ঢাকা      মঙ্গলবার ১৬, জুলাই ২০১৯ - ১, শ্রাবণ, ১৪২৬ - হিজরী

ডিগ্রীর নাম MPH

MPH- Masters in Public Health  বা জনস্বাস্থে স্নাতোকোত্তর ডিগ্রী- যা বাংলাদেশে অত্যন্ত সুপরিচিত।

যদিও এ ডিগ্রী নিয়ে নেগিটিভ পজেটিভ দুই ধরনের মতামতই প্রচলিত। তবুও MPH ডিগ্রীর একটি বিশেষত্বও বিদ্যমান আছে।

যে যাই বলুক MPH করার আগে এটি সম্পর্কে ভাল জ্ঞান থাকা চাই।

MPH হলো স্নাতোকোত্তর ডিগ্রী- যার মাধ্যমে মানুষের স্বাস্তগত সকল সমস্যাকে সামগ্রীক বিবেচনায় নিয়ে এর সমাধানের পন্থা বের করা।

জনস্বাস্থ বিষয়ক এই ডিগ্রী শুধু ডাক্তাররাই করতে পারবে এমনটা ঠিক নয়।

যে কোন ব্যাকগ্রাউন্ডের অধিকারীই এই ডিগ্রী করতে পারবেন।

ডিগ্রীটি করার জন্য কারা উপযুক্ত এ নিয়ে প্রচলিত একটি কথা আছে- এম বি বি এস চলাকালিন সময়ে অথবা পাশ করার সাথে সাথে ঠিক করে নেয়া যে আপনি কিসে ক্যারিয়ার গড়তে চান ক্লিনিক্যাল লাইনে নাকি ননক্লিনিক্যাল লাইনে।

সহজ কথায় আপনি কি সাধারন এক ফিজিশিয়ান হবেন নাকি জনস্বাস্থ নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি তা নিয়ে গবেষনা কর্মও করবেন।

যদি আপনি ক্লিনিক্যাল লাইনে ক্যারিয়ার গড়তে চান সেক্ষেত্রেও MPH ডিগ্রী আপনার কাজে দিবে।

আর যদি নন ক্লিনিক্যাল লাইনে ক্যারিয়ার গড়তে চান এবং পি এইচ ডি করতে চান তাহলে আপনার রিসার্চ পেপারের প্রয়োজন হবে।

সেক্ষেত্রে MPH খুব বেশী সহায়ক হবে।

আপনি যদি সরকারী চাকরী করতে চান সেক্ষেত্রে পাবলিক হেলথ সেক্টরে কাজ করার জন্য কিংবা কমিউনিটি মেডিসিনে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য বি এম ডি সি কর্তৃক স্বীকৃত একমাত্র প্রতিষ্ঠান NIPSOM।

সরকারী এই প্রতিষ্ঠানটিতে ভর্তি হতে চাইলে, ইন্টার্নের পর ভর্তি পরীক্ষা দিতে হয়। কোর্সের মেয়াদ দুই বছর। ক্লাস সপ্তাহে ৫ দিন। 

NIPSOM ছাড়াও MPH করা যায় BSMMU, BDHS, BRAC, AIUB, IUB, NSU সহ আরো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান থেকে। 

অবশ্য এসব প্রতিষ্ঠান থেকে ডিগ্রি নেয়ার খরচ অনেক বেশি। 


MPH করার পর সরকারী,বে-সরকারী উভয় ক্ষেত্রেই চাকুরী করা যায়। স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশাসনিক প্রতিষ্ঠানের কর্তা ব্যক্তি, বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের কমিউনিটি মেডিসিনের শিক্ষক, রিসার্স এসিসটেন্ট, এপিডেমিওলজিস্ট, হেলথ ইকোনমিস্ট হিসেবে কাজ করার সুযোগ তৈরি হয়। 

এছাড়াও সরকারী ক্ষেত্রে যেমন স্বাস্থ প্রশাসন, জনস্বাস্থ ও কমিউনিটি মেডিসিন ইত্যাদি আর বে-সরকারী  ক্ষেত্রে UNICEF, UN, USAID, ICDDRB, BRAC, ORBIS, SAVE The Children সহ আরো অনেক বিখ্যাত প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুযোগ আছে। 

(প্রকাশিত : মেডিভয়েস: সংখ্যা : ৪; বর্ষ ২; জানুয়ারী-ফেব্রুয়ারী ২০১৫)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 




জনপ্রিয় বিষয় সমূহ:

দুর্যোগ অধ্যাপক সায়েন্টিস্ট রিভিউ সাক্ষাৎকার মানসিক স্বাস্থ্য মেধাবী নিউরন বিএসএমএমইউ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ঢামেক গবেষণা ফার্মাসিউটিক্যালস স্বাস্থ্য অধিদপ্তর