্র, ১৪২৬ - হিজরী

শাহবাগের মানববন্ধনে ঘোষণা

অবমাননাকারীদের বিরুদ্ধে আদালতে রিট করবেন চিকিৎসকরা

ইলিয়াস হোসেন : এসএসসি পরীক্ষার বাংলা প্রথমপত্রের সৃজনশীল অংশে ডাক্তারদের অবমাননাকারীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে আদালতে রিট করা হবে। শনিবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে আয়োজিত মানববন্ধনে বিএসএমএমইউ’র নিউরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. আহসান হাবীব হেলাল এ আশ্বাস দেন।

সম্মিলিত চিকিৎসক সমাজের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে বিপুল সংখ্যক চিকিৎসক ও মেডিকেল শিক্ষার্থী অংশ নেন। তারা প্রশ্নপত্রসহ উক্ত পরীক্ষা বাতিল, প্রশ্নপত্র প্রণয়নকারীদের শাস্তির দাবি জানান।  

চিকিৎসা পেশাকে অবমাননা করে প্রশ্নপত্র প্রণয়নকারী মডারেটর ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানকে শাস্তিমূলক বরখাস্ত ও বিচারের মুখোমুখি না করলে শিগগিরই শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে কঠোর কর্মসূচী দেয়ার হুমকি দেন বক্তারা।

মানববন্ধনে সমন্বয় করেন, ডাক্তার আরিফুল হাসান জোয়ার্দার টিটু। একাত্মতা ঘোষণা করে বক্তৃতা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রিউমাটোলজি বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আতিকুল হক, অধ্যাপক এম এ খালেক, ডা. শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুন, ডা. আলাউদ্দিন, ডা. জাকির হোসেন সুমন, ডা. আসাদুল হাবীব মিন্টু, ডা. রাজিব,  ডা. সুভাষ চন্দ্র, ডা. রুহুল আমিন, ডা. মোস্তাক আহমেদ।

তারা বলেন, ভাষা আন্দোলন-স্বাধীনতা যুদ্ধসহ প্রতিটি রক্তক্ষয়ী আন্দোলনে চিকিৎসকরা অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। মানুষকে সেবা দিচ্ছেন দিন-রাত। গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ এমডিজি পুরস্কারসহ যতগুলো আন্তর্জাতিক সম্মাননা লাভ করেছে, তার বেশিরভাগই চিকিৎসা সম্পর্কিত। ডাক্তাররা লোভী হলে এ অর্জন সম্ভব হতো না। 

তারপরও এসএসসি’র প্রশ্নপত্রে কেন লোভী অভিযোগ তোলা হলো। এ ধরনের উদ্ধৃতি রাখার মাধ্যমে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মনে চিকিৎসক সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা দেয়া হচ্ছে। এর পরিণতি হবে ভয়াবহ। আগামীতে মেধাবীরা চিকিৎসাবিদ্যার প্রতি উৎসাহ হারিয়ে ফেলবেন।  

মানববন্ধনে বক্তৃতাকালে শিক্ষামন্ত্রীকে উদ্দেশ্যে করে এক চিকিৎসক বলেন, আর কত ভুল করলে ষড়যন্ত্রকারী শিক্ষকদের বিচার করবেন?

ডা. আলাউদ্দিন বলেন, এদেশে ছাত্রীর চরিত্রহরণকারী পরিমলের মত শিক্ষকও আছেন। এজন্য আমরা তো শিক্ষকদের পরিমলের সমাজ বা জাত বলে গালি দেই না। 

উল্লেখ্য, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ - বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এস এস সি পরীক্ষার আবশ্যিক বিষয় বাংলা প্রশ্নপত্রের ২ নম্বর সৃজনশীল প্রশ্ন ছিলো নিম্নরূপ : 

জাহেদ সাহেব একজন লোভী ডাক্তার। অভাব ও দারিদ্র বিমোচন করতে গিয়ে তিনি সবসময় অর্থের পেছনে ছুটতেন। এক সময় বাড়ি-গাড়ি ধন-সম্পদ সব কিছুর মালিক হন। তবুও তার চাওয়া পাওয়ার শেষ নেই। অর্থ উপার্জনই তার একমাত্র নেশা। অন্যদিকে তার বন্ধু সগীর সাহেব তাঁর ধন-সম্পদ থেকে বিভিন্ন সামাজিক জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যয় করেন ৷ তিনি মনে করেন, সুন্দরভাবে জীবনযাপনের জন্য বেশি সম্পদের প্রয়োজন নেই।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

কুষ্টিয়ায় নার্সের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার 

কুষ্টিয়ায় নার্সের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: নিখোঁজের তিন দিন পর কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বিলকিস আক্তার (৪০) নামে…

ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে ফিরেছেন লাশ হয়ে

ভারতে চিকিৎসা নিতে গিয়ে ফিরেছেন লাশ হয়ে

মেডিভয়েস ডেস্ক: ভারতের কলকাতায় চিকিৎসা নিতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরতে হলো মইনুল…

ঢাকা মেডিকেলে নারী চিকিৎসককে লাঞ্ছিতের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার 

ঢাকা মেডিকেলে নারী চিকিৎসককে লাঞ্ছিতের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার 

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ডেটল পয়জনিংয়ের রোগীকে আউটডোর বেসিসে চিকিৎসা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায়…

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু

মেডিভয়েস রিপোর্ট: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে নিজ দেশে বেড়াতে এসে ডেঙ্গুতে মারা গেছেন…

পূর্বের আদেশ বাতিল: কাটলো চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষা বাধাগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা

পূর্বের আদেশ বাতিল: কাটলো চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষা বাধাগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা

মেডিভয়েস রিপোর্ট: হাসপাতালে পাঁচজন চিকিৎসক না থাকলে চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার ছুটি না পাওয়া…

চিকিৎসায় নিয়োজিত থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ চিকিৎসক

চিকিৎসায় নিয়োজিত থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ চিকিৎসক

মেডিভয়েস রিপোর্ট: ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা ছাড়িয়ে…

আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর