২৫ জানুয়ারী, ২০২২ ০৬:৪২ পিএম

‘করোনা থেকে সুরক্ষায় স্বাস্থ্যবিধির সঙ্গে জরুরি পুষ্টিকর খাবার’

‘করোনা থেকে সুরক্ষায় স্বাস্থ্যবিধির সঙ্গে জরুরি পুষ্টিকর খাবার’
সোমবার (২৪ জনুয়ারি) মেডিভয়েসের সঙ্গে একান্ত আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি। ছবি: সংগৃহীত

মেডিভয়েস রিপোর্ট: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা পেতে স্বাস্থ্যবিধি মানার পাশাপাশি পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ জরুরি বলে মনে করেন বাংলা একাডেমির সাহিত্য পুরস্কারজয়ী লেখক-গবেষক অধ্যাপক ডা. শুভাগত চৌধুরী। সোমবার (২৪ জনুয়ারি) মেডিভয়েসের সঙ্গে একান্ত আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরী বলেন, ‘করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে শরীরের ইউমিনিটি বাড়ানো জরুরি। সেজন্য স্বাস্থ্যবিধি মানার পাশাপাশি পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। একই সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করাসহ ফলমূল ও বিভিন্ন রঙের শাক-সবজি খেতে হবে। এ সময় প্রোটিনের উপর বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।’

করোনার নতুন ধরন অমিক্রন নিয়ে বলেন, ‘এটা খুব দ্রুত ছড়িয়ে যাচ্ছে। এর পেছনে দুটি কারণ রয়েছে। এখন মূলত স্পাইক প্রোটিনের মতো এর জেনেটিক পরিবর্তনগুলো হচ্ছে। যত বেশি মানুষের মধ্যে ছড়াচ্ছে ততোই ধরন বাড়ছে। এটাই বৈজ্ঞানিক হিসাব। অর্থাৎ একটি জীবানুকে যত বেশি বিস্তারের সুযোগ দেওয়া হবে, তত বেশি ধরন তৈরি হবে। এ কারণেই ভ্যাকসিন না নেওয়া ও স্বাস্থ্যবিধির যথাযথ তোয়াক্কার অভাবে এই ধরনগুলো বাড়ছে। করোনার ধরন আরও আগেই কমে যেতো, যদি আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলতাম।’

তাই স্বাস্থ্যবিধি মানার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, ‘মাস্ক পরা, ভীড় ও জনসমাবেশ এড়িয়ে চলতে হবে। ভ্যাক্সিনেশন চালিয়ে যেতে হবে। এতে মানুষের শরীরে আর্টিফিশিয়াল ইউমিনিটি তৈরি হয়। তিন থেকে ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রেখে কার্যক্রম চালাতে হবে, হাত ধুতে হবে এবং হাঁচি-কাশি দেওয়ার সময় শিষ্টাচার মেনে চলতে হবে।

তিনি বলেন, ‘অমিক্রন এমন একটি পদার্থ যা ইউমিনিটি সিস্টেমকে এড়িয়ে চলে এবং মানুষের শরীরে আঘাত করে। যে কারণে বোঝার উপায় থাকছে না। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও সবাই ভ্যাকসিনের আওতায়  না আসায় এই ভ্যারিয়েন্ট বাড়ছে।’

বিখ্যাত ইমিউনোলজিস্ট, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা এন্থনি ফাউসির বরাত দিয়ে অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরী বলেন, ‘অমিক্রন হতে পারে শেষ ভ্যারিয়েন্ট। এই ভ্যারিয়েন্ট অনেক মানুষের মধ্যে ছড়াবে, এর মাধ্যমে আস্তে আস্তে সে নিস্তেজ হয়ে যাবে। হয়তো সামনের বছর দেখতে পাবো, করোনা মহামারী বিশ্ব থেকে চলে গেছে। কিন্তু এটি সামান্য সর্দি-কাশি ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো থাকবে। এজন্য হতে পারে প্রতিবছর আমাদের ভ্যাকসিন নিতে হবে।’

 

মেডিভয়েসের জনপ্রিয় ভিডিও কন্টেন্টগুলো দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন MedivoiceBD ইউটিউব চ্যানেল। আপনার মতামত/লেখা পাঠান [email protected] এ।
  এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি
জাতীয় ওষুধনীতি-২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

নিবন্ধনহীন ওষুধ লিখলে চিকিৎসকের শাস্তি