২৭ মার্চ, ২০২২ ১০:৫৮ এএম

রাজধানীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে চিকিৎসকের মৃত্যু

রাজধানীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে চিকিৎসকের মৃত্যু
ডা. বুলবুল হোসেন।

মেডিভয়েস রিপোর্ট: রাজধানীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে নিহত হয়েছেন ডেন্টাল সার্জন ডা. বুলবুল হোসেন। আজ রোববার (২৭ মার্চ) সকাল আটটার দিকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করেছে মিরপুর থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোস্তাজিরুর রহমান মেডিভয়েসকে বলেন,মিরপুরের পশ্চিম কাজীপাড়া থেকে বুলবুল হোসেন নামে এক চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও আমরা বিস্তারিত জানতে পারিনি।’

তিনি আরও বলেন, ওই চিকিৎসক সম্ভবত নোয়াখালী বা কোথাও যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ভোর ছয়টার দিকে ছুরিকাঘাতপ্রাপ্ত হন। পরে তাকে আল হেলাল মেডিকেল সেন্টার নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তাঁর পায়ে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিহত চিকিৎসকের কাছে থাকা ১২ হাজার টাকা ও মোবাইলফোন নেননি ঘাতক। ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত চলছে।

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ডা. বুলবুলের গ্রামের বাড়ি রংপুর জেলায়। তিনি ইউনিভার্সিটি ডেন্টাল কলেজের (ইউডিসি) ৬ষ্ঠ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন৷ তিনি মগবাজারে রংপুর ডেন্টাল নামে একটি চেম্বারে চিকিৎসা দিচ্ছিলেন। সেখানে তিনি দরিদ্র ও নিম্নবিত্তদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দিতেন। শুধু স্বাবলম্বীদের কাছ থেকে ফি নিতেন।

ডা. বুলবুলের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ সেনাবাহিনীর সদস্য ছিলেন। চাকরি করাকালীন ১৯৯৯ সালে মারা যান। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে সবার বড় ছিলেন বুলবুল। ১৯৯৭ সালে রংপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ঢাকার মগবাজারে ইউডিসিতে ভর্তি হন। সেখান থেকে বিডিএস পড়াশোনা শেষ করে প্র্যাকটিস শুরু করেন।

দিনাজপুর জেলায় বিয়ে করেছিলেন ডা. বুলবুল। স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে ঢাকা বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন তিনি। দেড় বছর বয়সী ছেলে ও সাত বছরের মেয়ে রয়েছে বুলবুলের।

ডা. বুলবুলের ছোট বোন লাভলী সামাদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন বড় ভাই। চিকিৎসা পেশার পাশাপাশি ঠিকাদারি করতেন। ঠিকাদারি কাজে আজ নোয়াখালী যাওয়ার কথা ছিল। এখন ভাই নেই। দুই শিশু সন্তানসহ পরিবারের সদস্যরা কীভাবে দিন পাড়ি দেবেন?’

বুলবুলের মা বুলবুলি বেগম বলেন, গতকাল রাতেও বিকাশে দুই হাজার টাকা পাঠিয়ে গরুর দুধ কিনে রাখতে বলেছিল বুলবুল। দুই একদিনের মধ্যেই বাড়িতে আসার কথা ছিল। বাড়িতে এসে সেই দুধ নিয়ে যেত। কিন্তু তা আর হলো না। ছেলের খুনি যেই হোক তাকে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বুলবুলি।

সুষ্ঠু তদন্ত দাবি ডেন্টাল সোসাইটির

এদিকে ডা. বুলবুল হোসেন ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে মারা গেছেন নাকি পরিকল্পিত ‘হত্যাকাণ্ড’ তা তদন্তের দাবি জানিয়েছে ডেন্টাল চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটি।

জানতে চাইলে ঢাকা ডেন্টাল কলেজের অধ্যক্ষ ও সোসাইটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. হুমায়ুন কবির বুলবুল মেডিভয়েসকে বলেন, ‘কেউ বলছেন দুর্বত্তের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছে, আবার কেউ বলছেন, ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছে ডা. বুলবুল। এটা অন্য কোনো বিষয়ও থাকতে পারে। যেভাবেই হোক, এটা একটা হত্যাকাণ্ড। এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ছেলেটা খুব অমায়িক ব্যবহারের অধিকারী ছিল, ভালো সংগঠক। আমার সাথে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ ছিল। ডা. বুলবুল বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় আর্টিকেল লিখতো। আমি কয়েকবার ডা. বুলবুলের চেম্বারেও গিয়েছি। কিছু দিন আগেও আমরা এক সাথে পেশাগত কাজ করেছি। তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। ডা. বুলবুলের মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। পোস্টমর্টেম শেষে জানাযা ও দাফন হবে। এই হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি। শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। তাঁর পরিবারের পাশে আছি, থাকবো।’

তিনি আরও বলেন, তাঁর পরিবারের আমরা যোগাযোগ করবো। কোনো ধরনের আর্থিক সহযোগিতা প্রয়োজন হলে আমাদের সোসাইটির পক্ষ থেকে দেওয়া হবে এবং এটা আমরা করে থাকি। আমাদেরও একটা দায়বদ্ধতা রয়েছে। 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি