০১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২ ১২:০৮ পিএম

পশ্চিমবঙ্গে বিধিনিষেধের মধ্যেই খুলে দেওয়া হলো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

পশ্চিমবঙ্গে বিধিনিষেধের মধ্যেই খুলে দেওয়া হলো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
সোমবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা যায়। ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ইতোমধ্যে করোনার সংক্রমণ কিছুটা কমতে শুরু করেছে। তবে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বিধিনিষেধ ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে খুলতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

সোমবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাপতিত্বে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা যায়।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, আগামী বুধবার থেকে অষ্টম থেকে দ্বাদশ শ্রেনির ক্লাস শুরু হবে। খুলে যাবে কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, পলিটেকনিক ও আইটিআই। আর পঞ্চম থেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের ক্লাস শুরুর বিষয়ে পাড়ায় পাড়ায় নিজ নিজ বিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা ব্যবস্থা নেবেন। তবে প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়নি।

রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বিধিনিষেধ চলাকালে ৭৫ শতাংশ কর্মী নিয়ে খুলতে পারবে সরকারি ও বেসরকারি অফিস। তবে রাতের কারফিউ জারির সময় ১০টা থেকে কমিয়ে রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত করা হয়েছে। ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজ্যব্যাপী চলবে ‘দুয়ারে সরকার কর্মসূচি’। প্রতিদিন চলবে কলকাতা-মুম্বাই-দিল্লি বিমান পরিষেবা। কলকাতা-লন্ডন ফ্লাইটও চালু হবে শিগগির।

মন্ত্রিসভার এ সিদ্ধান্তের আগে আজই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে সিপিএমের ছাত্র ও যুব সংগঠন এসএফআই ও ডিওয়াইএফআই রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল করে। এ কর্মসূচি ঘিরে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে ছাত্র ও যুবদের সংঘর্ষ হয়। পুলিশ বিভিন্ন স্থানে মিছিলকারীদের লাঠিপেটা করে। গ্রেপ্তার করে বহু ছাত্র ও যুব নেতা–কর্মীদের।

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও
একদিনেই অবস্থান বদল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা ছড়ায় উপসর্গহীন ব্যক্তিও