৩০ নভেম্বর, ২০১৬ ১১:৩৬ এএম

থ্যালাসেমিয়া মারাত্মক বংশগত রোগ

থ্যালাসেমিয়া মারাত্মক বংশগত রোগ

থ্যালাসেমিয়া একটি মারাত্মক বংশগত রোগ। তাই এ রোগে প্রতিরোধে বাহকে বাহকে বিয়েতে নিরুৎসাহিত করার আহ্বান জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, এ রোগ সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনা সৃষ্টির মাধ্যমে বিয়ের আগে প্রত্যেকের রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে বাহক নির্ণয় করা দরকার।

 

মঙ্গলবার থ্যালাসেমিয়া হাসপাতাল আয়োজিত ‘থ্যালাসেমিয়া রোগ সচেতনতা এবং তা প্রতিরোধে করণীয়’ বিষয়ক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকমন্ডলী ও ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে শিক্ষার্থীদের ভিডিও চিত্রপ্রদর্শন, আলোচনা সভা, শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে থ্যালাসেমিয়া রোগের বাহক নির্ণয়ে রক্ত পরীক্ষা করা হয়।

 

সভায় আলোচনা করেন থ্যালাসেমিয়া হাসপাতালের সিওও এবং কনসালট্যান্ট ডা. একরামুল হোসেন স্বপন, চিফ মেডিক্যাল অফিসার ডা. কবিরুল ইসলাম লাবু ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক উপ-পরিচালক কাজী ফারুক আহমেদ। বক্তারা বলেন, পিতামাতা উভয়ই এ রোগের বাহক হলে তাদের সন্তানরা এ রোগ নিয়ে জন্মগ্রহণ করতে পারে। 

 

বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ১০ থেকে ১২ ভাগ মানুষ এ রোগের বাহক। থ্যালাসেমিয়া রোগের চিকিত্সা এতই ব্যয়বহুল যে অধিকাংশ পিতামাতারাই এর খরচ বহন করতে পারেন না। ফলে অধিকাংশ সন্তান অকালেই মৃত্যুবরণ করে।

 

তাই বক্তারা এ রোগ সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনা সৃষ্টি করে এবং বিয়ের আগে প্রত্যেকের রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে বাহক নির্ণয় করে বাহকে বাহকে বিয়ে বন্ধ করার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সকলকে অবহিত  করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান।

  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি