২৭ জানুয়ারী, ২০১৭ ০৩:৪৭ পিএম

মেটফরমিনের উপকারী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া!

মেটফরমিনের উপকারী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া!

যেকোন ঔষধ খেলেই মাথাব্যথা,বমি-বমি ভাব অথবা বমির মত কিছু সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় ; কিন্তু সম্প্রতি ডায়াবেটিস নিরাময়ের জন্য ব্যবহৃত একটি ঔষধের কিছু উপকারী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে, এটি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে কাজ করে।

বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, যেসব ডায়াবেটিক রোগীদের চিকিৎসা মেটফরমিন দিয়ে হচ্ছে, নন ডায়াবেটিক রোগীদের চাইতে তাদের মাথা এবং গলার ক্যান্সার নিরাময়ের সম্ভাবনা অনেক বেশি। 

টমাস জেফারসন ইউনিভার্সিটির সিডনী ক্যামেল ক্যান্সার সেন্টারের বিজ্ঞানীরা তিন বছর ধরে ক্যান্সার কোষের ওপর মেটফরমিনের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করেছেন, যার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে আমেরিকার 'ল্যারিঙ্গোস্কোপ' নামক বিশ্বখ্যাত জার্নালে। 

তারা ৩৯জন নন-ডায়াবেটিক রোগীকে ডায়াবেটিসে মেটফরমিনের ব্যবহৃত ডোজের অর্ধেক ডোজ দেওয়ার আগে ও পরে ক্যান্সার সেল ডেথের( কোষ মৃত্যুর) মলিকুলার মার্কার এবং মেটাবলিক পাথওয়ে পরীক্ষা করে দুটি জিনিস লক্ষ্য করেন।

প্রথমত,রোগীদের ক্যান্সার সেলের দ্রুত মৃত্যু(অ্যাপোপটোসিস) ঘটছে।

দ্বিতীয়ত, ক্যান্সার সেলগুলোকে সাহায্যকারী ফাইব্রোব্লাস্ট কমে গিয়ে ক্যান্সার সেলের বৃদ্ধি এবং বিস্তার (মেটাস্ট্যাসিস) কমিয়ে দিচ্ছে।

মনে করা হচ্ছে যে, মেটফরমিন ক্যান্সার সেল বড় হওয়ার জন্য যে ফুয়েলের ওপর নির্ভর করে তাকে ব্যহত করছে এবং সেই সাথে ক্যান্সার সেলের সামগ্রিক মাইক্রোএনভাইরনমেন্ট-ই বদলে দিচ্ছে; যেমনটি গবেষক জোসেফ কারী বলেছেন, 'ক্যান্সার সেলগুলো বেড়ে উঠতে প্রচুর শক্তি প্রয়োজন হয়। এদের শক্তি উৎপাদনের পদ্ধতিতে পরিবর্তন এনে এই ক্যান্সার সেলগুলো যেন ঔষধের প্রতি সংবেদনশীল হয়, সে চেষ্টাই করা হচ্ছে'।

ডায়াবেটিস চিকিৎসার জন্য মেটফরমিন বহুদিন ধরে নিরাপদ ঔষধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে এবং ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহৃত কেমোথেরাপির চেয়ে কম ক্ষতিকর। যদি উদাহরণ দিতে হয়, এই পরীক্ষাটির কথাই ধরুন; যাদেরকে মেটফরমিন দেওয়া হয়েছে কয়েকজনের ক্ষেত্রে হালকা বমি-বমি ভাব ছাড়া তাদের অধিকাংশই কোন উল্লেখযোগ্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখান নি।

'ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য ব্যবহৃত নিরাপদ ডোজে বা তারচেয়ে কম ডোজে ব্যবহৃত মেটফরমিনের মাথা ও গলার ক্যান্সার নিরাময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এটি ক্যান্সার সেলগুলোর অভ্যন্তরীণ অবস্থা এমনভাবে বদলে দেয় যে এগুলোকে আক্রমণ করা খুব সহজ হয়ে যায়', ব্যাখ্যা করছিলেন সহকারী গবেষক ম্যাডালিনা টুলুক। 'মেটফরমিন ক্যান্সার বৃদ্ধির জন্য দায়ী ফুয়েল বা জ্বালানির সরবরাহ ধ্বংস করে এবং এই সাথে ক্যান্সারের সাপোর্টিং সিস্টেমকেও নষ্ট করে দেয়'।

সিনিয়র গবেষক উবাল্ডো মার্টিনোজ আউটস্ক্রুণ বলেন, 'ক্যান্সার চিকিৎসায় অবশ্যই এটি একটি ভালো সূচনা,এই পরীক্ষা থেকে যেমন মনে হচ্ছে ; তবে মেটফরমিনকে ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহারের অনুমোদন পেতে আমাদের এখনো বহুদূর যেতে হবে।

এই পরীক্ষা মূলত মেটফরমিন কিভাবে মাথা এবং গলার ক্যান্সারে কাজ করে, তার প্রথম ধাপ,তবু আমরা খুশি যে ক্যান্সার রোগীদের অবস্থা উন্নয়নে এটি কিছুটা হলেও ভূমিকা রাখছে'। তিনি আরও বলেন, 'পরবর্তীতে আমরা ফেজ -২ ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে আরও বেশিসংখ্যক রোগীর ওপর মেটফরমিনের ফলাফল দেখতে চাই'।

নিঃসন্দেহে মেটফরমিনের এই নতুন প্রয়োগক্ষেত্র চিকিৎসা বিজ্ঞানের এক নব-দিগন্ত উন্মোচন করবে, ক্যান্সার রোগীদের হতাশ চোখে হয়তো প্রাপ্তির আলো জ্বেলে দেবে ;ঠিক তেমনটাই প্রত্যাশা এই গবেষণার সাথে সংশ্লিষ্টদের।

সূত্র : ফিউচারিজম।

ভাষান্তর : মাহমুদ ইবনে মাহফুজ।

 

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত